সিরিজ জিতে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ নিয়ে কি বললেন কোহলি? 1

 

 

শেষ হল ভারত- ইংল্যান্ড চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। বছরের শুরুতে অস্ট্রেলিয়াকে তাদের দেশে হারিয়ে আলাদাই আত্মবিশ্বাসী ছিল ভারতীয় দল। তবে ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের সাথে সিরিজের প্রথম ম্যাচে হেরে কিছুটা পিছিয়ে পড়েছিল বিরাট বাহিনী। তারপর শেষ তিন ম্যাচে দুর্দান্ত কামব্যাক করেছে দল। ভারতের স্পিন যুগল অক্ষর প্যাটেল ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যানদের দুরমুশ করে দিয়েছে।

সিরিজ জিতে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ নিয়ে কি বললেন কোহলি? 2

আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে সিরিজের শেষ ম্যাচে ভারত এক ইনিংস ও ২৫ রানে জিতেছে। এই সিরিজ জয়ের পাশাপাশি ভারত বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে পৌঁছে গেল। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়শিপের পয়েন্টস টেবিলে প্রথম স্থানে রয়েছে ভারত। ১৮ জুন ইংল্যান্ডের লর্ডসের মাঠে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হবে ভারত। এই গুরুত্বপূর্ণ সিরিজ জিতে কি বললেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি?

সিরিজ জিতে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ নিয়ে কি বললেন কোহলি? 3

সিরিজ জিতে বিরাট বলেছেন, “আমি মনে করি দ্বিতীয় টেস্টে প্রত্যাবর্তন আমাকে সবচেয়ে বেশি সন্তুষ্ট করেছে। দল হিসাবে আমরা যেভাবে খেলেছি প্রথম ম্যাচে সেটার কিছু কমতি ছিল। টস গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল এবং আমার মনে হয় না যে বোলাররাও মোটেই ভালো করেছিল ওই ম্যাচে। চেন্নাইয়ের দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচে আমরা যেভাবে ফিরে এসেছি এবং যেভাবে ব্যাটিং করেছি … হ্যাঁ, অক্ষর এবং ওয়াশিংটন প্রস্তুত ছিল, ধারণা ছিল যে তরুণরা এসে নির্ভীকতার সাথে পারফর্ম করবে। ঋষভ এবং ওয়াশি সেই গেম-চেঞ্জিং পার্টনারশিপ এবং পরে অক্ষরও সেটি করেছিলেন। ঠিক আছে, আমরা অবশ্যই সিরিজ জিতে খুশি, তবে উন্নতি করার জন্য সবসময় চেষ্টা রয়েছে।”

সিরিজ জিতে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ নিয়ে কি বললেন কোহলি? 4

সেই সঙ্গে বিরাট আরও যোগ করেন, “টেস্ট ক্রিকেটে গত ছয়-সাত বছর ধরে অশ্বিন আমাদের জন্য ধামাকা হয়ে আছেন। আমাদের ফিরে আসার মধ্যে রোহিতের নকটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্ত ছিল। সেই পিচে ১৫০ রান করা ছিল ২৫০ রানের সমান। পুরো সিরিজ জুড়ে রোহিত গুরুত্বপূর্ণ নক ও পার্টনারশিপ করেছেন। এখন আমরা স্বীকার করতে পারি যে আমরা বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে আছি, এটা আমাদের জন্য একটি বিভ্রান্তি ছিল। এটি নিউজিল্যান্ডে আমাদের জন্য কিছুটা বিভ্রান্তিতে পরিণত করেছিল, তবে এখন একসময় খেলবো।”

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *