আইপিএল ২০১৭: মুম্বইয়ের কাছে কোয়ালিফায়ারে হেরে সমর্থকদের জন্য আবেগে ভাসলেন গম্ভীর! 1

বেঙ্গালুরু: শুক্রবার অসহায় আত্মসমর্পণ করেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। সহজ জয় পেয়েছে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। ৩৩ বল বাকি থাকতে ৬ উইকেটে ম্যাচ জিতে ফাইনালে পুণের মুখোমুখি রোহিত শর্মার দল। যদিও চিন্নাস্বামী কলকাতার পয়া মাঠ। এলিমিনেশন পর্বে জিতে যে ভাবে দ্বিতীয় কোয়ালিফাইংয়ে জায়গা করে নিয়েছিল কলকাতা তা ভাগ্য সহায় না হলে সম্ভব ছিল না। বেঙ্গালুরুর বৃষ্টিতে প্রায় ভেস্তে যেতে বসা ম্যাচের মীমাংসা হয়েছিল ৫-৫ ওভারে। যদি বৃষ্টি না থামত তা হলে ছিটকে যেতে হত কলকাতাকেই। সেখান থেকে হায়দরাবাদকে হারিয়ে কোয়ালিফাইয়িং পর্বে জায়গা করে নেওয়াটা সহজ ছিল না। মধ্য রাতে খেলা নিয়েও নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। কিন্তু মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে পয়া মাঠেও শেষরক্ষা হল না।

এ দিন টসে জিতে কলকাতাকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠায় মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। শুরু থেকেই ধাক্কা খেতে শুরু করে কলকাতার ব্যাটিং। মুম্বই বোলিংয়ের কাছে রীতিমতো ধরাশায়ী কলকাতা। ওপেন করতে এসে মাত্র ৪ রান করে প্যাভেলিয়নে ফিরে যান ক্রিস লিন। আর এক ওপেনার সুনীল নারিনও ভরসা দিতে পারেনি কলকাতা ব্যাটিংকে। ১০ বলে ১০ রান করে প্যাভেলিয়নে ফিরে যান তিনি। তিন নম্বরে নেমে অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর ফেরেন ১২ রানে। রবিন উথাপ্পাও ১ রানে ফেরেন। এর পর কেকেআর-এর হাল ধরতে একটু লড়তে দেখা যায় ইশাঙ্ক জাগ্গিকে। তাকে যোগ্য সঙ্গত সূর্যকুমার যাদবের। গ্র্যান্ডহোম কোনও রান না করেই ফেরেন প্যাভেলিয়নে। এর পর পীযূষ চাওলার সংযোজন ২, কুল্টার নাইল ৬ রান করে আউট হন। জবাবে ব্যাট করতে এসে ১৪.৩ ওভারেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় মুম্বই ইন্ডিয়ান্স।

তবে এ দিনের এই হারের পর কেকেআর সমর্থকদের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছেন গৌতম গম্ভীর। কলকাতা অধিনায়ক লেখেন, ‘কেকেআর সমর্থকদের অসংখ্য ধন্যবাদ। তাদের ছাড়া এই যাত্রাটা মোটেও মজাদার হত না। নিজেদের সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করেছি। তবে সেরাটাও এই ম্যাচে মনে হয় যথেষ্ট ছিল না।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *