ভিডিও - ধোনিকে আমল না দিয়ে রিভিউ নষ্ট করলেন কোহলি, সে নিয়ে ধোনির মজা দেখার মতো! 1

এর আগেও ঠিক একই ঘটনা ঘটেছিল।তিন ম্যাচের একদিনের সিরিজের প্রথম ম্যাচে পুণেতে।সেবারেও ব্যাট হাতে ক্রিজে দাঁড়িয়েছিলেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান।সেবারে বল হাতে ছিলেন হার্দিক পান্ডিয়া আর এবারে জসপ্রীত বুমরাহ।সেবারে বল ব্যাটের কিনারায় লেগে গ্লাভসে জমা হতে ধোনি আম্পায়ারের কাছে আউটের আবেদন জানিয়েছিলেন।সেদিন কোহলি সহ বাকিরা ছিলেন নিষ্প্রভ।আর এদিন একইভাবে ইডেনে ব্যাট-প্যাডের মধ্যে দিয়ে যাওয়া বলটি মাহির গ্লাভসে জমা হওয়ায় দলনায়ক কোহলি আউটের জোর আবেদন জানান আম্পায়ারের কাছে।এদিন অবশ্য নিষ্প্রভ ছিলেন ধোনি।আম্পায়ার একইভাবে আউট না দেওয়ায় কোহলি সেদিনের মতো এদিনও রিভিউ চেয়ে বসেন থার্ড আম্পায়ারের কাছে।সেবারের রিভিউতে ধোনির সমর্থন থাকলেও, এদিন কিন্তু তিনি সেভাবে সমর্থন জানালেন না।অভিজ্ঞ অধিনায়কের কথা কানে না তুলে কোহলি থার্ড আম্পায়ারের কাছে রিভিউ চেয়ে বসেন।যেখানে আল্ট্রা এজ-এ দেখা যায় বল মর্গ্যানের ব্যাটে না লেগে হালকা প্যাডে স্পর্শ করে জমা হয় ধোনির গ্লাভসে।এভাবে ম্যাচে একটা রিভিউ নষ্ট করে ফেলায় জাতীয় ওয়ানডে দলের নবাগত নেতা কোহলির দিকে তাকিয়ে মৃদু হাসি হাসলেন বহু যুদ্ধের পোড় খাওয়া সৈনিক মাহি।এর মাধ্যমে ধোনি কিন্তু এদিন কোহলিকে আবারও বুঝিয়ে দিলেন, অভিজ্ঞতার কোনও বিকল্প হয় না।

ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার ইডেনে ভারত-ইংল্যান্ড তৃতীয় ওয়ানডে ম্যাচের প্রথম ইনিংসের ২৮ ওভার ২ বলে।যেখানে জসপ্রীত বুমরাহ বল করলেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যানকে।যে বলটা মর্গ্যানের ব্যাট এবং প্যাডের মধ্যিখান থেকে বেরিয়ে যায়।আর সেই বল জমা পড়ে উইকেটরক্ষক ধোনির গ্লাভসে।বলটি ব্যাট-প্যাডের মাঝখান থেকে বেরিয়ে আসার সময় একটি আওয়াজ তৈরি হয়।যেটা মাথায় রেখে একযোগে সবাই আম্পায়ার ধর্মসেনার কাছে আউটের জন্য আপিল করেন।একমাত্র ধোনি জোরদার আপিল করার রাস্তা থেকে সরে দাঁড়ান।কিন্তু নাছোড়বান্দা কোহলি থার্ড আম্পায়ারের কাছে রিভিউ চেয়ে বসেন।টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, বলটা ব্যাক অফ লেন্থ থেকে শট খেলার চেষ্টা করেছিলেন মর্গ্যান।কিন্তু খেলার জায়গা না থাকায় তিনি স্ট্রেট ব্যাটে খেলার চেষ্টা করেন।সেই ফাঁকে বল ব্যাট-প্যাডের মধ্যিখান থেকে প্যাডে স্পর্শ করে উইকেটরক্ষকের কাছে চলে যায়।এবং তার ফলে শেষমেশ একটা মূল্যবান রিভিউ নষ্ট করে ফেলেন ভারতের নয়া নেতা কোহলি।.

A video posted by Krish (@krishcricket1996) on

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *