pbks-to-axe-dhawan-and-5-in-next-ipl

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের (IPL) ষোড়শ মরসুম শেষ হয়েছে গত মে মাসে। বৃষ্টিবিঘ্নিত ফাইনাল ম্যাচ রুদ্ধশ্বাস মোড় নিয়েছিলো আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে। প্রথমে ব্যাট করে রানের পাহাড় গড়েছিলো গুজরাত টাইটান্স (GT)। জবাবে জয় ছিনিয়ে নিতে চেন্নাইকে অপেক্ষা করতে হয় শেষ বল অবধি। মোহিত শর্মাকে ফাইন লেগ বাউন্ডারিতে ঠেলে দিয়ে চেন্নাই সুপার কিংসকে (CSK) পঞ্চম খেতাব এনে দেন রবীন্দ্র জাদেজা (Ravindra Jadeja)। টুর্নামেন্টের সফলতম দল হিসেবে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের পাশে জায়গা করে নেয় চেন্নাই। চেন্নাই ও গুজরাতের পাশাপাশি শেষ চারে এই বছর জায়গা করে নিয়েছিলো লক্ষ্ণৌ সুপারজায়ান্টস (LSG) এবং মুম্বই ইন্ডিয়ান্স (MI)। ষোড়শ বর্ষে এসেও খেতাব থেকে দূরেই থাকতে হলো বেঙ্গালুরু, পাঞ্জাবের (PBKS) মত দলকে। ২০১৪-র পর টানা দশ মরসুম প্লে-অফের টিকিটও আদায় করতে পারলো না প্রীতি জিন্টার পাঞ্জাব কিংস।

দল নিয়ে বারবার রদবদল করাই যেন পাঞ্জাব কিংসের (PBKS) দস্তুর হয়ে দাঁড়িয়েছে। গত তিন মরসুমে তিন জন আলাদা অধিনায়কের অধীনে খেলেছে দল। ২০২১ মরসুমের পর পাঞ্জাব ছাড়েন কে এল রাহুল (KL Rahul)। যোগ দেন লক্ষ্ণৌ সুপারজায়ান্টসে। ২০২২ মরসুমে অধিনায়ক ছিলেন মায়াঙ্ক আগরওয়াল (Mayank Agarwal)। ব্যর্থ হওয়ায় বাদ পড়েন তিনিও। ২০২৩ মরসুমে তাঁর ঠিকানা হয়েছিলো সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। ২০২৩ মরসুমের জন্য অভিজ্ঞ শিখর ধাওয়ানকে (Shikhar Dhawan) অধিনায়ক বেছে নিয়েছিলো পাঞ্জাব কিংস (PBKS) দল। আশানুরূপ সাফল্য এনে দিতে পারলেন না তিনিও। শোনা যাচ্ছে রাহুল-মায়াঙ্কেরই দশা হতে চলেছে তাঁরও। অধিনায়কত্ব হারাতে চলেছেন গব্বর, সাথে দল থেকেও বাদ পড়তে পারেন তিনি। ২০২৪ IPL-এর  ‘মিনি’ নিলামের আগে শিখর ধাওয়ান-সহ অন্তত ছয় ক্রিকেটারকে বাতিল করার ভাবনা রয়েছে পাঞ্জাব ফ্র্যাঞ্চাইজির।

Read More: IPL 2024: আইপিএল ২০২৪’এ আন্দ্রে রাসেল ও সুনীল নারায়ণকে ছেড়ে দিয়ে বড় পদক্ষেপ নিলেন শাহরুখ খান !!

দিন ফুরালো শিখর ধাওয়ানের-

SHIKHAR DHAWAN | IPL | Image: Getty Images
Shikhar Dhawan | Image : Getty Images

২০২২ সালের ‘মেগা নিলাম’ থেকে ৮.২৫ কোটি টাকার বিশাল মূল্যে শিখর ধাওয়ানকে দলে সামিল করে পাঞ্জাব (PBKS)। মায়াঙ্ককে সরিয়ে ষোড়শ আইপিএলে তাঁকে অধিনায়কের ব্যাটনও তুলে দেওয়া হয়। ব্যাট হাতে ২০২৩-এর ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে  শিখর ধাওয়ানের (Shikhar Dhawan)- শুরুটা বেশ ভালো হয়েছিলো। গুয়াহাটিতে রাজস্থান রয়্যালসের (RR) বিরুদ্ধে করেন ৮৬। সানরাইজার্সের (SRH) বিরুদ্ধে পাঞ্জাব কিংস হারলেও একা কুম্ভ হয়ে দলকে সম্মানজনক স্কোরে পৌঁছে দেন তিনিই। ৯৯ রান করে অপরাজিত থাকেন শিখর। মরসুমের মাঝপথে চোট পেয়ে কিছু ম্যাচের জন্য ছিটকে গিয়েছিলেন তিনি। ফিরে এসে ব্যাট হাতে আর চেনা ছন্দ ফিরে পান নি শিখর (Shikhar Dhawan)-। ছন্দ খুঁজে পায় নি পাঞ্জাবও।

টুর্নামেন্ট যত এগিয়েছে পাঞ্জাব কিংসের (PBKS) পারফর্ম্যান্সের গ্রাফও তত নীচের দিকে নেমেছে। শেষমেশ মরসুমের ১৩তম ম্যাচে দিল্লী ক্যাপিটালসের (DC) বিরুদ্ধে ধর্মশালার মাঠে হারের সাথে সাথেই বিদায় নিশ্চিত হয়ে যায় তাদের। একটা সময় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের কমলা টুপি মাথায় থাকলেও ধাওয়ান মরসুম শেষ করেন ১১ ম্যাচে ৩৭৩ রান নিয়ে। বর্তমানে শিখরের (Shikhar Dhawan) বয়স ৩৮। অফ-ফর্ম গ্রাস করেছে তাঁর ক্রিকেটকে। লম্বা সময় জাতীয় দলেরও বাইরে তিনি। সেই কারণেই ৮.২৫ কোটি টাকার মত বিশাল মূল্যে তাঁকে ধরে রাখতে চাইছে না পাঞ্জাব (PBKS)। ২০২৪ IPL-এর ‘মিনি’ নিলামের আগে গত বছরের অধিনায়ককে ছেড়ে দিয়ে ‘অকশন পার্সে’ অতিরিক্ত অর্থ যোগ করাই লক্ষ্য তাদের।

ব্যর্থতার দায় চাপিয়ে সরানো হবে আরও ৫ ক্রিকেটারকে-

PBKS | IPL | Image: Getty Images
PBKS | Image: Getty Images

২০২৩ IPL-এ অষ্টম স্থানে শেষ করেছে পাঞ্জাব কিংস (PBKS)। ১৪ ম্যাচের মধ্যে মাত্র ৬টিতে জয় পেয়েছে তারা। হেরেছে আট ম্যাচ। কলকাতা নাইট রাইডার্সের সাথে সমসংখ্যক পয়েন্ট থাকলেও রান-রেটে পিছিয়ে পড়েছে পাঞ্জাব। কিন্তু মরসুমের শুরুটা অষ্টম স্থানে থাকার মত করে নি তারা। প্রথম ম্যাচেই ঘরের মাঠে তারা হারিয়েছিলো কলকাতাকে (KKR)। দ্বিতীয় ম্যাচেও জয় এসেছিলো রাজস্থান রয়্যালসের (RR) বিরুদ্ধে। তৃতীয় ম্যাচে হারতে হয় তাদের সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের (SRH) বিরুদ্ধে। প্রথম পর্বের সাত ম্যাচের মধ্যে চারটি ম্যাচ জিতে প্লে-অফের দৌড়ে ছিলো পাঞ্জাব (PBKS)। কিন্তু দ্বিতীয় পর্বেই চাপের মুখে পরে তারা। সাত ম্যাচের মধ্যে পাঁচটিতে হারের সম্মুখীন হতে হয় তাদের।

ষোলো মরসুমে মাত্র একবার ফাইনাল খেলেছে পাঞ্জাব কিংস (PBKS)। গত দশ বছর প্লে-অফে অবধি জায়গা করে নিতে পারে নি তারা। এই ধারাবাহিক ব্যর্থতার ছবিটা ২০২৪-এর IPL-এ বদলাতে মরিয়া প্রীতি জিন্টার দল। ফের একবার স্কোয়াডকে ঢেলে সাজানোর ভাবনা রয়েছে তাদের। ডিসেম্বরে সম্ভবত বসতে চলেছে ‘মিনি’ নিলামের আসর। তার আগেই নিজেদের রিলিজ ও রিটেনশন তালিকা চূড়ান্ত করে ফেলার লক্ষ্য নিয়ে ময়দানে নেমেছে পাঞ্জাব কিংস ফ্র্যাঞ্চাইজি। বাদের তালিকায় যেমন রয়েছেন শিখর ধাওয়ান (Shikhar Dhawan), তেমনই যুক্ত হতে পারেন অস্ট্রেলিয়ার ম্যাথু শর্ট (Matthew Short)। ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে ঋষি ধাওয়ান (Rishi Dhawan), গুরনূর সিং (Gurnoor Singh), বলতেজ সিং (Baltej Singh) এবং মোহিত রাঠিকেও (Mohit Rathi) বিদায় জানাতে পারে তারা।

Also Read: “আমি ওকে পছন্দ করি”, শ্রেয়াস আইয়ারকে হৃদয় দিলেন সারাহ টেলর, এইভাবে করলেন প্রপোজ !!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *