ভারত বনাম ইংল্যান্ড: সুনীল গাভাস্কার মনে করেন এই ব্যাপারে ইংল্যান্ডের থেকে কমজোরি রয়ে গেছে ভারত

ইংল্যান্ডের সঙ্গে হতে চলা টেস্ট সিরিজের আগে ভারতীয় দল এসেক্সের সঙ্গে ২৫ জুলাই থেকে ২৭ জুলাই পর্যন্ত প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলেছে। সুনীল গাভাস্কার টিম ইন্ডিয়ার এই প্র্যাকটিস ম্যাচের উপর প্রশ্ন করেছেন দল এই ম্যাচ থেকে কতটা অভিজ্ঞতা পেয়েছে? ভারতীয় দল ইংল্যান্ডে পৌঁছেছে প্রায় এক মাস হয়ে গিয়েছে। কিন্তু সেখানে এখনও পর্যন্ত সাদা বলেই সীমিত ওভারের ক্রিকেট খেলেছে।

সুনীল গাভাস্কার তুললেন প্রশ্ন
ভারত বনাম ইংল্যান্ড: সুনীল গাভাস্কার মনে করেন এই ব্যাপারে ইংল্যান্ডের থেকে কমজোরি রয়ে গেছে ভারত 1
ইংল্যান্ডের মাটিতে টেস্ট খেলা সহজ হয় না। প্রাক্তণ ভারতীয় অধিনায়ক সুনীল গাভাস্কার এটাকেই মাথায় রেখে ভারত দ্বারা খেলা তিন দিনের প্র্যাকটিস ম্যাচ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। টাইমস অফ ইন্ডিয়ায় প্রকাশিত খবর অনুযায়ী গাভাস্কার জানিয়েছেন, “ এখানে ইংল্যান্ড দল প্রায় একমাসের বেশি সময় খেলছে। কিন্তু সেটা ছিল সাদা বলের ক্রিকেট”।
আগে গাভাস্কার আরও বলেন, “ যদি দলের খেলোয়াড়দের হালত এবং ওয়েদারের মোতাবিক স্থিতুও হয়ে যায় তাহলে প্রশ্ন এটাই ওঠে যে একটি প্র্যাকটিস ম্যাচে ওদের লাল বলে খেলার কতটা অভিজ্ঞতা হয়েছে? ওখানের বেশিরভাগ জায়গার ওয়েদার ভারতের মতো বেশি। কিন্তু গত কিছু দিনে হাল্কা বৃষ্টির কারণে এটা বদলে গিয়েছে। যদি ওয়েদার এমনই থাকে তাহলে নতুন বলের সঙ্গে বোলাররা খেলার মজা নেবে কারণ বল বেশি হরকত করবে আর ওরা লম্বা স্পেল করাতে পারবে”।
ভারত বনাম ইংল্যান্ড: সুনীল গাভাস্কার মনে করেন এই ব্যাপারে ইংল্যান্ডের থেকে কমজোরি রয়ে গেছে ভারত 2
এক আগষ্ট অর্থাৎ আগামি কাল থেকে হতে চলা এজবাস্টনে প্রথম টেস্ট ম্যাচের জন্য প্লেয়িং ইলেভেনের ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে গাভাস্কার জানান, “ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টের সঠিক কম্বিনেশন তৈরি করতে যথেষ্ট সমস্যা হচ্ছে মনে হয়। যার কারণ হল যে এটা এমন একটা ম্যাচ যা পুরো সিরিজের ছন্দ তৈরি করে দেবে। দল কি পাঁচ বোলার নিয়ে নামবে নাকি ৬ ব্যাটসম্যনা নিয়ে। পাঁচ বোলারের মধ্যে ২জন স্পিনার?”

এছাড়াও গাভাস্কার আরও জানিয়েছেন যে অশ্বিন এবং পান্ডিয়ার নামের পাশে টেস্ট সেঞ্চুরি রয়েছে। যা বেশ ভাল কথা। এই কারণে ভারত যদি পাঁচ বোলার নিয়েও খেলে তাতেও দলের ব্যাটিংয়ের গভীরতা থাকবে। গাভাস্কার আরও বলেন যে দীনেশ কার্তিকও দলে রয়েছে, যার নামেও টেস্ট সেঞ্চুরি রয়েছে। তিনি যদি ৬ নম্বরে খেলেন এবং অশ্বিন, পাণ্ডিয়া যদি তারপরে খেলতে নামেন তাহলে কুলদীপ যাদবকেও স্পিনার হিসেবে খেলানো যেতে পারে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *