PAK vs ENG: "আমি নই, পুরষ্কারের যোগ্য দাবিদার বেন স্টোকস..." ফাইনালে ম্যাচের সেরা হয়ে আবেগে ভাসলেন স্যাম কারান !! 1
MELBOURNE, AUSTRALIA - NOVEMBER 13: Sam Curran of England celebrates victory with the T20 World Cup trophy following the ICC Men's T20 World Cup Final match between Pakistan and England at the Melbourne Cricket Ground on November 13, 2022 in Melbourne, Australia. (Photo by Cameron Spencer/Getty Images)

PAK vs ENG: ২০২২ টি-২০ বিশ্বকাপের যবনিকা পতন হলো আজ। ইংল্যান্ড না পাকিস্তান? কার হাতে উঠতে চলেছে মহামূল্যবান শিরোপা? আগ্রহ নিয়ে তাকিয়ে ছিলো গোটা ক্রিকেটবিশ্ব। ২০০৯ সালের চ্যাম্পিয়ন বনাম ২০১০ সালের খেতাবজয়ী’র লড়াই দেখতে মুখিয়ে ছিলো মেলবোর্ন। গ্রুপ পর্বে প্রথম দুই ম্যাচে হেরে বাইরে বিশ্বকাপের বাইরে চলে গিয়েছিলো পাকিস্তান। সেখান থেকে অবিশ্বাস্য কামব্যাক করেছে তারা। নেদারল্যান্ডস দক্ষিণ আফ্রিকা’কে হারানোয় যে লাইফলাইন পেয়েছিলেন শাহীন শাহ আফ্রিদি’রা, তা কাজে লাগিয়ে শিরোপা জিততে নিজেদের সর্বস্ব দিলেন বাবর আজম’রা। এই মেলবোর্নেই ইংল্যান্ড’কে হারিয়ে একদিনের বিশ্বকাপ ঘরে তুলেছিলেন ইমরান খান, ওয়াসিম আক্রম’রা। বাবর আজম, মহম্মদ রিজওয়ান’রা চেয়েছিলেন সেই সুদিন ফেরাতে। কিন্তু পারলেন না তাঁরা। এক ধাপ দূরেই থেমে গেলো স্বপ্নের দৌড়। গ্রুপ পর্বের ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের কাছে হেরে চাপে ছিলো ইংল্যান্ড। সেখান থেকে দুরন্ত ক্রিকেট খেলে এম সি জি পৌঁছেছিলো তারা। সেমিফাইনালে ভারত’কে উড়িয়েছিলো ১০ উইকেটে। ২০১৯ সালে একদিনের বিশ্বকাপ জিতেছিলো ইংল্যান্ড, ২০২২ এর মেলবোর্নেও আরও একবার উড়লো ইংল্যান্ডের পতাকা। সেমিফাইনালের মত একপেশে হলো না ম্যাচ। শেষ অব্দি চাপের মুখে মাথা ঠাণ্ডা রেখে বিশ্বকাপ জিতে নিয়ে গেলেন বেন স্টোকস’রা। উইন্ডিজের পর দ্বিতীয় দল হিসেবে দ্বিতীয় বার টি-২০ বিশ্বকাপ জিতলো ইংল্যান্ড।

কারান অস্ত্রে ঘায়েল পাকিস্তান, হলেন ম্যাচের সেরা-

Sam Curran | image: Twitter
Sam Curran won the man of the match award in T20 world Cup final.

চলতি টি-২০ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড অধিনায়ক জস বাটলারের সেরা অস্ত্র হয়ে উঠেছিলেন তরুণ অলরাউন্ডার স্যাম কারান। তাঁর অনবদ্য ডেথ বোলিং-এ ভর করে আয়ারল্যান্ড ম্যাচে হারের পর’ও ঘুরে দাঁড়িয়েছিলো ইংল্যান্ড। ফাইনালেও নিজের দারুণ পারফর্ম্যান্স ধরে রাখলেন স্যাম। বাটলার জানতেন পাক ওপেনার মহম্মদ রিজওয়ান বাঁ-হাতি পেস খেলতে গেলে সমস্যায় পরেন। শুরুতেই তাই নিয়ে এসেছিলেন কারান’কে। অধিনায়কের ভরসার মর্যাদা দিয়ে দ্রুত পাক ওপেনার’কে ফেরান কারান। এরপর আরও দুই অতি গুরুত্বপূর্ণ উইকেত তুলে পাকিস্তান ব্যাটিং-এর মেরুদণ্ড ভাঙার কাজটি সম্পন্ন করেন তিনি। বিশ্বকাপ ফাইনালে তাঁর বোলিং হিসাব ৪ ওভারে ১২ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট। বেন স্টোকসের ব্যাটে ইংল্যান্ড ম্যাচ জিতলেও ম্যাচের সেরা হয়েছেন বছর ২৪ এর স্যাম। গোটা বিশ্বকাপে মোট ১৩ উইকেট নিয়ে টুর্নামেন্টের সেরাও হয়েছেন তিনি।

নিজেকে যোগ্য ভাবছেন না বিনয়ী কারান-

Ben Stokes | image: Gettyimages
MELBOURNE, AUSTRALIA – NOVEMBER 13: Ben Stokes of England celebrates after hitting the winning runs to win the ICC Men’s T20 World Cup Final match between Pakistan and England at the Melbourne Cricket Ground on November 13, 2022 in Melbourne, Australia. (Photo by Graham Denholm-ICC/ICC via Getty Images,)

বিশ্বকাপ জয়ের পর স্বভাবতই অত্যন্ত আনন্দিত কারান। ম্যাচ শেষে পুরষ্কার বিতরণী সভায় এসে অবশ্য নিজের থেকে যোগ্যতর বাছলেন বেন স্টোকস’কে। অগ্রজের প্রতি শ্রদ্ধা জানালেন অনুজ। বলেন “আমি মনে করি না আমি এই পুরষ্কারের যোগ্য। আমার মনে হয় বেন স্টোকসের পাওয়া উচিৎ এই পুরষ্কার। যেভাবে ও চাপের মুখে একটা অর্ধশতক করে আমাদের ম্যাচ জেতালো আমার কাছে ও’ই ম্যান অফ দ্য ম্যাচ।” বিশ্বকাপ জিতে অনুভূতি কেমন? কারান বলেন, “দুর্দান্ত অনুভূতি। আমরা অবশ্যই আজকের দিন’টা উপভোগ করবো। আমরা বিশ্বচ্যাম্পিয়ন, কি দারুণ একটা ব্যাপার। “ আরও একবার স্টোকস বন্দনায় মাতেন কারান, “ও (স্টোকস) অত্যন্ত স্পেশ্যাল। যখনই দলের দরকার তখনই ও ঠিক হাজির হয়ে যায়। সবাই ওর দিকে নানান সময় প্রশ্ন তোলে, কিন্তু দিনের শেষে তার কোনো মানে হয় না। আমি সত্যি বলছি, ও দুর্দান্ত।” “প্রথমবার টি-২০ বিশ্বকাপ খেললাম আর প্রথমবারেই চ্যাম্পিয়ন। আমি বাক্যহারা। একটা দুর্দান্ত টুর্নামেন্ট খেললাম আমরা। মাঠে যে দর্শকেরা এসেছিলেন তারাও দুর্দান্ত।” যোগ করেছেন তিনি।

নিজের খেলা নিয়ে কি ভাবছেন কারান?

Sam Curran | image: twitter
Sam Curran became the first bowler to win the Man of the Tournament award in the history of T20 World Cups.

নিজের পারফর্ম্যান্স সম্পর্কে কি ভাবছেন স্যাম? উত্তরে বলেন, ” এর আগে ডেথ ওভারে বিশেষ বল করি নি আমি। এখানে শুরু থেকেই ম্যাচের পরিস্থিতির সাথে নিজেকে মানিয়ে নিতে চেয়েছিলাম।” ফাইনালে সাফল্যের কারণ কি? স্যাম জানান,” আমি নিজের শক্তি অনুযায়ী বল করার চেষ্টা করে গেছি। এই মাঠে স্কোয়্যারের দিকে বাউন্ডারির আয়তন বিশাল। সেই জন্য আমরা চাইছিলাম প্রতিপক্ষ ব্যাটারদের স্কোয়ারের দিকে বেশী বড় শট খেলতে বাধ্য করতে। সেই স্ট্র্যাটেজিই আগাগোড়া মেনে বোলিং করেছি।” “উইকেট আজ বিশেষ ভালো ছিলো না। আমি ব্যাটারদের বিভ্রান্ত করার জন্য স্লো বলের দিকে মন দিয়েছিলাম” বিজয়ীর হাসি দিয়ে সাক্ষাৎকার শেষে বলেন স্যাম কারান।

Leave a comment

Your email address will not be published.