শাস্ত্রী-কুম্বলে নয়, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজের সাফল্যের জন্য ভারতীয় দলের এই প্রাক্তন হেড কোচকে কৃতিত্ব দিলেন অশ্বিন 1

রবিচন্দ্রন অশ্বিন (Ravichandran Ashwin) এমন একজন ক্রিকেটারের তালিকায় এসেছেন যিনি উন্নতিতে বিশ্বাস করেন এবং সময়ের সাথে সেইভাবে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন। অভিজ্ঞরা তাদের পারফরম্যান্সে কী ধরণের পরিবর্তন প্রয়োজন এবং এর জন্য কী ধরণের প্রচেষ্টা করা যেতে পারে তা শিখতে পিছপা হন না। অশ্বিন গত দশকের শুরুতে তার আন্তর্জাতিক অভিষেক করেছিলেন, যখন ভারত একটি সোনালী সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছিল। সম্প্রতি নিজের সাফল্যের কৃতিত্ব সাবেক কোচকে দিয়েছেন তিনি। আর অশ্বিন ২০১১ সালের আইসিসি বিশ্বকাপ এবং ২০১৩ আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়ী দলের একজন অংশ ছিলেন। ২০১৪ সালে আইসিসি, যখন টিম ইন্ডিয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে পৌঁছেছিল, তখন তিনিও ভারতের অংশ ছিলেন। এর পর একটা সময় এল যখন তিনি দলের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হয়েছিলেন। অনিল কুম্বলের বর্ণাঢ্য কেরিয়ারের সমাপ্তির পর থেকে ভারতের হয়ে ক্রিকেটের দীর্ঘতম ফর্ম্যাটে, তিনি বল দিয়ে ভারতকে অনেক বড় ম্যাচ জিততে সাহায্য করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন।

অশ্বিন বলেছেন তার সাফল্যের পেছনে ডানকান ফ্লেচারের হাত রয়েছে

শাস্ত্রী-কুম্বলে নয়, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজের সাফল্যের জন্য ভারতীয় দলের এই প্রাক্তন হেড কোচকে কৃতিত্ব দিলেন অশ্বিন 2

সম্প্রতি, রবিচন্দ্রন অশ্বিন টেস্ট ক্রিকেটে কপিল দেবকে ছাড়িয়ে এই ফর্ম্যাটে সবচেয়ে বেশি উইকেট নেওয়ার ক্ষেত্রে ভারতীয় দলের দ্বিতীয় বোলার হয়েছেন। কিন্তু আজ যদি তিনি এই অবস্থানে পৌঁছে থাকেন, তবে তা সম্ভব হয়েছে সময়ের সাথে পরিবর্তনের কারণে। ভারতের প্রাক্তন এই কোচের পরামর্শই হয়তো একজন তরুণ অশ্বিনকে এগিয়ে যেতে শিখিয়েছে। সংবাদ সংস্থা পিটিআই প্রবীণ ক্রিকেটার আর অশ্বিনকে উদ্ধৃত করে লিখেছে, “এটি একটি দুর্দান্ত যাত্রা। আমি অনেক ভুল করেছি। কয়েক বছর আগে, আমাদের প্রধান কোচ ডানকান ফ্লেচার (সাবেক জিম্বাবওয়ের ক্রিকেটার) ছিলেন এবং আমি তাকে গিয়ে জিজ্ঞাসা করি, ‘আমি কীভাবে উন্নতি করব, কীভাবে আমি আরও ভাল হতে পারি?’ তিনি বলেছিলেন, ‘ভুল করে এবং মানুষের সামনে ব্যর্থ হলেই আপনি ভাল হয়ে উঠতে পারেন।

নিজের সামর্থ্য নিয়ে বড় বক্তব্য দিলেন এই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার

শাস্ত্রী-কুম্বলে নয়, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজের সাফল্যের জন্য ভারতীয় দলের এই প্রাক্তন হেড কোচকে কৃতিত্ব দিলেন অশ্বিন 3

নিজের পুরনো দিনের কথা মনে করে আর অশ্বিন বলেন, “সারাজীবন আমি এটাই করেছি। আমি কীভাবে সীমা ছাড়িয়ে নিজেকে উন্নত করার চেষ্টা করেছি তা নিয়ে আমি মানুষের কাছ থেকে প্রচুর সমালোচনা পেয়েছি। কখনও কখনও মানুষ অনুভব করতে পারে এই বিষয়ে।” পিটিআই-এর সাথে কথা বলার সময় তার প্রতিক্রিয়া জানিয়ে আর অশ্বিন বলেছেন, কেন তিনি এমন কাজ করছেন? তিনি কি খুব উচ্চাভিলাষী, তিনি কি খুব বেশি কিছু করার চেষ্টা করছেন?’ কিন্তু এটা শুধুই আমি, আপনি যদি এই ব্যক্তিটিকে আমার থেকে বের করে দেওয়ার চেষ্টা করেন তবে আপনি এই ব্যক্তিকে খুঁজে পাবেন না। অনেক সমস্যা আমার কাছে আসে। আমি যদি অভ্যস্ত হই এবং আমার প্রয়োজনীয় অভিব্যক্তি পাই, আমার মনে হয় আমি সীমানা নির্ধারণ করতে পারি।”

Leave a comment

Your email address will not be published.