বাতিল হওয়া টেস্ট নিয়ে উলটে ভারতের প্রতি সহানূভুতি দেখালেন এই প্রাক্তন ইংরেজ অধিনায়ক 1

ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক নাসের হুসেন বিশ্বাস করেন যে আসন্ন আইপিএল ২০২১ এর দ্বিতীয় লেগ ভারত এবং ইংল্যান্ডের মধ্যে পঞ্চম টেস্ট (আইএনডি বনাম ইএনজি) বাতিলের একটি বড় ভূমিকা রয়েছে। হুসেন বিশ্বাস করেন যে ম্যানচেস্টার টেস্টের সময় কোন খেলোয়াড় কোভিড -১৯ এর সংস্পর্শে এলে বিসিসিআই আইপিএল থেকে মোটা আয় হারানোর আশঙ্কা করেছিল।

Many think India are the favorites, but I'd have England as favorites: Nasser  Hussain

স্কাই স্পোর্টসের সাথে কথা বলার সময়, নাসের হুসেন বাতিল হওয়া ম্যাচ সম্পর্কে তার প্রতিক্রিয়া জানান। তিনি বলেন, “শুরুতে বিসিসিআই এই টেস্ট ম্যাচ নিয়ে খুব চিন্তিত ছিল। আইপিএল থেকে যাতে কোনও আর্থিক ক্ষতি না হয় সেজন্য তারা সবকিছু সরিয়ে রাখতে চেয়েছিলেন। তারা এগিয়ে গেছে। অবশ্যই এটা আইপিএল নিয়ে সম্পর্কিত, কিন্তু এটা সেই খেলোয়াড়দের সম্পর্কে যারা মনে করে: যদি কোভিড পজিটিভ এখান থেকে ঘটে, তাহলে আমাকে পরবর্তী ১০ দিন এখানে কাটাতে হবে।” আইপিএল ২০২১ এর দ্বিতীয় পর্ব ১৯ সেপ্টেম্বর চেন্নাই সুপার কিংস এবং মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে।

India vs England: Nasser Hussain warns Joe Root & co. ahead of 4th Test,  says 'do not write India off', Sports News | wionews.com

নাসের হুসেন বলেন, “আমি ভারতীয় খেলোয়াড়দের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ করি কারণ তাদের দুইজন ফিজিও ছিলেন যারা কোভিড -১৯ পজিটিভ হয়েছিলেন। দ্বিতীয় ফিজিও পঞ্চম টেস্টের আগে সব খেলোয়াড়ের শরীর হালকা করে দেবে। আপনি ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ ছাড়া ফিজিওথেরাপি করতে পারবেন না। যে খেলোয়াড়রা অনেকবার নেতিবাচক এসেছে, কিন্তু পরবর্তী দুই থেকে তিন দিন তাদের জন্য উদ্বেগজনক। যদি সেই সময়ে কোভিড কেস সামনে আসে, তাহলে সমস্যা হবে। সচেতন থাকুন যে ভারতীয় দলের উভয় ফিজিও কোভিড -১৯ পজিটিভ। অনেক খেলোয়াড় ফিজিওর সাথে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ করতে পারে এবং ফলাফল হল যে তারা ম্যাচটি খেলতে চায়নিকারণ টেস্ট ম্যাচের সময় আরও কেস বাড়তে পারে বলে আশা করা হচ্ছে।”

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *