ধর্ষণ অভিযোগে অভিযুক্ত দানুষ্কা গুনাথিলাকের অবশেষে মিললো জামিন !! 1

টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চে চোটের কারণে দলের বাইরে চলে যান দানুষ্কা গুনাথিলাকে (Danushka Gunathilaka) , তবুও  তিনি অস্ট্রেলিয়াতেই ছিলেন দলের সঙ্গে , আর সেই সময়ে এক অস্ট্রেলিয়ান মহিলাকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করেন এই শ্রীলংকান অলরাউন্ডার, সে কারণে তাকে অস্ট্রেলিয়া থেকে আর ফিরতে দেওয়া হয়নি। ৬ ই নভেম্বর সকালে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সূত্রের খবর থেকে জানা গিয়েছে, যে রোজ বে-তে একটি বাড়িতে ২৯ বছর বয়সী এক মহিলাকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। যেখানে উপস্থিত ছিলেন এই শ্রীলঙ্কান ব্যাটসম্যান। দানুষ্কা গুনাথিলাকে কে অস্ট্রেলিয়ার এক স্থানীয় কোর্টে তোলা হয়েছিল। সেখানে তাঁর জামিনের আবেদন খারিজ হয়েছিল আগে। পাশাপাশি শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে তার এই কর্মের জন্য তাঁকে ক্রিকেটের তিন ফরম্যাট থেকে সাসপেন্ড করেছে।

দল থেকে সাসপেন্ড দানুষ্কা

ধর্ষণ অভিযোগে অভিযুক্ত দানুষ্কা গুনাথিলাকের অবশেষে মিললো জামিন !! 2

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সবেমাত্রই শুরু করেছিলেন তিনি, দলের হয়ে ৮ টি টেস্ট ২৯৯ রান করেছেন, ৪৭টি ওয়ানডেতে ১৬০১ রান করেন এবং ৪৬টি টি-টোয়েন্টি তে ৭৪১ রান করেছেন। এই প্রথম নয়, এর আগেও সাসপেন্ড হয়েছেন দানুষ্কা, ক্রিকেটে ওতো ভালো নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি তিনি, কিন্তু তার স্বভাব চরিত্রের জন্য বারবার খবরের শিরোনামে এসেছেন দানুষ্কা। ২০১১ সালে শ্রীলঙ্কান দল পারি দিয়েছিল ইংল্যান্ড, সেখানে বায়ো বাবেল ভেঙে ধূমপান করার অপরাধে সাসপেন্ড হয়েছিলেন তিনি। আবার তার এমন কার্যের জন্য সাসপেন্ড করেছে দল।

অবশেষে মিললো জামিন

ধর্ষণ অভিযোগে অভিযুক্ত দানুষ্কা গুনাথিলাকের অবশেষে মিললো জামিন !! 3

তবে অবশেষে জামিন পেলেন গুনাথিলাকে, তার পক্ষের আইনজীবী মুরুগান থানগারাজ জামিনের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে বলেছেন, ‘এই ধরনের পরিস্থিতিতে অবশ্যই তিনি জামিন পেতে পারেন।’ থানগারাজ আরও জানান, গুনাথিলাকে কর্তৃপক্ষের তদন্তে পূর্ণ সহযোগিতা করেছেন। এমনকি নিজের পাসপোর্টও জমা দিয়ে রেখেছেন অজি পুলিশদের কাছে , তাই অস্ট্রেলিয়া থেকে পালানোর কোনও সুযোগ নেই তার।

ডেটিং অ্যাপস ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা

ধর্ষণ অভিযোগে অভিযুক্ত দানুষ্কা গুনাথিলাকের অবশেষে মিললো জামিন !! 4

দেড় লাখ অস্ট্রেলিয়ান ডলার ও কিছু শর্তের বিনিময়ে জামিন পেয়েছেন গুনাথিলাকে। তবে টিন্ডার জাতীয় অন্য কোনও ডেটিং অ্যাপস ব্যবহার করতে পারবেন না তিনি। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়ার সঙ্গে যুক্ত হতে পারবেননা তিনি, সোশ্যাল মিডিয়া তে ঢুকতে গেলে তাকে আবার তাকে লিগ্যাল টিমের সহায়তা নিতে হবে, তারপরেই ব্যবহার করতে পারবেন সোশ্যাল মিডিয়া। আবার আগামী ১২ জানুয়ারি আদালতে এই মামলা আবারও উঠবে। ততদিন একটি নির্দিষ্ট ঠিকানায় থাকতে হবে তাকে এবং প্রতিদিন পুলিশের কাছে রিপোর্ট করতে হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published.