ভারতের মাটিতে নয়া নজিরের সামনে নিউজিল্যান্ড 1

বিশাখাপত্তনম, ২৮ অক্টোবর: শুরুর দিকটা খারাপ হলেও, ভারতের মাটিতে এখন সময়টা বেশ ভালই যাচ্ছে নিউজিল্যান্ডের। টেস্ট সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পর সবাই মনে করেছিল, ওয়ানডে সিরিজেও একই হাল হবে কিউয়িদের। তবে সব হিসেব ওলটপালট করে দিয়ে প্রথমবারের জন্য ভারতের মাটিতে দ্বিপক্ষীক ওয়ানডে সিরিজ জয়ের সামনে নিউজিল্যান্ড। ভারতের বিরুদ্ধে চলতি পাঁচ ম্যাচ সিরিজের চতুর্থ ম্যাচটি ১৯ রানে জিতে এমন একটা পরিস্থিতি তৈরি করেছে কেন উইলিয়ামসনের দল।

সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারত ৬ উইকেটে জয় পায়। দ্বিতীয় ম্যাচে ঘুরে দাঁড়িয়ে ৬ রানে জেতে নিউজিল্যান্ড। এরপর তৃতীয় ম্যাচটি ৭ উইকেটে জিতে ফের এগিয়ে যায় মহেন্দ্র সিং ধোনির দল। বুধবার রাঁচিতে চতুর্থ ম্যাচে জিতে ফের সিরিজে সমতা ফেরায় কিউয়ি ব্রিগেড। সিরিজের পঞ্চম ও শেষ ওয়ানডে শনিবার বিশাখাপত্তনমে। ওই ম্যাচ জিতলেই প্রথমবারের মতো ভারতের মাটিতে ওয়ানডে সিরিজ জিতবে নিউজিল্যান্ড। এর আগে তারা ভারতের মাটিতে দ্বিপক্ষিক ওয়ানডে সিরিজ চারবার খেলে প্রতিবারই হেরেছে। ১৯৮৮ সালে প্রথমবার ৪ ম্যাচের সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয় তারা। আর শেষবার ২০১০ সালে ৫ ম্যাচের সিরিজেও হোয়াইটওয়াশ হয় নিউজিল্যান্ড। আর ১৯৯৫ ও ১৯৯৯ সালে ৫ ম্যাচের সিরিজ ৩-২ ব্যবধানে জয় পায় ভারতীয় দল।

উল্লেখ্য, রাঁচিতে চতুর্থ ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাটে করে ৭ উইকেটে ২৬০ রান করে নিউজিল্যান্ড। জবাবে অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির শহরে ভারত ৮ বল থাকতে অলআউট হয় ২৪১ রানে। এর ফলে ১৯ রানে জিতে সিরিজে সমতা ফেরায় নিউজিল্যান্ড। ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৭ রান করেন আজিঙ্ক রাহানে। এছাড়া, বিরাট কোহলি করেন ৫১ বলে ৪৫ রান। আর নিজের মাঠে ধোনি ৩১ বলে ১১ রানে ফেরেন। শেষের দিকে ধবল কুলকার্নি ২৬ বলে ২৫ রানে অপরাজিত থাকলেও, সেটা জয়ের জন্য যথেষ্ট ছিল না। এখন শেষ ম্যাচে কী ফলাফল হয়, সেটার দিকেই তাকিয়ে রয়েছেন গোটা দেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা।

Leave a comment

Your email address will not be published.