ডিউক বলে খেলা হবে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ম্যাচ, জেনে নিন কি এই ডিউক বল 1

ভারত এবং নিউজিল্যান্ডের মধ্যে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ম্যাচটি ডিউক ব্র্যান্ড বলে খেলা হবে। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল লর্ডসের মাঠে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল তবে এটি এখন সাউদাম্পটনে অনুষ্ঠিত হবে। এদিন আইসিসিও আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করে দিয়েছে। ফাইনাল সাউদাম্পটনের এজিয়াস বোলের মাঠে খেলা হবে। করোনা ভাইরাস জনিত নিষেধাজ্ঞার পরিপ্রেক্ষিতে আইসিসিকে লর্ডসের পরিবর্তে এজিয়াস বল স্টেডিয়ামে ফাইনাল করার কথা ভাবতে হয়েছে।

ICC WTC final venue announced | Not Lord's! Sourav Ganguly confirms Virat Kohli India to play World Test Championship final against Kane Williamson New Zealand in Southampton | Cricket News

 

চার ম্যাচের সিরিজে ইংল্যান্ডকে ৩-১ ব্যবধানে হারিয়ে ভারত বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে। নিউজিল্যান্ড আগেই যোগ্যতা অর্জন করেছিল। ফাইনাল ম্যাচটি দুটি দলের মধ্যে ১৮ থেকে ২২ জুন পর্যন্ত চলবে। এই ম্যাচের জন্য ২৩ জুন রিজার্ভ ডে রাখা হয়েছে। ডিউক বল দীর্ঘদিন ধরে ক্রিকেট বিশ্বে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এটি ছাড়াও এসজি এবং কোকাবুরা বল ব্যবহার করা হয়। ডিউক বল তৈরির সংস্থা হল বিশ্বের সবচেয়ে পুরনো বল তৈরির সংস্থা। বলা হয়ে থাকে যে এই সংস্থা প্রায় ২২৫ বছর ধরে বল তৈরি করে আসছে।

Duke ball to be played in Indo-New Zealand final match of World Test Championship, know what is Duke ball

ডিউক বল উত্পাদনকারী সংস্থার মালিক হলেন দিলীপ জাজোদিয়া নামক এক ভারতীয়। তিনি ১৯৬২ সালে ইংল্যান্ডে এসেছিলেন। ইংল্যান্ডে দিলীপের সংস্থা মোরান্ট ক্রিকেটের জন্য পণ্য তৈরি শুরু করে। তিনি ১৯৮৭ সালে ডিউক সংস্থা কিনেছিলেন। ক্রিকেট নেক্সট ডটকমকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে জাজোদিয়া জানিয়েছিলেন যে, এই বলটি স্কটিশ গরুর চামড়া থেকে তৈরি। এর জন্য স্কটল্যান্ডের অ্যাঙ্গাস গাভির চামড়া ব্যবহার করা হয়। জাজোদিয়ার মতে, তাঁর সংস্থা গরুর পিছনে কেবল চামড়া কিনে কারণ এটি সবচেয়ে শক্তিশালী। ডিউক বল হল ফোর কোয়ার্টার বল। এর স্পষ্ট অর্থ হল এই বলটি চার টুকরো চামড়া যুক্ত করে তৈরি করা হয়েছে।

 

Leave a comment

Your email address will not be published.