INDvsENG: ইংরেজদের সামনে বিরাটের অনুভূত হচ্ছে এই ভারতীয় খেলোয়াড়ের অভাব

চেন্নাইতে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে ভারতকে যথেষ্ট ঘাম ঝরাতে হচ্ছে। জো রুট, বেন স্টোকস, আর ডম সিবলের সুইপ আর রিভার্স সুইপ ভারতের স্পিনারদের সমস্ত মারপ্যাঁচ ব্যর্থ করে দিয়েছে। শাহবাজ নদীম আর ওয়াশিংটন সুন্দর সেইভাবে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের সাহায্য করতে পারছেন না, যেভাবে রবীন্দ্র জাদেজা করতেন। এই অবস্থায় দ্বিতীয় দিনের খেলা দেখার পর এটা পরিস্কার হয়ে গিয়েছিল যে টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক বিরাট কোহলির জাদেজার অভাব অনুভূত হচ্ছে। দ্বিতীয় দিনের খেলার শুরুতেই পিচে ফুটমার্ক তৈরি হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু ভারতীয় বোলাররা তার ফায়দা তুলতে পারেননি। জাদেজা এই শিল্পে দক্ষ। কিন্তু তিনি ছিলেন না ফলে ফায়দাও তোলা যায়নি। এই কারণে ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা নিয়মিত সুইপ শট খেলেছেন। জাদেজা এখন আঙুলে চোটের কারণে এই সিরিজে খেলছেন না।

দুর্দান্ত থেকেছে জাদেজার পরিসংখ্যান

INDvsENG: ইংরেজদের সামনে বিরাটের অনুভূত হচ্ছে এই ভারতীয় খেলোয়াড়ের অভাব 1

রবীন্দ্র জাদেজা সাম্প্রতিক সময়ে নিজেকে যথেষ্ট তৈরি করেছেন। তিনি এখন স্পিনারদের সাহায্যপূর্ণ পিচ ছাড়াও স্লো আর প্রাণহীন পিচেও যথেষ্ট ভয়ঙ্কর। ভারতে তিনি ৩৩টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন আর ১৫৭টি উইকেট নিয়েছেন। এর মধ্যে তার গড় ছিল ২১.০৬। ভারতীয় পিচে ফুটমার্ক যথেষ্ট দ্রুত তৈরি হয়। এই অবস্থায় জাদেজা এই ফুটমার্কের ফায়া তুলতে যথেষ্ট দক্ষ হয়ে গিয়েছেন। তিনি ক্রিজের বাইরের কোনা থেকে বল করেন আর বাঁহাতি ব্যাটসম্যানদের ষষ্ঠ স্ট্যাম্পের লাইনে বল ফেলেন। এই কারণে কিছু বল ঘোরে আর কিছু বল সোজা থাকে। এতে ব্যাটসম্যানের মনে সন্দেহ তৈরি হয়। এরই ফায়দা তোলেন জাদেজা। চেন্নাইতে যদি তিনি খেলতেন তো বেন স্টোকসের যথেষ্ট ভালো পরীক্ষা হত।

জাদেজার সামনে অসহায় দেখায় ইংরেজদের

INDvsENG: ইংরেজদের সামনে বিরাটের অনুভূত হচ্ছে এই ভারতীয় খেলোয়াড়ের অভাব 2

এছাড়াও চেন্নাইয়ের পিচ স্লো হয়ে চলেছে। এই অবস্থায় যে স্পিনার দ্রুতগতির বল করেন তিনি ফায়দা পান। জাদেজার কাছে এই ক্ষমতা রিয়েছে। তিনি ক্লান্ত না হয়ে জোরে বোলা করেন তাও সঠিক লাইনে। এই অবস্থায় চেপকের পিচে রবীন্দ্র জাদেজা টিম ইন্ডিয়ার জন্য যথেষ্ট সাহায্যপূর্ণ প্রমাণিত হতেন। জাদেজা ধারাবাহিকভাবে একই লাইন আর লেংথ বল করতে সক্ষম। এই কারণে ব্যাটসম্যানের পক্ষে কাট শট মারা সহজ হয় না। অন্যদিকে যেভাবে তিনি স্ট্যাম্পের লাইনে থাকেন তাতে ব্যাটসম্যানের পক্ষে সুইপ শট খেলাও রিস্কি হয়ে যায়। এখন যেমন জো রুট ভারতের স্পিনারদের সবরকমভাবে জবাব দিয়েছেন। তিনি নিজের মর্জিমতো সুইপ শট খেলেছেন এমনকী কাটও মেরেছেন। সেই সঙ্গে ক্রিজের ব্যবহার করে তিনি পাঞ্চও মেরেছেন।

জাদেজার সামনে হয় না রান

INDvsENG: ইংরেজদের সামনে বিরাটের অনুভূত হচ্ছে এই ভারতীয় খেলোয়াড়ের অভাব 3

ইকোনমি রেট জাদেজার সবচেয়ে বড়ো গুনগুলির মধ্যে একটি। যখন তিনি উইকেট পান না তো তিনি একদিকে রান কম দেন। ঘরোয়া টেস্টে তার ইকোনমি রেট ২.২৪। অর্থাৎ প্রত্যেক ওভারে ২.২৪ রান। একদিকে রান না আসায় ব্যাটসম্যান অন্যদিক থেকে রান করার কথা ভাবেন। এই অবস্থায় অন্য প্রান্তের বোলারের কাছে আক্রমণ করারও সুযোগ তৈরি হয়। এই কারণে জাদেজা আর অশ্বিনের জুটি যথেষ্ট কাজের।
কিন্তু চেন্নাই টেস্টে এখন নদীম আর সুন্দর চার রান প্রতি ওভারে দিয়েছেন। এতে ভারত রানের গতি আটকাতে পারেনি আর অশ্বিন, বুমরাহ আর ঈশান্ত শর্মার দুর্দান্ত বোলিং সত্ত্বেও ইংল্যান্ড প্রচুর রান করেছে। এখানেই যদি জাদেজা থাকতেন তো রান করা সহজ হত না।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *