অধিনায়ক হয়েই Rishabh Pant ছুঁলেন বিরাটের এই লজ্জাজনক রেকর্ড, এই তালিকায় নাম নেই আর কোনো অধিনায়কের

ভারতীয় ক্রিকেট দলের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্থকে ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার টি-২০ সিরিজে প্রথমবার ভারতীয় দলের অধিনায়কত্ব করার সুযোগ পেয়েছেন। কিন্তু এই নতুন সফর তার জন্য বিশেষ কিছুই হয়নি। এই সিরিজের প্রথম ম্যাচ বৃহস্পতিবার অর্থাৎ ৯ জুন খেলা হয়েছে, ভারতীয় দল এই ম্যাচে ২১২ রানের লক্ষ্য দেওয়া সত্ত্বেও হেরে যায়। অন্যদিকে এই লজ্জাজনক হারের পর ঋষভ পন্থের নামেও এক লজ্জাজনক রেকর্ড যোগ হয়ে গিয়েছে।

Rishabh Pant এর নামে যোগ হল এই লজ্জাজনক রেকর্ড

অধিনায়ক হয়েই Rishabh Pant ছুঁলেন বিরাটের এই লজ্জাজনক রেকর্ড, এই তালিকায় নাম নেই আর কোনো অধিনায়কের 1

ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচে প্রথমবার আন্তর্জাতিক স্তরে অধিনায়কত্ব করা ঋষভ পন্থ ডেবিউ ম্যাচেই হারের মুখ দেখেন। এর ফলে তিনি ভারতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক বিরাট কোহলির এক লজ্জাজনক রেকর্ডকে ছুঁয়ে ফেলেছেন।

বিরাট এবং ঋষভ ছাড়া আর কোনো ভারতীয় অধিনায়ক নিজেদের প্রথম টি-২০ ম্যাচ হারেননি। বিরাট কোহলি ২০১৭য় ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে অধিনায়ক হিসেবে নিজের প্রথম টি-২০ ম্যাচ হেরেছিলেন। প্রসঙ্গত, ঋষভ পন্থ টি-২০ ম্যাচে ভারতীয় দলের হয়ে অধিনায়কত্ব করা অষ্টম অধিনায়ক।

ঋষভ পন্থ টি-২০তে সবচেয়ে অধিনায়ক হওয়া দ্বিতীয় সবচেয়ে তরুণ

অধিনায়ক হয়েই Rishabh Pant ছুঁলেন বিরাটের এই লজ্জাজনক রেকর্ড, এই তালিকায় নাম নেই আর কোনো অধিনায়কের 2

ঋষভ পন্থ ভারতীয় দলের হয়ে টি-২০ আন্তর্জাতিক ম্যাচে অধিনায়কত্ব করা দ্বিতীয় সবচেয়ে তরুণ খেলোয়াড় হয়ে গিয়েছেন। ঋষভ পন্থ ২৪ বছর আর ২৪৮ দিন বয়সে অধিনায়ক হওয়ার সুযোগ পেয়েছেন। এর আগে ভারতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি টি-২০তে অধিনায়কত্ব করা দ্বিতীয় সবচেয়ে তরুণ অধিনায়ক ছিলেন।

মহেন্দ্র সিং ধোনি ২৬ বছর আর ৬৮দিন বয়সে প্রথমবার টিম ইন্ডিয়ার নেতৃত্ব সামলান। তবে এই তালিকায় এখনও প্রথম স্থানে প্রাক্তন ভারতীয় ব্যাটসম্যান সুরেশ রায়নার নাম রয়েছে। যিনি ২৩ বছর ১৯৭ দিন বয়সে প্রথমবার অধিনায়ক হয়েছিলেন।

কেএল রাহুল আহত হওয়ার পর ঋষভ পন্থকে করা হয় অধিনায়ক

অধিনায়ক হয়েই Rishabh Pant ছুঁলেন বিরাটের এই লজ্জাজনক রেকর্ড, এই তালিকায় নাম নেই আর কোনো অধিনায়কের 3

এর সঙ্গেই জানিয়ে দেওয়া ভাল যে, ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে এই সিরিজে নিয়মিত অধিনায়ক রোহিত শর্মাকে বিশ্রাম দেওয়ার পর কেএল রাহুলকে নেতৃত্ব দেওয়া হয়েছিল আর ঋষভ পন্থকে দেওয়া হয়েছিল সহঅধিনায়কের দায়িত্ব।

কিন্তু সিরিজ শুরুর একদিন আগে কেএল রাহুল সহ কুলদীপ যাদব আহত হয়ে সিরিজ থেকে ছিটকে যান, ফলে ঋষভ পন্থকে অধিনায়কত্ব দেওয়া হয় আর হার্দিক পান্ডিয়াকে দেওয়া হয় সহঅধিনায়কের দায়িত্ব।

Leave a comment

Your email address will not be published.