TOP 3: গত বছরের ভুল আর করবে না মুম্বই ইন্ডিয়ান্স, দল গোছাতে IPL নিলামে এই ৩ ক্রিকেটারের জন্য ঝাঁপাতে চলেছেন রোহিত শর্মা’রা !! 1
Prev1 of 3
Use your ← → (arrow) keys to browse

TOP 3: ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ(IPL) প্রতিযোগিতার সফলতম দল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স(MI)। মুকেশ আম্বানীর মালিকানাধীন ‘পল্টন’রা ট্রফি জিতেছে পাঁচ বার। ২০১৩, ২০১৫, ২০১৭, ২০১৯ এবং ২০২০ সালে ট্রফি ঢুকেছিলো তাদের শিবিরে। বরাবরই নতুন প্রতিভাদের সুযোগ দিতে দেখা গিয়েছে তাদের। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সে(MI) খেলেই ভারতের ক্রিকেটে নিজেদের পরিচিতি তৈরি করেছেন জসপ্রীত বুমরাহ, হার্দিক পান্ডিয়া’র মত প্রতিভা’রা। আসন্ন ‘মিনি’ অকশনেও নতুন কোনো প্রতিভা’কে তুলে নিয়ে তারুণ্য ও অভিজ্ঞতা’র মিশেলে দল বানাতে চাইবে তারা। ২০২২ আইপিএলে মোটেও ভালো ছিলো না মুম্বইয়ের পারফর্ম্যান্স। টেবিলের শেষতম স্থানে ছিলেন রোহিত শর্মা’রা। ২০২২ এর খারাপ পারফর্ম্যান্সের পর শূন্য থেকে শুরু করে আবার সাফল্যের শীর্ষে ফেরাই চ্যালেঞ্জ ঈশান কিষণ, সূর্যকুমার যাদব’দের কাছে। নিজেদের দলের ‘নিউক্লিয়াস’ ধরে রাখতে বরাবর বদ্ধপরিকর থাকে মুম্বই। তাদের এই বছরের রিটেনশন লিস্টেও সেই একই ‘প্যাটার্ন’ দেখা যাচ্ছে। দলের হয়ে ম্যাচ জেতানো খেলোয়াড়দের ধরেই রেখে দিলো তারা। ভবিষ্যত বিনিয়োগ হিসেবে মুম্বই ডাগ আউটে রয়ে গেলেন ডিওয়াল্ড ব্রেভিস, অর্জুন তেন্ডুলকরের মত প্রতিভারা। বেঙ্গালুরু থেকে ট্রেড পদ্ধতি’তে দলে এলেন ডেভিড বেহেরেনডফ। বাতিলের তালিকায় বড় নাম বলতে কিয়েরণ পোলার্ড। তালিকা প্রকাশের পর আসন্ন ‘মিনি’ অকশনে মুম্বইয়ের হাতে রইলো ২০.৫৫ কোটি টাকা। সেই বিপুল অর্থ খরচ করে আগামী বছর ট্রফি জয়ের জন্য মরিয়া চেষ্টা করবেন রোহিত শর্মা’রা। এই ৩ ক্রিকেটার হতে পারেন তাদের প্রধান লক্ষ্য।

নিকোলাস পুরান

Nicholas Pooran | image : twitter
Mumbai Indians can go for Nicholas Pooran in the IPL mini auction.

টি-২০ ক্রিকেটে ক্যারিবিয়ান বিগ হিটারদের সাফল্য কারও অজানা নয়। আইপিএলেও বিভিন্ন দলের হয়ে সাফল্যের সঙ্গে খেলেছেন ক্রিস গেইল, ডোয়েন ব্র্যাভো। নতুন প্রজন্মের খেলোয়াড়দের মধ্যে সেই তালিকায় যুক্ত হতে পারে নিকোলাস পুরানের(Nicholas Pooran) নাম। উইন্ডিজের উইকেটরক্ষক ব্যাটারের দিকে হাতে বাড়াতে পারে মুম্বই দল। বিগত আইপিএল নিলামে তাঁকে সই করানোর জন্য অল আউট ঝাঁপিয়েছিলো সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। ১০.৭৫ কোটি’র বিশাল প্রাইস ট্যাগ সহ হায়দ্রাবাদ দলে গিয়েছিলেন পুরান। ১৪ ম্যাচে ৩৮.২৫ ব্যাটিং গড় সহ ৩০৬ রান করেন তিনি। ছিলো ২ টি অর্ধশতরান’ও। বেশ ভালো খেলার পরেও তাঁকে ধরে রাখতে চায় নি সানরাইজার্স। মুম্বই দলে উইকেটরক্ষক হিসেবে ঈশান কিষণ থাকলেও তাঁর পরিবর্ত নেই কেউ। আর উইকেটের পিছনে না খেললেও কেবল ব্যাটার হিসেবেও দলে স্বচ্ছন্দ্যে জায়গা করে নিতে পারেন পুরান। নিজের সমগ্র টি-২০ কেরিয়ারে ৪৯৪২ রান করেছেন পুরান। স্ট্রাইক রেট ১৪২ এর কাছে। এই ধুন্ধুমার ব্যাটার’কে দলে নিয়ে দলের ভারসাম্য মজবুত করতে এগিয়ে আসতে পারেন মুম্বই কর্তা’রা।

Prev1 of 3
Use your ← → (arrow) keys to browse

Leave a comment

Your email address will not be published.