বিরাট কোহলি এই দুজনকে দিলেন সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে পাওয়া জয়ের শ্রেয়

আইপিএলের ষষ্ঠ ম্যাচে আরসিবিরদল সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে ৬ রানের ব্যবধানে হারিয়ে দিয়েছে। আর এই ম্যাচে জেতার সঙ্গেই তারা পয়েন্টস টেবিলে ২টি গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টস অর্জন করে ফেলেছে।এই ম্যাচের টস ডেভিড ওয়ার্নার জেতেন আর প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে আরসিবির দলে ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪৮ রান করে। যার জবাবে হায়দ্রাবাদের দল ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১৪৩ রানই করতে পারে।

আগামীদিনে আরও মুশকিল হবে উইকেট – বিরাট কোহলি

বিরাট কোহলি এই দুজনকে দিলেন সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে পাওয়া জয়ের শ্রেয় 1

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে ১ রানে জয়ের পর সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে ৬ রানে হারিয়ে দেয় বিরাট কোহলির আরসিবি। এই ম্যাচের পর বিরাট কোহলি বলেন, “আমার দলের উপর গর্ব রয়েছে। আমাদের জন্য এটা ভীষণই ভালো একটা ম্যাচ ছিল। আগামীদিনে উইকেট আরও বেহি চ্যালেঞ্জিং হতে চলেছে, এটা আমরা কালও দেখেছি। এমন পরিস্থিতিতে আপনি কখনওই ম্যাচের বাইরে থাকেন না। আমাদের কাছে বোলিংয়ে যথেষ্ট বিকল্প রয়েছে আর এই বিকল্পরা মাঝের ওভারের আমাদের জন্য যথেষ্ট ভালো পারফর্মেন্স দিচ্ছে”।

ম্যাক্সওয়েলের ইনিংস পার্থক্য তৈরি করেছে – কোহলি

বিরাট কোহলি এই দুজনকে দিলেন সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে পাওয়া জয়ের শ্রেয় 2

এরপর আগে দলের স্কোর আর রান তাড়া করার ব্যাপার নিয়ে বিরাট বলেন, “আমি ছেলেদের বলেছিলাম যে আমরা ১৪৯ রান পর্যন্ত পৌঁছতে যথেষ্ট সংঘর্ষ করেছি। আমার বিশ্বাস ছিল যে আমরা ১৫০ পর্যন্ত স্কোরে জিততে পারব। যদি এটা আমাদের জন্য মুশকিল হয় তো নিশ্চিতই ওদের জন্যও মুশকিল হতে চলেছে। চাপের ভেতর আমরা নিজেদের রণনীতি যথেষ্ট ভালোভাবে এক্সিকিউট করেছি। পুরোনো বলে বিষয়গুলি নিয়মিত মুশকিল হচ্ছিল। আমি পাওয়ার প্লে চলাকালীন কিছু বাউন্ডারি মেরে মোমেন্টাম তৈরি করার চেষ্টা করেছিলাম। আমার মনে হয় যে আমাদের জন্য ম্যাক্সওয়েলের ইনিংসই সম্পূর্ণ পার্থক্য তৈরি করে দিয়েছিল। সতভাবে বললে এই বছর পাওয়া জয়গুলি নিয়ে আমরা অতি উৎসাহিত নই কারণ আমাদের মন আমাদের পরিকল্পনার মতোই সম্পূর্ণ পরিষ্কার”।

আমরা এক সময়ে একটা ম্যাচ ধরেই এগোচ্ছি

বিরাট কোহলি এই দুজনকে দিলেন সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে পাওয়া জয়ের শ্রেয় 3

শেষে হর্ষ প্যাটেল আর নিজের দলের রণনীতি নিয়ে কথা বলতে গিয়ে কোহলি বলেন, “আমরা হর্ষকে দিল্লির সঙ্গে ট্রেড করার পর একটি স্পেসিফিক ভূমিকা দিয়েছি যেখানে ও দুর্দান্ত ক্রিকেট ডেলিভারি করেছে। আমরা এক সময়ে একটি ম্যাচের ব্যাপারেই ভাবছি। আমরা একে অপরের সঙ্গে খেলাটাকে উপভোগ করছি। ব্যস প্রয়োজন হল প্রফেশনাল হয়ে ফিল্ডে নিজের কাজ করার”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *