চিপকে দুরন্ত জয় পেয়ে বোলারদের ও টস জেতাকে কৃতিত্ব দিলেন দ্বিশতরানকারী অধিনায়ক জো রুট 1

চতুর্থ ইনিংসে ভারতকে ১৯২ রানে গুটিয়ে দিয়ে চার ম্যাচের সিরিজে ১-০ এগিয়ে গেল ইংল্যান্ড। চিপকের এই অদ্ভুত পিচে ২২৭ রানের বিশাল জয় পেয়ে উচ্ছ্বসিত ইংল্যান্ড শিবির। আর এর অধিকাংশ কৃতিত্ব যায় অধিনায়ক জো রুটের কাঁধে। প্রথম ইনিংসে নিজের শততম টেস্টে দ্বিশতরান করার সুবাদে পেয়েছেন ম্যান অফ দ্য ম্যাচ পুরস্কার। আর এবার শক্তিশালী ভারতের বিরুদ্ধে এই দুরন্ত জয় পেয়ে দারুণ খুশি ইংরেজ অধিনায়ক।

পোস্ট ম্যাচ প্রেজেন্টেশনে এসে জো রুট বলেছেন, “টস জেতাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বটে কিন্তু সেই মুহুর্ত থেকে নিজেদের এগিয়ে নিয়ে যাওয়াটা এবং একটি দারুণ উইকেটে নিজেদের সর্বস্ব দিয়ে দেওয়াটা জরুরি ছিল। আমরা খুব ভালো কাজ করেছি। অপরিচিত পরিবেশে এসে ২০টি উইকেট নিয়ে বোলাররা দারুণ কাজ করেছে। প্রথম থেকেই জানা ছিল এটি একটি ভালো উইকেট হবে। প্রথম পার্টনারশিপ আমাদের এগিয়ে নিয়ে গিয়েছে। বিভিন্ন পরিস্থিতিতে বিভিন্ন মানুষ এসেছেন এবং নিজেদের অবদান রেখেছেন। আর এটাই হওয়া উচিত, যদি আমরা জেতার জন্য নামি তাহলে কাউকে না কাউকে এগিয়ে আসতে হবে। সৌভাগ্যবশত এই সপ্তাহে সেটি আমি ছিলাম।”

Image

এরপর জো রুট বলেছেন, “আমরা জানতাম ভারত আমাদের বিরুদ্ধে বেশ জোরালো একটি প্রতিক্রিয়া দেবে। আমাদের পরিকল্পনা ছিল ৪০০ রান তোলা। কিন্তু সেটিকে সেভাবে গুরুত্ব দিইনি। আমরা সময় কাটানোর উপর জোর দিয়েছিলাম। আমি জানতাম উইকেটটা খুব দ্রুত বদলাচ্ছে এবং জানতাম আবারও পরিবর্তন হবে। চেয়েছিলাম ভারতের জয়কে সমীকরণ থেকে সরিয়ে নিতে।”

শেষে ইংরেজ অধিনায়ক বলেছেন, “বোলিং বিভাগ হিসেবে আমরা রান রেট নিয়ে খুব মাথা ঘামাইনি। এখানে দাঁড়িয়ে থেকে, প্রথম টেস্টটি জিতে খুব স্বচ্ছন্দ লাগছে। যেভাবে উনি (জেমস অ্যান্ডারসন) আমাদের পক্ষে বিষয়টিকে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছিলেন, নিজেকে ক্রমাগত চ্যালেঞ্জ জানিয়ে গিয়েছেন এবং ৩৮ বছর বয়সেও নিজেকে আরও উন্নত করছেন। উনি একজন খুবই বড় মাপের একজন রোল মডেল আমাদের সকলের কাছে। ওনার স্কিল লেভেল অনেকটাই উপরে যা আর কেউই দেখেননি।”

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *