সৌরভ-দ্রাবিড়-লক্ষ্মণের পর এবার শচীন? বিসিসিআই হাত জোড় করে অনুরোধ করছে ক্রিকেটের ঈশ্বরকে 1

বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান ভারতের শচীন টেন্ডুলকার (Sachin Tendulkar) বোর্ড অফ কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়ায় (BCCI) বড় দায়িত্ব পেতে পারেন। টেন্ডুলকারের পাশাপাশি সৌরভ গাঙ্গুলী (Sourav Ganguly), রাহুল দ্রাবিড় (Rahul Dravid) এবং ভিভিএস লক্ষ্মণ (VVS Laxman) ভারতীয় ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় মুখ। বর্তমানে, গাঙ্গুলি বিসিসিআই-এর সভাপতি, আর দ্রাবিড় সম্প্রতি টিম ইন্ডিয়ার প্রধান কোচ হয়েছেন। তারা ছাড়াও লক্ষ্মণকে জাতীয় ক্রিকেট একাডেমির (NCA) প্রধান করা হয়েছে। তবে টেন্ডুলকারই একমাত্র বাকি, যিনি এখনও পর্যন্ত বিসিসিআইতে কোনও দায়িত্ব পাননি। তবে, বিসিসিআই সেক্রেটারি জয় শাহ (Jay Shah) এখন ইঙ্গিত দিয়েছেন যে টেন্ডুলকারও বোর্ডে একটি নতুন ভূমিকায় উপস্থিত হতে পারেন।

বিসিসিআই সেক্রেটারি ভারতের গ্রেট ব্যাটসম্যানকে রাজি করার চেষ্টা করছেন

Jay Shah Planning To Onboard Sachin Tendulkar In BCCI In Near Future-  Reports

টাইমস অফ ইন্ডিয়ার একটি প্রতিবেদন অনুসারে, বিসিসিআই সেক্রেটারি জয় শাহ বলেছেন যে দ্রাবিড়কে প্রধান কোচ এবং লক্ষ্মণকে এনসিএ প্রধান হিসাবে বেছে নেওয়ার পরে টেন্ডুলকারও বোর্ডে ভূমিকা পেতে পারেন। শাহ বলেছেন যে তিনি এর জন্য ‘ক্রিকেটের ঈশ্বর’ কে রাজি করার চেষ্টা করছেন। শচীনকে নির্বাচক কমিটিতে ভূমিকা দেওয়া হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। একইসঙ্গে শচীনের পক্ষ থেকে এখনও পর্যন্ত কোনও বিবৃতি আসেনি। কিন্তু খবরে বলা হয়েছে যে বিসিসিআই সেক্রেটারি ভারতের গ্রেট ব্যাটসম্যানকে রাজি করার চেষ্টা করছেন।

বিসিসিআই সেক্রেটারি জয় শাহ (Jay Shah) এখন ইঙ্গিত দিয়েছেন যে টেন্ডুলকারও বোর্ডে একটি নতুন ভূমিকায় উপস্থিত হতে পারেন

Pink fever grips City of Joy as Eden Gardens hosts Day/Night Test -  OrissaPOST

প্রাক্তন অধিনায়ক গাঙ্গুলি ২০১৯ সালে বিসিসিআইয়ের ৩৯তম সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন। তার আগে বিসিসিআইয়ের সভাপতি ছিলেন সিকে খান্না। তিনি ২০১৭ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত এই পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন। যেখানে এর আগে অনুরাগ ঠাকুর এই পদটি সামলাতেন। গাঙ্গুলি হলেন দ্বিতীয় অধিনায়ক যিনি BCCI-এর সভাপতি হয়েছেন। তাঁর আগে বিজয়নগরের মহারাজ কুমারই প্রথম অধিনায়ক ছিলেন যাকে এই পদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। বিসিসিআই সভাপতি হওয়ার জন্য গাঙ্গুলিকে অভিনন্দন জানিয়ে শচীন বলেছিলেন, “সে যেভাবে তার ক্রিকেট খেলেছে, যেভাবে সে দেশের সেবা করেছে, আমার কোন সন্দেহ নেই যে তিনি (বিসিসিআই সভাপতি হিসাবে) একই কাজ করেছেন। দক্ষতা, আবেগের সাথে তার ভূমিকা পালন করবেন।”

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *