বিসিসিআই জানাল কেনো প্রধান দলের ইংল্যান্ডে থাকা সত্ত্বেও রাখা হয়েছে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সিরিজ

ভারত তিন ম্যাচের একদিনের সিরিজ আর তিন ম্যাচের টি-২০ আই সিরিজের জন্য শ্রীলঙ্কা সফর করবে। এই ব্যাপারে কিছুদিন আগেই বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী স্পোর্টস স্টারকে দেওয়া নিজের একটি ইন্টারভিউতে জানিয়েছিলেন। বর্তমানে ভারতীয় দল ১৮ থেকে ২২ জুনের মধ্যে হতে চলা WTC ফাইনাল ম্যাচের জন্য ইংল্যান্ডে যাচ্ছে। এরপর ভারতীয় দল শ্রীলঙ্কায় উড়ে যাবে।

১৩ থেকে ২৭ জুলাইয়ের মধ্যে খেলা হবে ভারত-শ্রীলঙ্কা সিরিজ

বিসিসিআই জানাল কেনো প্রধান দলের ইংল্যান্ডে থাকা সত্ত্বেও রাখা হয়েছে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সিরিজ 1

ভারত-শ্রীলঙ্কা ওয়ানডে আর টি-২০ সিরিজের ডেট সামনে এসে গিয়েছে। প্রথম ওয়ানডে সিরিজ খেলা হবে আর তারপর টি-২০ সিরিজ। প্রথম ওয়ানডে ১৩ জুলাই হবে। অন্যদিকে ২৭ জুলাই শেষ টি-২০ ম্যাচ খেলা হবে। ১৫ দিনের অন্তরালে ভারতীয় দল নিজেদের শ্রীলঙ্কা সফর সম্পূর্ণ করবে। ম্যাচ কোন জায়গায় খেলা হবে এটা এখনও ঠিক করা বাকি। শ্রীলঙ্কা সফরের পর ভারতীয় দল ইংল্যান্ডের সঙ্গে পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে। এই টেস্ট সিরিজ ৪ আগষ্ট থেকে শুরু হবে আর ১৪ সেপ্টেম্বর শেষ হবে। WTC ফাইনালের পাশাপাপাশি ইংল্যান্ড সফরের জন্যও ভারতীয় দল ঘোষণা হয়ে গিয়েছে।

১৩ জুলাই- প্রথম ওয়ানডে
১৬ জুলাই- দ্বিতীয় ওয়ানডে
১৯ জুলাই- তৃতীয় ওয়ানডে
২২ জুলাই- প্রথম টি-২০
২৪ জুলাই- দ্বিতীয় টি-২০
২৭ জুলাই- তৃতীয় টি-২০

ক্রিকেট জগত যথেষ্ট চাপে

বিসিসিআই জানাল কেনো প্রধান দলের ইংল্যান্ডে থাকা সত্ত্বেও রাখা হয়েছে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সিরিজ 2

বিসিসিআই কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধুমল শ্রীলঙ্কা সিরিজের আয়োজিত হওয়ার কারণ জানাতে গিয়ে বলেছেন, “ভারত আগামী মাসে দুটি আলাদা আলাদা দলকে সমানন্তরভাবে মাঠে নামানোর জন্য তৈরি। যেমনটা আপনারা সকলেই জানেন যে গত দেড় বছর ধরে এই করোনা ভাইরাস মহামারীকে দেখে ক্রিকেট জগত যথেষ্ট চাপে, অনেকগুলো এফটিপিকে বাতিল করে দেওয়া হয়েচে, যা পুরো বিশ্বে এই অ্যাসোসিয়েশনের উপর অনেক চাপ তৈরি করেছে। যতক্ষণ আপনি এই সফরগুলো না করবেন, আমরা এটা ঠিক করতে পারব না। আর এই সমস্ত বোর্ডের জন্য নিজেদের আর্থিক লড়াই থেকে বেরিয়ে আসা ভীষণই মুশকিল হবে, যার মধ্যে দিয়ে তারা যাচ্ছেন”।

গত বছরু শ্রীলঙ্কা সফরকে ছাড়তে হয়

অরুণ ধুমল স্পোর্টসক্রীড়াকে দেওয়া একটি ইন্টারভিউতে বলেছেন, “আমরা গত বছরও শ্রীলঙ্কা সফরকে ছেড়ে দিয়েছিলাম, এই কারণে আমাদের এই ব্যাপারে কাজ করার প্রয়োজন আর যেহতু আমাদের দল যারা ইংল্যান্ডে যাচ্ছে, তারা প্রধানভাবে টেস্টের জন্য, এই অবস্থায় আমরা সাদা বলের ক্রিকেটের জন্য টিম বানাতে পারি। এই কারণে আমরা এমনটা ভেবেছি যে আমাদের শ্রীলঙ্কা বোর্ডের সঙ্গে কথা বলে নিজেদের তরফে কিছু করা উচিত। আর আমরা এই সময় সাদা বলের ক্রিকেট খেলতে পারি”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *