উইকিপিডিয়ার দৌলতে বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ! 1

বিশেষ প্রতিবেদন: ইডেনে চলছে ভারত ও ইংল্যান্ড সিরিজের শেষ ম্যাচ। আর অন্যদিকে এক আশ্চর্য খবর প্রকাশ্যে এল। সুপ্রিম কোর্ট-লোধা কমিটির সুপারিশকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ভারত ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি হয়ে গেলেন দেশের প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়! গত ৩রা জানুয়ারি অনুরাগ ঠাকুরকে বোর্ড সভাপতির পদ থেকে থেকে অপসারিত করা হয়। এরপর বোর্ডকর্তাদের এত সমীকরণ। এর মাঝে কখন বোর্ড সভাপতির পদে বহাল হয়ে গেলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ! আর বিসিসিআই-এর প্রধান দপ্তর মুম্বই নয়, কলকাতা। এত বড় খবর, অথচ কেউ জানতেও পারল না ?

উইকিপিডিয়ার দৌলতে বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ! 2

উইকিপিডিয়ার এই ভুল তথ্যে ক্রিকেটবিশ্ব এখনো বিভ্রান্ত। উইকিপিডিয়ায় সুস্পস্ট লেখা হয় বোর্ডের সভাপতির পদে নির্বাচিত হয়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। কিন্তু নির্বাচন হল কোথায় ? গত ৩রা জানুয়ারি বোর্ডের সভাপতি পদ থেকে অপসারিত হতে হয়েছে অনুরাগ ঠাকুরকে। সরে যেতে হয়েছে বোর্ডের অন্য শীর্ষকর্তাদেরও। রাজ্য ক্রিকেট সংস্থাগুলিতেও হয়েছে আমুল পরিবর্তন। কিন্তু উইকিপিডিয়ার মতে, গত ১৯শে জানুয়ারি বোর্ডের সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন সৌরভ। শুধু এটুকুই নয়, মুম্বই থেকে বোর্ডের প্রধান দপ্তর সরিয়ে আনা হয়েছে কলকাতায়।

উইকিপিডিয়ার দৌলতে বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ! 3

খবর প্রকাশ্যে আসতে টনক নড়ে যায় ক্রিকেট কর্তাদেরও। গত ১৯শে জানুয়ারি বোর্ড সভাপতি হিসেবে প্রথমবার সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নাম দেখা যায় উইকিপিডিয়ায়। এরপর মোট ১০ বার বোর্ডের উইকিপিডিয়ার পেজ সম্পাদিত হয়েছে। সৌরভের নাম আর নেই। সম্পাদনা করে এবার সেই জায়গায় এসে গেছে অন্য নাম। এখনও সর্বোচ্চ আদালত ও লোধা কমিটির নির্দেশ মতো বোর্ডের প্রশাসন তৈরি করার পদ্ধতি চলছে। কিন্তু এর মাঝে উইকিপিডিয়ায় এই তথ্য সামনে আসায় নতুন করে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে বলে দাবি ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের। এতে সুপ্রিম কোর্টেরও অবমাননা হচ্ছে বলে দাবি বিশিষ্ট আইনজীবীদেরও।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *