IND vs ENG: বিশ্বের দরবারে ভারতই এখন সবচেয়ে বড় 'চোকার', আইসিসির বড় ইভেন্টে বারবার ব্যর্থ !! 1

IND vs ENG: অ্যাডিলেডের ওভালে সেমিফাইনালের লড়াইয়ে ইংল্যান্ডের কাছে ১০ উইকেটে হেরে গেল ভারত। এই হারের ফলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেল ভারত। ফাইনাল খেলবে পাকিস্তান এবং ইংল্যান্ড। এদিন সেমির ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ছয় উইকেটে ১৬৮ রান তুলেছিল টিম ইন্ডিয়া। ৩৩ বলে ৬৩ রান করেন হার্দিক পান্ডিয়া। সেই রান তাড়া করতে নেমে চার ওভার বাকি থাকতেই জিতে গেল জস বাটলারের ইংল্যান্ড। এই হারের সঙ্গে সঙ্গে আরও একবার ‘চোকার্স’-এর তকমা এঁটে গেল ভারতীয় দলের গায়ে।

IND vs ENG: বিশ্বের দরবারে ভারতই এখন সবচেয়ে বড় 'চোকার', আইসিসির বড় ইভেন্টে বারবার ব্যর্থ !! 2

ভারতীয় দলকে বিশ্বের অন্যতম সফল দল হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তবে গত কয়েক বছরে আইসিসি টুর্নামেন্টের নকআউট ম্যাচে দলের পারফরমেন্স আশানুরূপ হয়নি। ভারতীয় দল ২০১৩ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পর থেকে কোন আইসিসি টুর্নামেন্ট জেতেনি। গত বছর ২০২১ সালের টি-২০ বিশ্বকাপে গ্রুপের বাঁধা টপকাতেই ব্যর্থ হয় তারা। তার আগে ২০১৯ সালের ৫০ ওভারের বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গিয়েছিল ভারত। পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স সত্ত্বেও, ভারত ফাইনালে উঠতে পারেনি। বৃহস্পতিবারও ইংল্যান্ডের কাছে হেরে সেই চিত্রই ধরা পড়ল। সর্বোপরি, কীভাবে এই চোকারদের দলে ট্যাগ করা হয়েছে?

বারবার হারতে হয়েছে ভারতীয় দলকে

IND vs ENG: বিশ্বের দরবারে ভারতই এখন সবচেয়ে বড় 'চোকার', আইসিসির বড় ইভেন্টে বারবার ব্যর্থ !! 3

ভারত ২০১৫ ওডিআই বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে এবং ২০১৬ টি-২০ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে হেরেছিল, তারপর ২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে পরাজয় হয়েছিল। ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে পরাজিত হয় তারা। আটটি আইসিসি টুর্নামেন্টের মধ্যে তিনটিতে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে টিম ইন্ডিয়াকে হারের মুখে পড়তে হয়েছিল। বিরাট কোহলির নেতৃত্বে তিনিও চারবার হারে তারা। একবার হারল রোহিতের অধিনায়কত্বে।

কেন এই হারের মালা পড়তে হল?

Team India

বড় ম্যাচে ভারতের সমস্যা হল সঠিক টিম কম্বিনেশন খুঁজে না পাওয়া। নকআউট ম্যাচগুলোতে প্রথম একাদশ নিয়ে বারবার পরীক্ষানিরীক্ষা চলেই যাচ্ছে। কখনও সেটা কাজে দিচ্ছে আবার কখনও সেটাই সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। এর ওপর পাওয়ারপ্লেতে ব্যাট চালিয়ে খেলতে পারছেন না টিম ইন্ডিয়ার তারকা ব্যাটসম্যানরা। এটাই ভারতীয় ব্যাটিংয়ের বড় দুর্বলতা হয়ে দেখা দিচ্ছে। যদি সেই সময়ের ৪ থেকে ৫ ওভার ভারতীয় দল আরও ভাল ব্যাট করতে পারে এবং আরও বেশি রান করতে পারে তবে এই চোকারের তকমাটা হয়তো হেটেই যাবে।

Leave a comment

Your email address will not be published.