IND vs BAN: ‘মেহদী মিরাকল’-এ জয় হাতছাড়া ভারতের ! প্রথম ম্যাচে হেরে অধিনায়ক রোহিত শর্মা দলের ব্যাটিং ব্যর্থতা’র দিকেই আঙুল তুললেন !! 1

IND vs BAN: ভারত বনাম বাংলাদেশ ম্যাচ হবে আর মাঠ এবং মাঠের বাইরের অগণিত সমর্থকের স্নায়ু ধরে রাখার ক্ষমতার চূড়ান্ত পরীক্ষা হবে না? এ এখন দেখাই যায় না প্রায়। উপমহাদেশীয় ক্রিকেটের দুই বড় দলের প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আরও একবার উৎকন্ঠার প্রহর গুনতে হলো দুই দেশের সমর্থকদের। টি-২০ বিশ্বকাপ হোক বা নিদাহাস ট্রফি, এর আগে বারবার কাছাকাছি গিয়েও ভারতের কাছে হারতে হত বাংলাদেশ’কে। ঘরের মাঠে এবার চিত্রনাট্য উলটে দিলেন বাংলাদেশের ‘টাইগার’রা। ঢাকার শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে শেষ উইকেটে ৫১ রানের দুর্দান্ত জুটি গড়ে ভারত’কে পরাজয় উপহার দিলেন মেহদী হাসান মিরাজ(Mehidy Hasan Miraj) এবং মুস্তাফিজুর রহমান(Mustafijur Rahman)। মেহদী হাসানের ৩৯ বলে ৩৮ রানের ইনিংস’টি হয়ত জায়গা পাবে বাংলাদেশ ক্রিকেটের ইতিহাসের পাতায়। প্রায় জিতে যাওয়া ম্যাচ হেরে মুষড়ে পড়েছ ‘টিম ইন্ডিয়া।’সকালের ব্যাটিং ব্যর্থতা প্রায় পুষিয়ে দিয়েছিলেন বোলার’রা। কিন্তু মেহদী’র মাটি কামড়ে পড়ে থাকার মানসিকতার কোনও জবাব ছিলো না ভারতের কাছে। ম্যাচ শেষে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা’র(Rohit Sharma) মুখেও শোনা গেলো একই কথা। মেহদী(Mehidy Hasan Miraj) এবং বাংলাদেশের লড়াইকে কুর্ণিশ জানালেও অধিনায়কের সাক্ষাৎকারের অনেকটা জুড়ে রইলো নিজেদের দলের ব্যাটিং ব্যর্থতা নিয়ে আলোচনা। একদিনের বিশ্বকাপের আগে ক্রমাগত ব্যাটিং সমস্যা চিন্তায় রেখেছে অধিনায়ক’কে।

পর্যাপ্ত রান তুলতে পারে নি ব্যাটার’রা, বলছেন অধিনায়ক-

Rohit sharma | image: twitter
Indian captain Rohit sharma blamed the batters for the loss against Bangladesh

তীরে এসে তরী ডুবেছে ভারতের। খুশি নন অধিনায়ক। ম্যাচের শেষে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে অকপটে জানালেন সেই কথা। “খুবই হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে। আমরা বেশ ভালো খেলেই প্রতিযোগিতায় ফিরেছিলাম।” তবে দলের ব্যাটিং নিয়ে আশাহত রোহিত(Rohit Sharma) । বলেছেন, “আমরা একদমই ভালো ব্যাট করতে পারি নি। ১৮৬ কখনোই যথেষ্ঠ ছিলো না। কিন্তু বোলিং ভালো করেছে দল।” বাংলাদেশের লড়াইয়ের মানসিকতা’কে কুর্ণিশ জানিয়েছেন ভারত অধিনায়ক। জানিয়েছেন, “স্নায়ুর চাপ শেষ অব্দি ধরে রাখতে পেড়েছে বাংলাদেশ।” তবে ম্যাচ হারলেও দলের বোলিং নিয়ে খুশি রোহিত(Rohit Sharma) । “যদি দেখেন আমরা প্রথম বল থেকে যেভাবে বোলিং করেছি…অবশ্যই শেষের দিকে ছন্দ ধরে রাখতে পারি নি, কিন্তু অন্তত ৪০ ওভার অব্দি আমাদের বোলার’রা দুরন্ত বোলিং করেছে। উইকেট নিয়েছে। সত্যি বলতে স্কোরবোর্দে যথেষ্ঠ রান না থাকা’ই বিপক্ষে গেলো।” আরও একবার ব্যাটসম্যানদের দুষেছেন তিনি। “আরও ২৫ থেকে ৩০ রান দরকার ছিলো। ২৫ ওভারের পর আমরা ২৪০ থেকে ২৫০ এর লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছিলাম। কিন্তু পরপর উইকেট পরে গিয়েই সমস্যা হয়ে গেলো।” হার থেকে আরও একবার শিক্ষা নেওয়ার বার্তা ‘হিট-ম্যানের’ মুখে। বললেন, “এই জাতীয় উইকেটে খেলার অভিজ্ঞতা আমাদের রয়েছে। অজুহাত দিচ্ছি না। কিন্তু এই ধরনের উইকেটে ব্যাট করা শিখতেই হবে ছেলেদের।” বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশে এসেছে ভারত। যথেষ্ট সময় পেয়েছে অনুশীলনের? আগামী ম্যাচে কি আরও তৈরি হয়ে নামবে ছেলেরা? “আমি সত্যিই জানি না মাত্র দুটো প্র্যাক্টিস সেশনে কি করে নতুন কিছু শিখবে ছেলে’রা।” বলেছেন রোহিত(Rohit Sharma) । এর আগেও ম্যাচ হেরে চাপ সামলানোর ক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন অধিনায়ক। আজও একই কথা শোনা গেলো তাঁর থেকে। “ চাপ সামলানোর ক্ষমতা’টা জিনের মধ্যে থাকে। ভিতর থেকে আসে। আমার বিশ্বাস, আমাদের ছেলেরা শিখে নেবে সেটা।” ম্যাচ হেরে আগামীর অপেক্ষা করা ছাড়া উপায় নেই ভারতের কাছে। সেইকথা জানিয়েছেন ক্যাপ্টেন’ও। বলেছেন, “আগামী ম্যাচের জন্য মুখিয়ে আছি। আমরা জানি এই পরিস্থিতি’তে কি করতে হয়। আশা করি আগামীতে ফলাগল আলাদা হবে।”

Leave a comment

Your email address will not be published.