বিশেষ প্রতিবেদন: টিকিট চেকার থেকে বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম সেরা অধিনায়ক। এতটাই নাটকীয় মহেন্দ্র সিং ধোনির জীবন যে ইতিমধ্যে তাঁকে নিয়ে তৈরি হয়েছে চলচ্চিত্র। সেই চলচ্চিত্রে আরেকটা অধ্যায়ের সমাপ্তি ঘটল। বুধবার ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড জানিয়ে দেয়, ওয়ানডে ও টি-২০’র অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ভারতের সর্বকালের সেরা ও সফল অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। এখনও ধোনির উত্তরসূরীর নাম ঘোষণা করা হয়নি। তবে তার কাছ থেকেই টেস্ট অধিনায়কত্ব পাওয়া বিরাট কোহলি এই পদের জন্য মোটামুটি নিশ্চিত।

ধোনির উত্তরসূরী বা পদত্যাগের কারণ না জানালেও ভারতীয় প্রধান নির্বাচক এমএসকে প্রসাদ এই তথ্য নিশ্চিত করে বলেছেন, তারা ধোনির এই সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাতে চান। অধিনায়কের পদ ছেড়ে দিলেও ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত তাঁকে উইকেটরক্ষক ও ব্যাটসম্যান হিসেবে পাওয়া যাবে বলে ধোনি জানিয়েছেন বোর্ডকে।

২০০৭ সালে বিশ্বকাপ থেকে তাড়াতাড়ি ছিটকে যাওয়ার পর নেতৃত্ব ছাড়েন রাহুল দ্রাবিড়। তারপর অধিনায়কত্বের দায়িত্ব পান ধোনি। ওয়ানডেতে ১৯৯ ম্যাচে দেশকে নেতৃত্ব দেন ধোনি। ১১০টি ম্যাচে জেতে তার দল, হারে ৭৪টিতে। টাই হয় ৪ ম্যাচ, পরিত্যক্ত ১১টি। এরই পাশাপাশি ৭২টি টি-২০ ম্যাচে দেশকে নেতৃত্ব দেন ধোনি। এর মধ্যে ৪১টিতে জিতে ভারত। ২৮টিতে হারে তাঁর দল। একটি ম্যাচ টাই ও দুটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়। তাঁর নেতৃত্বে ২০০৭ সালে টি-২০ বিশ্বকাপ, ২০১১ সালে একদিনের আন্তর্জাতিক বিশ্বকাপ ও ২০১৩ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জেতে টিম ইন্ডিয়া।

মহেন্দ্র সিং ধোনির অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর পর অধিনায়ক হিসেবে যাবতীয় সাফল্যের জন্য তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ‘মাস্টার ব্লাস্টার’ শচীন তেন্ডুলকর।

ধোনির এমন সিদ্ধান্তের পর অন্য প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটারদের মন্তব্য:

 কিরণ মোরে: ধোনি জানত কোন সময় অধিনায়কত্ব পদটা ছাড়তে হবে। টেস্টে ক্রিকেটের মতো এটাও ও ঠিক সময়ই করেছে। অধিনায়কত্ব ছাড়াটা মোটেও সহজ কাজ নয়। ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য ও দারুণ একটা নিদর্শন রেখে গেল। সেরা সময়ের মধ্যে থাকতে থাকতেই সরে দাঁড়াতে হয়।

দীলিপ বেঙ্গসরকার: নির্বাচক হিসেবে ওর মধ্যে ক্ষমতাটা দেখেছিলাম। ২০০৭ সালে কে ভেবেছিল ধোনি একদিন দেশের সেরা অধিনায়ক হয়ে উঠবে। অধিনায়ক হিসেবে ও অসাধারণ। ক্রিকেটার ও দেশের প্রতিনিধি হিসেবে ওর কোন তুলনা হয় না।

চেতন চৌহান: ধোনি বুঝে গিয়েছিল ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত অধিনায়ক পদ ধরে রাখাটা তাঁর পক্ষে সম্ভব ছিল না। তাই ও বিরাট কোহলির জন্য জায়গা করে দিল। এটা একটা বড় আত্মবলিদান।

গুন্ডাপ্পা বিশ্বনাথ: ধোনি অবশ্যই লক্ষ্য করেছে অধিনায়ক হিসেবে বিরাট কোহলি ভালোই করছে। তাই ওর নেতৃত্বে খেলতে কোন অসুবিধা নেই। নিউজিল্যান্ড সিরিজে ব্যাট হাতে ভাল ফর্মেই ছিল ধোনি। ও এখনও দলের সম্পদ।

  • SHARE

    আরও পড়ুন

    ধোনির ভক্তদের জন্য সম্ভবত খারাপ খবর, ধোনির অবসর আশংকা নিয়ে উত্তপ্ত টুইটার

    গতকাল স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ হারার পর ড্রেসিং রুমে ফেরার সময় প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র...

    স্মৃতি মন্ধনার জন্মদিনে শুভকামনা জানালেন শচীন তেন্ডুলকর ও আনজুম চোপড়া

    ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের ওপেনার স্মৃতি মন্ধনার জন্মদিনে তাঁকে শুভকামনা জানিয়ে টুইট বার্তা পাঠিয়েছেন ভারতের কিংবদন্তী ক্রিকেট...

    BREAKING NEWS: ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম তিনটি টেস্ট ম্যাচের জন্য ভারতীয় টিম ঘোষণা ,এই ক্রিকেটার পেলেন না জায়গা

    ভারত আর ইংল্যান্ডের মধ্যে ওয়ানডে সিরিজের শেষ এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ গতকাল হেডিংলের লীডস ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত...

    হার্দিক পাণ্ডিয়ার চুল অনন্য, চর্চার জন্য উইকিপিডিয়ায় নতুন ভাবে ভূষিত হলেন তিনি!

    এ ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই যে, হার্দিক পাণ্ডিয়া বর্তমান ক্রিকেট বিশ্বে ভারতের জন্য অন্যতম সেরা অলরাউন্ডারদের মধ্যে...

    ক্রিকেটারদের কিছু মজার নাম যা দেখে আপনি অট্টহাসিতে ফেটে পড়বেন

    একটি ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে অনন্য এক ধরনের সম্পর্ক থাকে কারণ তারা একে অপরের সাথে বেশিরভাগ সময়...