কোচ মিকি আর্থার'কে পাশেই পাচ্ছেন মুহাম্মদ আমের 1

করাচি, ২৮ অক্টোবর: ২০১০ সালে ইংল্যান্ড সফরে স্পট ফিক্সিংয়ের দায়ে পাঁচ বছরের জন্য নির্বাসিত হয়েছিলেন পাকিস্তানের পেস তারকা মুহাম্মদ আমের। দীর্ঘ ছয় বছর পর সেই ইংল্যান্ডের মাটিতে ফের বল হাতে মাঠে নামবেন এই প্রতিভাবান বাঁহাতি পেসার। নির্বাসন কাটিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার পর তাই আগামী মাসে তাঁর ‘অ্যাসিড টেস্ট’। তবে তার আগে দলের নতুন কোচ মিকি আর্থারের দেওয়া প্রতিশ্রুতি আমেরকে চাঙ্গা করবেই। আর্থার জানিয়েছেন, পুরোনো কথা ভুলে দলের সেরা পেসারকে যতটা সম্ভব সাহায্য করতে তিনি প্রস্তুত। চারটি টেস্ট, পাঁচটি ওয়ানডে ও একটি টি-২০ খেলতে জুলাইয়ে ইংল্যান্ড সফরে যাবে পাকিস্তান। ১৪ জুলাই থেকে লর্ডসে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। সেই লর্ডস, যেখানে সালমান বাট ও মুহাম্মদ আসিফের সঙ্গে স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে ক্রিকেটের জন্য একটি কলঙ্কজনক অধ্যায়ের জন্ম দিয়েছিলেন তিনি।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে ক্রিকেটে ফেরার পর সবার ভালবাসা আর সমর্থন পেয়েছেন আমের। সেই সব খারাপ দিন পেছনে ফেলে ফের তিনি সেরার সিংহাসনে বসতে তৈরি। কোচ মিকি আর্থারও ঠিক তেমনটাই দেখতে চাইছেন। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) আর্থারের কোচিংয়ে করাচি কিংস দলের হয়ে খেলেছিলেন আমির। সেই অভিজ্ঞতার ওপর ভর করে পাকিস্তানের নতুন কোচ মনে করছেন, ‘পিএসএলে আমিরকে খুব কাছ থেকে দেখেছিলাম। সে দুর্দান্ত পেশাদার ক্রিকেটার। প্রচুর প্রতিভা রয়েছে ওর মধ্যে।’

নির্বাসন কাটিয়ে আমেরের মাঠে ফেরার রাস্তাটা অবশ্য খুব একটা সহজ ছিল না। বরং অনেক সমালোচনা সহ্য করতে হয়েছিল তাঁকে। তবে আর্থার সে সব নিয়ে মাথা ঘামাতে রাজি নন। পাকিস্তানের কোচ হওয়ার পর প্রথম সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি জানিয়েছেন, ‘ইংল্যান্ড সফরের জন্য পাকিস্তান ক্রিকেট দলে মুহাম্মদ আমের সুযোগ পেয়েছে। আমের তার শাস্তি ভোগ করেছে আর এটাই শেষ কথা। প্রধান কোচ হিসেবে এখন আমার দায়িত্ব তার কাছ থেকে সেরাটা বের করে আনা। এর বেশি আর কিছু ভাবতে চাইছি না।’

101307982_mickey_arthur-l

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *