বড় খবর!!! টি২০ বিশ্বকাপের হতাশায় এবার এই বড় সিদ্ধান্ত নিতে চলেছেন বিরাট কোহলি 1

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক বিরাট কোহলি ঘোষণা করেছিলেন যে টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হিসেবে এটাই হবে তাঁর শেষ টুর্নামেন্ট। বিরাট তখন বলেছিলেন যে তিনি টেস্ট এবং ওয়ানডে দলের অধিনায়কত্ব চালিয়ে যাবেন, কিন্তু এখন মনে হচ্ছে তিনি ওডিআই অধিনায়কত্ব থেকেও সরে যেতে পারেন। রোহিত শর্মাকে টিম ইন্ডিয়ার নতুন সীমিত ওভারের অধিনায়ক করা নিয়ে নিরন্তর আলোচনা চলছে। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে সৌরভ গাঙ্গুলি এবং সেক্রেটারি জয় শাহের সাথে জাতীয় নির্বাচকদের একটি বৈঠকে বসবে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)। এই বৈঠকে বিরাটের ওয়ানডে অধিনায়কত্বের ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনার বিষয়টিও সামনে আসছে।

Virat Kohli Says India "Were Not Brave Enough" In Loss To New Zealand |  Cricket News

পিটিআই ৩১ অক্টোবর রিপোর্ট করেছিল যে আইসিসি (আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল) টুর্নামেন্ট জিততে আরেকটি ব্যর্থতার পরে সীমিত ওভারে অধিনায়ক হিসাবে বিরাটের ভবিষ্যত প্রশ্নবিদ্ধ হবে। বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি এবং সেক্রেটারি জয় শাহ দলের নেতৃত্বের বিষয়ে আলোচনা করতে কয়েক দিনের মধ্যে জাতীয় নির্বাচকদের সাথে বৈঠক করবেন। অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া আসন্ন টি২০ বিশ্বকাপের প্রায় ১১ মাস বাকি আছে এবং এই বছর (২০২১) ভারতীয় দলকে কোনো ওডিআই সিরিজে অংশগ্রহণ করতে হবে না।

Virat Kohli Reveals One Of His Aims In Life, It Has Nothing To Do With  Cricket | Cricket News

নিউজিল্যান্ড টি-টোয়েন্টি সিরিজে রোহিতকে বিশ্রাম দেওয়ার বিষয়ে বিসিসিআইয়ের একজন আধিকারিককে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেছিলেন, “প্রথমত, নিউজিল্যান্ড সিরিজের জন্য দল নির্ধারণ করতে হবে। রোহিত এখনও বলেননি যে তিনি নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিকে দলকে নেতৃত্ব দিতে চান না। এবং কেন তিনি নেতৃত্ব দিতে চান না? স্থায়ী টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হিসেবে এটাই হতে পারে তার প্রথম সিরিজ।” কিছু সূত্র অবশ্য ইঙ্গিত দিয়েছে যে রোহিতের মতো শীর্ষ খেলোয়াড়রা নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে কানপুরে (২৫-২৯ নভেম্বর) এবং মুম্বাই (৩-৭ ডিসেম্বর) দুটি টেস্ট থেকে বিরতি নিতে পারেন। টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক থেকে যাদের বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে তারা টেস্ট ম্যাচে ফিরে আসার সম্ভাবনা রয়েছে। কিছু খেলোয়াড়কে খেলার সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটে রাখা হবে এবং ডিসেম্বরের শেষের দিকে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের আগে (নিউজিল্যান্ড টেস্ট সিরিজ চলাকালীন) বিশ্রাম পাবেন।

Why Did Virat Kohli Leave Out Rohit Sharma, One Day After Saying He Would  Open?

বর্তমান ঘরোয়া মরসুমে, ভারতকে মাত্র তিনটি ওয়ানডে খেলতে হবে (২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে)। এমন পরিস্থিতিতে ২০২৩ বিশ্বকাপের আগে দুই বছরের জন্য পরিকল্পনা তৈরি করতে চায় বিসিসিআই। তবে নতুন ওয়ানডে অধিনায়ক ঘোষণার কোনো তাড়া নেই তাদের। ২০২২ সালের জুনের মধ্যে ভারতকে ১৭টি ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক এবং মাত্র তিনটি ওয়ানডে খেলতে হবে। সুতরাং, ওয়ানডে দলে মাত্র তিনটি ম্যাচের জন্য আলাদা অধিনায়ক থাকার সম্ভাবনা নেই। ভারতীয় দলকে অবশ্য তার আগে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ওডিআই সিরিজ খেলতে হবে এবং দেখতে হবে কোহলি নিজেই অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেন নাকি বিসিসিআই তাকে তা করতে বলবে। যেকোনও পরিস্থিতিতে তার দীর্ঘদিনের ওয়ানডে দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ।

Leave a comment

Your email address will not be published.