"ওরা সবাই মুখ দেখতে গিয়েছে", সেমিফাইনালে উইকেট না পাওয়ায় ভারতের বোলারদের তুলোধোনা শোয়েব আখতারের !! 1

IND VS ENG: ‘ভালো খেলিয়াও পরাজিত’, গত কয়েক বছরে আইসিসি প্রতিযোগিতায় এই ধারা’ই দেখিয়ে আসছে ‘টিম ইন্ডিয়া।’ দক্ষিণ আফ্রিকা বা নিউজিল্যান্ড নয় অনেকের মতে দিনে দিনে আসল ‘চোকার’ হয়ে উঠেছে ভারত’ই। দেশের মাটিতে দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজ জয়ের পর অনেক আশা নিয়ে ভারতীয় দল অস্ট্রেলিয়া গিয়েছিলো টি-২০ বিশ্বকাপ খেলতে। রোহিত শর্মা’র নেতৃত্বে ভারত প্রায় ১৫ বছর পর আবার টি-২০ বিশ্বকাপ শিরোপা জিতবে এমনটা আশা করেছিলেন ১৪০ কোটি ভারতবাসী’ও। কিন্তু ফের একবার তীরে এসে তরী ডুবতেই দেখলেন দেশের ক্রিকেটপ্রেমী’রা। ২০২২ টি-২০ বিশ্বকাপেও সেমিফাইনালে এসে কপালে জুটলো হার। তাও হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচে সন্মানের হার নয়। ভারত ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে শেষ চারের মোকাবিলায় হারলো ১০ উইকেটে।আশা জাগিয়ে শুরু করেছিলো ‘টিম ইন্ডিয়া।’ গ্রুপ পর্বে পাকিস্তান, বাংলাদেশ, নেদারল্যান্ডস এবং জিম্বাবুয়ে’কে হারিয়ে সর্বোচ্চ ৮ পয়েন্ট নিয়ে কনফার্ম করেছিলো সেমিফাইনালের টিকিট। কিন্তু বিধি বাম। আরও একবার নক-আউট থেকে খালি হাতেই ফিরছেন রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি’রা। গতকাল অ্যাডিলেডে ভারতের হতশ্রী পারফরম্যান্সের পর নানান মহলে শুরু হয়ে গিয়েছে কাটাছেঁড়া, চুলচেরা বিশ্লেষণ। সাধারণ ক্রিকেট সমর্থক থেকে প্রাকত্ন ক্রিকেটার কেউ বাদ নেই নিজেদের মত করে ভারতের হার’কে ব্যাখ্যা করতে। সেই তালিকায় যুক্ত হলেন শোয়েব আখতার(Shoaib Akhtar)। ভারতের বোলিং’কে তীব্র আক্রমণ করলেন পাক পেস কিংবদন্তী।

সেমিফাইনালে লজ্জার হার ভারতের-

England vs India | image: Gettyimages
ADELAIDE, AUSTRALIA – NOVEMBER 10: Jos Buttler is congratulated by Virat Kohli after England won the ICC Men’s T20 World Cup Semi Final match between India and England by ten wickets at Adelaide Oval on November 10, 2022 in Adelaide, Australia. (Photo by Philip Brown/Popperfoto/Popperfoto via Getty Images)

অ্যাডিলেডের মাঠে এর আগে বাংলাদেশ’কে হারিয়েছিলো ভারত। মাঠের পরিবেশের সাথে ছিলো সম্যক ধারণা। আগে ব্যাট করলে জিতবে দল, এই মাঠের ইতিহাস বলছে সেই কথা। যে দল টসে জেতে সেই দল অ্যাডিলেডে ম্যাচ জেতে না। টসে জিতে ইংল্যান্ড অধিনায়ক যখন ভারত’কে ব্যাট করতে পাঠালেন তখন যাবতীয় পারমুটেশন-কম্বিনেশন ভারতের পক্ষেই দেখাচ্ছিলো। ছবিটা পাল্টালো খেলা শুরু হতেই। ওপেনিং ব্যর্থতা ভারতের নিত্যদিনের সঙ্গী। আজ দ্রুত ফিরলেন কে এল রাহুল। মার্ক উডহীন ইংরেজ বোলিং লাইন আপ দুর্দান্ত বল করলো অ্যাডিলেডে। রোহিত শর্মা ফর্ম সমস্যায় ভুগে ২৮ বলে ২৭ করেন। সূর্যকুমার ১০ বলে ১৪ করেই ফিরে যান ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে। ভারত’কে টানলেন কোহলি আর পান্ডিয়া। বিরাট চলতি বিশ্বকাপে চতুর্থ অর্ধশতক করলেন। ৪০ বলে ৫০ করে আউট হন। হার্দিকের ৩৩ বলে ৬৩ রানের ধুমধাড়াক্কা ইনিংস ভারত’কে সন্মানজনক ১৬৮ রানে পৌঁছে দেয়। এর পরেও লড়াই হবে আশা করা হচ্ছিলো। কিন্তু ভারত’কে লজ্জার মুখে ফেলে দিলেন বোলার’রা। ভুবনেশ্বর, শামি, অর্শদীপ, অশ্বিন, অক্ষর, হার্দিক ব্যর্থ হলেন সবাই। ইংল্যাণদের ওপেনিং জুটির বিক্রমের সামনে শুরু থেকেই মাথা নুইয়ে দিলেন তাঁরা। ৭.৫০ ইকোনমিতে রান দিলেন অর্শদীপ আর অক্ষর। বাকিরা ১০ এর তলায় নেই কেউই। ১ টি উইকেট তুলতেও ব্যর্থ হয় ভারত। অ্যালেক্স হেলসের অপরাজিত ৮৬ রান আর অধিনায়ক জস বাটলারে অপরাজিত ৮০ রানের সুবাদে ১৬ ওভারে লক্ষ্যমাত্র পেরিয়ে ভারত’কে ১০ উইকেটে লজ্জার হার উপহার দিলো ইংরেজ’রা। অ্যাডিলেডে এই বিশ্রী বোলিং-এর পর প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে ভারতের বোলিং দক্ষতা নিয়ে। এই প্রশ্ন তুলেছেন সীমান্ত পারের তারকা শোয়েব আখতার’ও(Shoaib Akhtar)।

বোলারদের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন আখতার-

Shoaib Akhtar | image: Twitter
Ex-Pakistani pacer Shoaib Akhtar slammed Indian bowlers after India’s defeat against England.

সেমিফাইনালে ভারতের হারের পর নিজের ট্যুইটারে একটি ভিডিও আপলোড করেন আখতার(Shoaib Akhtar)। ভারতের হারের কারণ বিশ্লেষণ করতে গিয়ে সবচেয়ে বেশী জোর তিনি দিলেন বোলিং বুর্থতা’কে। ভিডিও’র শুরুতে আখতার বলেন, “জঘন্যভাবে হারলো ভারত। যা খেলেছে আজ এটাই ওদের প্রাপ্য ছিলো। ইংল্যান্ড পুরো দুরমুশ করে দিয়েছে ভারত’কে।” তাঁর নিজের দেশ পাকিস্তান ফাইনালে উঠেছে। সেই কথা মনে করিয়ে দিয়ে শোয়েবের বক্তব্য, “আমরা তো ভেবেছিলাম ফাইনালে ভারতের সাথে দেখা হবে আমাদের, কি আর করা যাবে!” এরপরে ভারতের বোলারদের দিকে আক্রমণ শানান শোয়েব। বলেন, “একটা উইকে্ট তুলতে পারলো না। বিশ্রী বল করেছে ভারত। ভারতের বোলার’রা সবাই একমাত্রিক তা আজ সবার সামনে প্রমাণিত হয়ে গিয়েছে। পরিবেশ সুবিধা করে দিলে তবে ভালো বল করতে পারে। ওদের কাছে এক্সপ্রেস পেস বোলার বলতে যা বোঝায় তা নেই। উইকেট যখন আসছে না অন্তত লড়াই তও করা দরকার ছিলো। বাউন্সার দিত কয়েকটা। দরকার পড়লে স্লেজিং করে দেখত। কিছু করতে দেখা গেলো না ভারতীয়দের। ভারতের জন্য আজ খুব খারাপ একটা দিন।” এছাড়াও ভারতের দল নির্বাচন, মানসিকতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। একে তো হারের যন্ত্রণা তার ওপর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দলের প্রাক্তনীর থেকে সমালোচনা এখন ভারতের কাটা ঘায়ে নুনের ছিটের মতই জ্বলছে।দেখে নিন আখতারের সম্পূর্ণ ভিডিও’টি-

Leave a comment

Your email address will not be published.