ইংল্যান্ডকে ধুলোয় মিশিয়ে রেকর্ড সপ্তমবারের মতো মহিলা বিশ্বকাপ জিতেছে অস্ট্রেলিয়ান দল 1

অস্ট্রেলিয়া (Australia) ৭১ রানে ইংল্যান্ডকে (England) হারিয়ে সপ্তমবারের মতো আইসিসি মহিলা ওয়ানডে বিশ্বকাপের (ICC Womens World Cup) শিরোপা জিতেছে। পুরো টুর্নামেন্টে দুর্দান্ত খেলা দেখিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ইংল্যান্ডের অধিনায়ক হিদার নাইট (Heather Knight) টসে জিতে প্রথমে বল করার সিদ্ধান্ত নেন। ব্যাট করতে নেমে ইংল্যান্ড দলকে জয়ের জন্য ৩৫৭ রানের বিশাল টার্গেট দেয় অস্ট্রেলিয়া। 357 রান তাড়া করতে নেমে ইংল্যান্ড দল কখনই ছন্দে আছে বলে মনে হয়নি নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে দলটি। ইংল্যান্ডের হয়ে নেট সেভিয়ার  (Nat Sciver) ১৪৮ রানের ইনিংস খেলেন, কিন্তু সেটাও তার দলকে জেতাতে পারেনি। তিনি ছাড়া অন্য কোনো ব্যাটসম্যান 30 রানে পৌঁছাতে পারেননি এবং শেষ পর্যন্ত তার পুরো দল 43.4 ওভারে 285 রানে আউট হয়ে যায়। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে বিপজ্জনক বোলিং করে ৩ উইকেট নেন অ্যালানা কিং (Alana King)।

বিশাল স্কোর গড়ল অস্ট্রেলিয়া

Australia vs England, Women's World Cup 2022 Final Highlights: Australia  Beat England To Win Record-Extending 7th Title | Cricket News

প্রথমে ব্যাট করতে আমন্ত্রণ জানালে অস্ট্রেলিয়া ৩৫৬ রানের বিশাল স্কোর করে। অ্যালিসা হ্যালি (Allysa Healy) 138 বলে 26 চারের সাহায্যে 170 রান করেন, জীবন উপহারের সুযোগ তিনি তার ব্যক্তিগত মোট 41 রানে পেয়েছিলেন। তিনি তার উদ্বোধনী সঙ্গী রাচেল হেইন্স (৯৩ বলে ৬৮) এর সাথে প্রথম উইকেটে ১৬০ রান এবং বেথ মুনির (৪৭ বলে ৬২) সাথে দ্বিতীয় উইকেটে ১৫৬ রান করেন। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে লেগ-স্পিনার এলনা কিং 64 রানে তিনটি এবং স্পিনার জেস জোনাসেন 57 রানে তিনটি নেন। ফাস্ট বোলার মেগান শাট ৪২ রানে নেন দুই উইকেট। অস্ট্রেলিয়ান অ্যালিসা হ্যালিও পুরুষ ও মহিলা বিশ্বকাপের ফাইনালে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত স্কোরের নতুন রেকর্ড গড়েছেন। তার পরে রয়েছেন অ্যাডাম গিলক্রিস্ট (149, বিশ্বকাপ 2007), রিকি পন্টিং (140, বিশ্বকাপ 2003) এবং ভিভ রিচার্ডস (138, বিশ্বকাপ 1979)।

ইংল্যান্ডের শুরুটা খারাপ

Match Preview - AUS Women vs ENG Women, ICC Women's World Cup 2021/22,  Final | ESPNcricinfo.com

সাত ওভারের মধ্যেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন ইংল্যান্ডের দুই ওপেনার। ড্যানি ওয়াট (৪) ও ট্যামি বিউমন্ট (২৭) রান করেন। ক্যাপ্টেন হিদার নাইট (24) এর একটি বড় দায়িত্ব ছিল, কিন্তু তিনি যখন সেভিয়ারের সাথে ইনিংসটি ঠিক করার চেষ্টা করছিলেন, লেগ-স্পিনার কিং তাকে আউট করেছিলেন। নতুন ব্যাটসম্যান অ্যামি জোন্স (২০)ও বড় স্কোরের চাপে ছিলেন। মিড অফে জোনাসেনের বলে ক্যাচ দেন তিনি। একপ্রান্ত থেকে রান তোলার দায়িত্ব নিলেও অন্য প্রান্ত থেকে সমর্থন পাননি সায়ভার। কিং সোফিয়া ডাঙ্কলিকে (২৩) বোল্ড করেন এবং তাকে সাইভারের সাথে বড় জুটি খেলতে দেননি। নতুন ব্যাটসম্যান ক্যাথরিন ব্রান্ট (এক) আসতেই প্যাভিলিয়নের পথ দেখান তিনি। এক প্রান্ত থেকে যখন উইকেট চলে আসছিল, তখন ৯০ বলে তার পঞ্চম সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন সেভিয়ার।

Leave a comment

Your email address will not be published.