কলকাতার সবচেয়ে বড়ো ম্যাচ উইনার হলেন ভিলেন, মুম্বাইয়ের বিরুদ্ধে লজ্জাজনক হার 1

আইপিএল ২০২১ এর পঞ্চ ম্যাচ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স আর কলকাতা নাইট রাইডার্সের মধ্যে খেলা হয়েছে। ম্যাচ চলাকালীন কলকাতা নাইট রাইডার্স টস জেতে আর মুম্বাইকে প্রথমে ব্যাট করার জন্য আমন্ত্রণ জানায়। প্রথমে ব্যাত করতে মাঠে নামা মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স সূর্যকুমার যাদবের হাফসেঞ্চুরির সৌজন্য নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৫২ রান করে। যার জবাবে মাঠে নামা কলকাতা নাইট রাইডার্স ২০ ওভারে ১৪২ রানই করতে পারে। ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ১০ রানে জয়ী হয়। অ্যান্দ্রে রাসের ভালো বোলিং করেন কিন্তু ব্যাটিংয়ে তিনি বিশেষ কিছুই করতে পারেননি।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স করল ১৫২ রান

কলকাতার সবচেয়ে বড়ো ম্যাচ উইনার হলেন ভিলেন, মুম্বাইয়ের বিরুদ্ধে লজ্জাজনক হার 2

টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামা মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের ব্যাটিংয়ের দিকে নজর দিলে রোহিত শর্মা ৪৩ রানের ইনিংস খেলেন। অন্যদিকে টপ অর্ডারে ব্যাট করতে আসা সূর্যকুমার যাদব ৫৬ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন। শেষ দিকে হার্দিক পাণ্ডিয়া আর ক্রুণাল পাণ্ডিয়া ১৫-১৫ রান করেন।

কলকাতার সবচেয়ে বড়ো ম্যাচ উইনার হলেন ভিলেন, মুম্বাইয়ের বিরুদ্ধে লজ্জাজনক হার 3

কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে বোলিং করতে এসে বরুণ চক্রবর্তী, সাকিব আল হাসান আর প্রসিদ্ধ কৃষ্ণা একটি করে উইকেট পান। অন্যদিকে অ্যান্দ্রে রাসেল ৫ উইকেট নেন। এছাড়াও প্যাট কমিন্স ২টি উইকেট নিয়েছেন।

কলকাতা ম্যাচ হারল ১০ রানে

কলকাতার সবচেয়ে বড়ো ম্যাচ উইনার হলেন ভিলেন, মুম্বাইয়ের বিরুদ্ধে লজ্জাজনক হার 4

কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে ওপেনিং ব্যাটসম্যান নীতীশ রাণা আর শুভমান গিল দলকে দুর্দান্ত শুরু এনে দেন। নীতীশ রাণা ৫৭ রান আর শুভমান গিল ৩৩ রান করে আউট হন। এই দুজনের আউট হওয়ার পর কলকাতার বাকি ব্যাটসম্যান বিশেহশ কিছুই রান করতে পারেননি আর যে কারণে তারা ১০ রানে এই ম্যাচ হেরে যায়।

কলকাতার সবচেয়ে বড়ো ম্যাচ উইনার হলেন ভিলেন, মুম্বাইয়ের বিরুদ্ধে লজ্জাজনক হার 5

মুম্বাইয়ের হয়ে এই ম্যাচে রাহুল চাহার চার ওভারে ২৭ রান দিয়ে চার উইকেট নেন। অন্যদিকে ট্রেন্ট বোল্ট ২ উইকেট নিয়েছেন।এছাড়াও ক্রুণাল আপ্নডিয়া ১৩ রান দিয়ে এক উইকেট নিয়েছেন।

সবচেয়ে বড়ো ম্যান উইনার হলেন খলনায়ক

কলকাতার সবচেয়ে বড়ো ম্যাচ উইনার হলেন ভিলেন, মুম্বাইয়ের বিরুদ্ধে লজ্জাজনক হার 6

কলকাতা নাইট রাইডার্সের হারের সবচেয়ে বড়ো কারণ এটা যে দলের মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানরা আর লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানরা ভালো ব্যাটিং করতে পারেননি। বিশেষ করে অ্যান্দ্রে রাসেল আর দীনেশ কার্তিক ম্যাচের শেষের ওভারগুলিতে স্লো ব্যাটিং করেন। রাসেল বোলিংয়ে কৃতিত্ব দেখান কিন্তু ব্যাটিংয়ে তিনি ১৫ বলে ৯ রান করেন যা দলের হারের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *