INDvsENG: বিরাট কোহলি বাঁচলেন এর উপর পড়ল ভারতের প্রথম টেস্ট হারার দায়, দেওয়া হল বাদ 1

ভারতীয় দল চেন্নাইতে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে চার ম্যাএর সিরিজের প্রথম ম্যাচ ২২৭ রানের বড়ো ব্যবধানে হেরেছে।এই ম্যাচের শেষ দিন ভারতের জয়ের জন্য ৩৮১ রানের দরকার ছিল, কিন্তু পুরো দল মাত্র ১৯২ রানেই অলআউট হয়ে যায়। এই হারের দায় পিচ কিউরেটরের উপর পড়েছে। বৃহস্পতি পাওয়া তথ্যের অনুযায়ী চেন্নাইতে প্রথম ম্যাচের পিচ কিউরেটরকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

খারাপ পিচের কারনে পিচ কিউরেটরকে সরানো হল

INDvsENG: বিরাট কোহলি বাঁচলেন এর উপর পড়ল ভারতের প্রথম টেস্ট হারার দায়, দেওয়া হল বাদ 2

চেন্নাইতে খেলা হওয়া প্রথম টেস্ট ম্যাচ হারের পর বিসিসিআই দ্বিতীয় টেস্টের জন্য এমএ চিদাম্বরম স্টেডিয়ামে পিচ প্রস্তুতের পর্যবেক্ষণ করা কিউরেটরকে সরিয়ে দিয়েছে। এখন ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট স্থানীয় প্রধান গ্রাউন্ডসম্যান ভি রমেশ কুমারকে পিচ দেখভালের দায়িত্ব দিয়েছে। কুমারের কাছে চেন্নাই টেস্টের আগ পর্যন্ত প্রথম শ্রেণীর ম্যাচের জন্য পিচ তৈরির অভিজ্ঞতা পর্যন্ত ছিল না। এই মুহূর্তে কুমারকে পিচ তৈরির গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দেয়া হয়েছে, যার জন্য লালের জায়গায় কালো মাটির ব্যবহার করা হবে। দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচ আর প্রথম টেস্টের মধ্যে মাত্র তিনদিনই রয়েছে, কিন্তু বিসিসিআই মধ্যাঞ্চলের কিউরেটর তপেশ চ্যাটার্জিকে প্রথম ম্যাচ শেষ হওয়ার দ্রুত পরেই ফেরত পাঠিয়ে দিয়েছে এবং তাকে ইন্দোর আর জয়পুরে বিজয় হাজারে ট্রফির ম্যাচের জন্য পিচ দেখভালের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

কুমার পেলেন আগামী ম্যাচের দায়িত্ব

INDvsENG: বিরাট কোহলি বাঁচলেন এর উপর পড়ল ভারতের প্রথম টেস্ট হারার দায়, দেওয়া হল বাদ 3

বিসিসিআইয়ের কাছে কিউরেটরের একটি বড়ো প্যানেল রয়েছে, আর তা দেখে তপেশ চ্যাটার্জিকে সরানো আর কুমারের মতো অনভিজ্ঞকে এই কাজ দেওয়া যথেষ্ট চমকে দেওয়ার মতো সিদ্ধান্ত। তপেশকে কিউরেটরের এলিট প্যানেলে শামিল করা হয়েছিল। তিনি ছাড়াও আশিস ভৌমিক (তৃতীয় আর চতুর্থ টেস্টের জন্য মোতেরা স্টেডিয়ামের উইকেট তৈরি করবেন), প্রশ্নত কে, সুনীল চৌহান আর প্রকাশ আধব এই প্যানেলে রয়েছেন। তামিলনাড়ু ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন তপেশবাবুকে সরানোর ব্যাপারে নিশ্চিত করেছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *