বিদেশি দলগুলির জন্য পাকিস্তান নিরাপদ নয়, বললেন শোয়েব 1
শোয়েব আখতার

করাচি, ২৭ অক্টোবর: প্রায় আট বছর ধরে ঘরের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে পারছে না পাকিস্তান। একটি ক্রিকেটপ্রেমী দেশের মানুষের জন্য এটা বড় হতাশার ব্যাপার। ঘরের মাঠে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে কত কিছুই না করছে তারা। দেশটির জনপ্রিয় ঘরোয়া টুর্নামেন্ট পিএসএলের দ্বিতীয় আসরের ফাইনাল ম্যাচটি পাকিস্তানেই আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে পিএসএল কর্তৃপক্ষ। তাহলে কি বিদেশি খেলোয়াড়দের জন্য পাকিস্তান এখন নিরাপদ? পাকিস্তান অবশ্য মানে, তাদের দেশ নিরাপদ। কিন্তু সেটা মানছেন না দেশটির প্রাক্তন ‘স্পিড স্টার’ শোয়েব আখতার। নিজের দেশের টেলিভিশন চ্যানেলেই তিনি জানালেন, বিদেশি ক্রিকেট দলের জন্য পাকিস্তান এখনও নিরাপদ না।

সম্প্রতি পাকিস্তানের কোয়েটার পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারে ভয়াবহ সন্ত্রাসবাদী হামলা হয়েছে। তাতে ৬২ জন পুলিশ ক্যাডেট ও দুজন সেনা সদস্য মারা যান। ১৭০ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। আর এমন ঘটনার পরই শোয়েব আখতারের এই মন্তব্য এল। শোয়েব বলেন, বলতে বাধ্য হচ্ছি, দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থার যা অবস্থা তাতে আমাদের ধৈর্য্য ধরতে হবে। পরিস্থিতি পুরোপুরি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত পাকিস্তানে বিদেশি দলকে আমন্ত্রণ জানানোর ঝুঁকি আমাদের নেওয়া উচিৎ না। আমি নিশ্চিত, পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরবে। কিন্তু তার জন্য সময় লাগবে।”

২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের বাসের ওপর সেই সন্ত্রাসবাদী হামলার পর পাকিস্তানের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট একপ্রকার নির্বাসিত। এর মধ্যে জিম্বাবোয়ে, আফগানিস্তান, কেনিয়ার মতো ছোট দলগুলিকে এনে খেলিয়েছে বটে, কিন্তু দেশটিতে আর কোন দেশ সফর করতে রাজি হয়নি। সংযুক্ত আরব আমিরশাহীকে তাই নিজেদের নতুন ‘হোম গ্রাউন্ড’ বানিয়ে নিয়েছে পাকিস্তান। এমনকি পিসিবির টি-২০ লিগ পিএসএলও সেখানে হয়। ২০১৭ সালের দ্বিতীয় আসরটিও সেখানে হবে। তবে পিসিবির প্রধান নজম শেঠি চাইছেন, পিএসএলের ফাইনালটি যেন অন্তত পাকিস্তানে করা যায়। লাহোরে ম্যাচটি আয়োজনের ইচ্ছা রয়েছে তাঁর।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *