এই ভারতীয় পেসারে মজেছেন কিংবদন্তি জিওফ্রে বয়কট, ভারতীয় ক্রিকেটের সম্পদ হিসেবে দিলেন আখ্যান 1

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের দুর্দান্ত সূচনা করেছে ভারতীয় ক্রিকেট দল। নটিংহামে প্রথম টেস্ট ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে ড্র হয়েছিল। প্রথম টেস্টেও ভারতের অবস্থান ছিল খুবই শক্তিশালী। কিন্তু লর্ডসের ঐতিহাসিক মাঠে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচে স্বাগতিকদের পরাজিত করে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল ভারত। লর্ডসে ভারতের জয়ের গল্প লিখেছেন বোলাররা। ফাস্ট বোলার মহম্মদ সিরাজের তীক্ষ্ণ বোলিংয়ে হেরে যায় ব্রিটিশরা। সিরাজ ম্যাচে ইংল্যান্ডের আট ব্যাটসম্যানকে প্যাভিলিয়নের পথ দেখান। তিনি তার বোলিং দিয়ে অনেক ক্রিকেট কিংবদন্তিকে তার ভক্ত বানিয়েছেন। প্রথমে ব্যাটসম্যান সুনীল গাভাস্কার এবং তারপর সাবেক ফাস্ট বোলার জাহির খান সিরাজের বোলিংয়ের প্রশংসা করেছিলেন, এখন ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক জিওফ্রে বয়কটের নামও এই তালিকায় স্থান পেয়েছে। সিরাজের প্রশংসা করার সময় তিনি সিরাজকে টিম ইন্ডিয়ার জন্য একটি সম্পদ বলেছিলেন।

Bollywood Actor Ranveer Singh Labels Mohammed Siraj A "Phenom" After Lord's Heroics | Cricket News

ইংল্যান্ডের ‘মিড-ডে’ পত্রিকার সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, “আমি সিরাজকে পছন্দ করি। তিনি শক্তিতে পূর্ণ। কেউ তাকে কিছুতেই থামাতে বলবে না। তাকে তার নিজস্ব উপায়ে বিকশিত হতে দিন। তিনি ভারতের সম্পদ। যদিও সিরাজ এখনো বেশ নতুন।” এই প্রাক্তন ইংলিশ ব্যাটসম্যান ভারতীয় বোলিং আক্রমণের প্রশংসা করে বলেন, “বর্তমানে ভারতের খুব ভালো আক্রমণ আছে। আমিও আমার দলে রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে পেতে চাই। আমার বোলিং আক্রমণে দুইজন উচ্চ-শ্রেণীর স্পিনার এবং তিনজন ফাস্ট বোলার থাকবে।” ম্যাচের চতুর্থ দিন শেষে ভারতীয় দলকে সমস্যায় পড়তে হবে বলে মনে হয়েছিল। জসপ্রিত বুমরাহ এবং মহম্মদ শামি ম্যাচের পঞ্চম ও শেষ দিনে দুর্দান্ত ব্যাটিং করে দলের ডুবন্ত রেখা জুড়ে দিয়েছিলেন। দুজনেই নবম উইকেটে ৮৯ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েন। এই পার্টনারশিপ সম্পর্কে বয়কট বলেন, “ভারতীয় দলকে যেভাবে একে অপরের চারপাশে ঘুরতে দেখা গেছে তা আমার ভালো লেগেছে। শামি এবং বুমরাহ যখন ব্যাটিং করছিলেন, তখন পুরো দল ব্যালকনি থেকে উল্লাস করছিল। তারাও তাকে স্বাগত জানাতে নেমে আসে। এই জাতীয় জিনিসগুলি একত্রিত করে।”

Miyamagic: Mohammed Siraj and the new hashtag in Indian fast bowling | Cricket - Hindustan Times

মহম্মদ সিরাজ লর্ডসে খেলা দ্বিতীয় টেস্টে তার বোলিং দিয়ে একটি ঝড় তোলেন। তিনি তার কেরিয়ার সেরা পারফরম্যান্সে ১২৬ রান দিয়ে ৮ উইকেট নিয়েছিলেন। সিরাজ ম্যাচে দুবার হ্যাটট্রিক করার কাছাকাছি ছিলেন। সিরাজ প্রথম ও দ্বিতীয় ইনিংসে দলের সবচেয়ে সফল বোলার হিসেবে প্রমাণিত হন। পাঁচ টেস্ট সিরিজের তৃতীয় ম্যাচ ২৫ আগস্ট থেকে হেডিংলেতে অনুষ্ঠিত হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *