AUS vs AFG: এক ওভারে হলো মাত্র ৫ বল, টি-২০ বিশ্বকাপে ভুলে ভরা আম্পায়ারিং-এর শিকার এবার অস্ট্রেলিয়া !! 1

AUS vs AFG:  ২০২২ সালের টি-২০ বিশ্বকাপের আসর বসেছে অস্ট্রেলিয়ায়। হাড্ডাহাড্ডি ক্রিকেটের পাশাপাশি চলতি বিশ্বকাপে আলোচনায় জায়গা করে নিয়েছে বৃষ্টি আর খারাপ আম্পায়ারিং। বৃষ্টিতে দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম জিম্বাবুয়ে , ইংল্যান্ড বনাম অস্ট্রেলিয়ার মত বেশ কিছু ম্যাচ ভেস্তে গিয়েছে। প্রকৃতির ওপর মানুষের কোনো রকম নিয়ন্ত্রণ নেই, তবে যাকে নিয়ন্ত্রণ করা যায় সেই আম্পায়ারিং-ও বারবার এসে দাঁড়াচ্ছে বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে। এমন বেশ কিছু সিদ্ধান্ত এই বিশ্বকাপে আমরা পেয়েছি যা হয় মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছে ম্যাচের। সম্প্রতি ভারত বনাম বাংলাদেশ ম্যাচে বিরাট কোহলি’র বিরুদ্ধে ওঠা ‘ভুয়ো ফিল্ডিং’-এর অভিযোগ ও মাঠে উপস্থিত দুই আম্পায়ারের তা নিয়ে কোনো ব্যবস্থা না নেওয়া নিয়ে চলছে জোর বিতর্ক। এরই মধ্যে অস্ট্রেলিয়া বনাম আফগানিস্তান ম্যাচটিও সাক্ষী থাকলো ভুলে ভরা আম্পায়ারিং-এর।

ওভারে বল কয়টি গুনলেন না আম্পায়ার-

Aus vs Afg | image: Twitter
The umpires made a howler during Aus vs Afg on 4th November 2022. Afghanistan bowler Naveen-ul-Haw bowled only 5 balls in an over

সুপার টুয়েলভ পর্বে গ্রুপ-১-এর ম্যাচে গতকাল অ্যাডিলেডে মুখোমুখি হয়েছিলো চলতি বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ অস্ট্রেলিয়া এবং আফগানিস্তান। সেমিফাইনালের লড়াইতে টিকে থাকতে গেলে জয় ছাড়া উপায় ছিলো না অজিদের কাছে। দুর্দান্ত লড়াই হয় ম্যাচে। মিচেল মার্শ(Mitchell Marsh) ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের(Glenn Maxwell) ব্যাটিং দাপটে অস্ট্রেলিয়া প্রথমে ব্যাট করে তোলে ১৬৮ রান। প্রথমে স্লথ হলেও পরে টি-২০ ক্রিকেটের ‘সুপারস্টার’ রশিদ খানের(Rashid Khan) ব্যাটে ঝড় তোলে আফগানিস্তান’ও। রশিদ ২৩ বলে ৪৮ করে অপরাজিত থাকেন। আফগানিস্তান ম্যাচ হারে ৪ রানে। হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচে আফগানিস্তানের লড়াইকে ছাপিয়ে মুখ্য আলোচনার বিষয় হয়ে ওঠে আম্পায়ারের ত্রুটি। অস্ট্রেলিয়ার ইনিংসের সময় এক ওভারে নাকি হয়েছে ৫ বল। অভিযোগ এমনই। অস্ট্রেলিয়ান ইনিংসের চতুর্থ ওভারে বল করছিলেন আফগান পেসার নবীন-উল-হক(Naveen-ul-Haq)। সামনে ব্যাট হাতে ছিলেন ডেভিড ওয়ার্নার এবং মিচেল মার্শ। আশ্চর্যজনভাবে বোলার পঞ্চম বল করার পরেই ওভার ঘোষণা করে দেন আম্পায়ার। ক্রিকেট স্কোর ওয়েবসাইট ক্রিকবাজ এবং ইএসপিএন ক্রিকইনফো’ও জানায় নির্ধারিত ৬ বল নয়, ৫ টি বল হয়েছে এই ওভারে। এই ঘটনার পর সমাজ মাধ্যমে চরম নিন্দিত হয়েছেন দুই আম্পায়ার আলিম দার এবং ল্যাংটন রুসেরে। কি হয়েছিলো সেই ওভারে? দেখুন এখানে-

4th over of Aus innings | image: Twitter
Umpires under fire after allowing Naveen-ul-Haq of Afghanistan to finish his over with only 5 balls.

আম্পায়ারিং বিতর্ক এর আগেও দানা বেঁধেছে-

Virat Kohli | image: Twitter
Bangladesh’s Nurul Hasan has accused India’s Virat Kohli of fake fielding

অস্ট্রেলিয়া বনাম আফগানিস্তান ম্যাচেই প্রথম নয় এই বিশ্বকাপে আম্পায়ারিং নিয়ে এর আগেও হয়েছে বিতর্ক। ভারত বনাম পাকিস্তান ম্যাচে মহম্মদ নওয়াজের শেষ ওভারে একটি নো বলে ছক্কা হাঁকান বিরাট কোহলি। সেটি আদৌ নো-বল ছিলো কিনা তা নিয়ে একপ্রস্থ আম্পায়ারদের বিঁধেছিলেন অনেক। সেই একই ম্যাচে ফ্রি হিটে বোলড হয়েও কি করে ৩ রান নিলেন ভারতীয় ব্যাটার’রা তা নিয়েও হয়েছে বিতর্ক। তবে সবকিছু ছাপিয়ে গিয়েছে ভারত বনাম বাংলাদেশ ম্যাচের ‘ভুয়ো ফিল্ডিং’ বিতর্ক।  বাংলাদেশের ইনিংসের সপ্তম ওভারের দ্বিতীয় বল’টি ডিপ পয়েন্টের দিকে ঠেলে দুই রান নেওয়ার চেষ্টা করছিলেন ‘টাইগার্স’ ওপেনারদ্বয়, লিটন দাস এবং নাজমুল হোসেন শান্ত। বল কুড়িয়ে উইকেটরক্ষক দীনেশ কার্তিকের দিকে ছোঁড়েন অর্শদীপ সিং। পয়েন্টে দাঁড়ানো কোহলি হঠাৎ’ই নন-স্ট্রাইকার প্রান্তের দিকে বল ছোঁড়ার ভঙ্গি করেন। দেখা যায় বল তাঁর আশেপাশেও ছিলো না তখন। মাঠে উপস্থিত দুই আম্পায়ার মারে ইরাসমাস ও ক্রিস ব্রাউন খেয়াল করেন নি কোহলি’কে। এমনকি দুই বাংলাদেশী ব্যাটার’ও কোনো অভিযোগ জানান নি। তাঁরা দেখেন’ই নি কোহলি’র দিকে। ম্যাচ’ও চলছিলো নিজের গতি’তে। কিন্তু বাংলাদেশ হারতেই এই ঘটনা নিয়ে মুখ খুলেছেন নুরুল হাসান। বাংলাদেশের হারের ব্যবধান ৫ রান। আর তাঁর দাবী যেহেতু কোহলি “ভুয়ো ফিল্ডিং’ করেছেন সেহেতু ৫ রান ‘পেনাল্টি’ প্রাপ্য ছিলো তাঁদের। যদিও আইসিসি’র নিয়মাবলীর ধারা ৪১.৫ বলছে, যদি ব্যাটারদের বিভ্রান্ত করতে কেউ ভুয়ো ফিল্ডিং-এর অঙ্গভঙ্গি করেন তাহলে মাঠে উপস্থিত আম্পায়ার’রা ব্যাটিং টিম’কে ৫ রান অতিরিক্ত দিতে পারবেন। বাংলাদেশ ম্যাচ হারার পর এই ঘটনা’কে আমাপায়ারিং ত্রুটি বলেই দেখছেন ক্রিকেটবোদ্ধাদের একাংশ।

Leave a comment

Your email address will not be published.