TOP 3: রোহিত শর্মা নয় ,বরং এই ৩ খেলোয়াড় মুম্বই ইন্ডিয়ান্স'কে IPL-এর আঙিনায় করেছেন বিখ্যাত !! 1
Prev1 of 3
Use your ← → (arrow) keys to browse

২০০৮ সালে শুরু হওয়া ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (IPL) ভারতীয় ক্রিকেটে এক বিপ্লবের সূচনা করেছিলো। গ্ল্যামার আর ক্রিকেটের সীমারেখা মুছে গিয়ে ক্রিকেট কেবল একটা খেলা থেকে জনসাধারণের বিনোদনের অন্যতম এক মাধ্যম হয়ে উঠেছিলো। যত সময় এগিয়েছে ভারতের জনতার দৈনন্দিন জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠেছে তিনটি অক্ষর-IPL। নিজের ১৫ বছরের ইতিহাসে এখনো অব্দি বহু খেলোয়াড়’কে রাতারাতি তারকা হওয়ার সুযোগ করেদ ইয়েছে ভারতের এই কোটিপতি লীগ। আইপিএলের দেখানো পথ ধরেই বিভিন্ন দেশে শুরু হয়েছে বিগ ব্যাশ, পিএসএল, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের মত প্রতিযোগিতাগুলো। ভারতের আইপিএলের জনপ্রিয়তা আজ ১৫ বছর পরেও অবশ্য বলে বলে গোল দেবে বাকি টুর্নামেন্টগুলি’কে। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের সবচেয়ে সফল দল  মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। ইতিমধ্যেই ৫ বার ট্রফি জয় করে নিয়েছে তারা। তাদের পারফর্ম্যান্স’ই মুম্বইয়ের জনপ্রিয়তা শুধুমাত্র ওয়াংখেড়ে’তে সীমাবদ্ধ না রেখে ছড়িয়ে দিয়েছে দেশ এবং দেশের বাইরে। অধিনায়ক রোহিত শর্মা’র আমলে সাফল্য এলেও এই সোনালি দিনের কান্ডারী অন্য তিন কিংবদন্তী ক্রিকেটার। দেখে নিন তাঁদের নামের তালিকা।

লাসিথ মালিঙ্গা

Lasith Malinga | image: Twitter
Lasith Malinga has been one of Mumbai Indians’ stand-out performers.

সীমিত ওভারের ক্রিকেটে একবিংশ শতাব্দী’তে শ্রেষ্ঠতম বোলারদের তালিকা তৈরি করতে বসলে প্রথম পাঁচ নামের মধ্যে মালিঙ্গার নাম আসবেই। শ্রীলঙ্কার লাসিথ মালিঙ্গা(Lasith Malinga) কেরিয়ারের শুরুতেই ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের নজরে আসেন তাঁর ঝাঁকড়া চুল আর সাইড আর্ম বোলিং অ্যাকশনের জন্য। নিজের অ্যাকশন’কে ব্যবহার করে নিজের স্লোয়ার, বাউন্সার এবং ইয়র্কারগুলি’কে শিল্পের পর্যায়ে নিয়ে গিয়েছিলেন মালিঙ্গা। ২০০৯ সালে দ্বিতীয় আইপিএলে তিনি প্রথম মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের জার্সি গায়ে চাপান। ২০০৯ থেকে ২০২০ অব্দি কেবলমাত্র মুম্বইতেই থেকেছেন তিনি। হয়ে উঠেছেন ঘরের ছেলে। বল হাতে অনেক কঠিন ম্যাচ জিতিয়ে মুম্বই’কে সাফল্যের সরণী’তে রেখেছেন শ্রীলঙ্কা’র কিংবদন্তী। মাত্র ১২২ টি আইপিএল ম্যাচে ১৭০ টি উইকেট নিয়েছেন তিনি। এক ম্যাচে সেরা বোলিং প্রদর্শন ৫/১৩। ইকোনমি টি-২০ ক্রিকেটের ক্ষেত্রে নগণ্য ৭.১৭। সবচেয়ে চমপ্রদ তাঁর বোলিং গড়। টি-২০’কে বলা হয় ব্যাটসম্যানের খেলা। তা সত্ত্বেও মালিঙ্গার বোলিং গড় ১৯.৭৯। শুধুমাত্র বোলার হিসেব নয়, তরুণ প্রতিভাদের মাজাঘষা’র কাজ’ও তিনি করেছেন স্বতপ্রবৃত্ত হয়েই। ভারত’কে উপহার দিয়েছেন জসপ্রীত বুমরাহ’র মত প্রতিভা। নিজের অসামান্য পারফর্ম্যান্স দিয়ে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের জনপ্রিয়তা অনেক গুণ বাড়িয়েছেন ‘স্লিঙ্গা’ মালিঙ্গা (Lasith Malinga), তা বলাই যায়।

Prev1 of 3
Use your ← → (arrow) keys to browse

Leave a comment

Your email address will not be published.