৫ জন ক্রিকেটার যারা নিজেদের বোর্ডকে জনসমক্ষে বিদ্রুপ করেছিলেন 1

আমরা প্রায়শই দেখে থাকি ক্রিকেট খেলাতে কেউ না কেউ বিদ্রুপের শিকার হচ্ছেন,তা সে কোনো খেলোয়াড়ই হোক অথবা কোনো দেশের ক্রিকেটবোর্ড। মাঝেমধ্যেই এটাও লক্ষ্য করা যায় কোনো কোনো দেশের প্রাক্তন ক্রিকেটাররা নিজেরদের ক্রিকেট বোর্ড অথবা নিজেদের দেশের কোনো সক্রিয় ক্রিকেট খেলোয়াড়কে বিদ্রুপ করছেন। আমরা এখানে ৫টি এমন ঘটনার কথা জানাবো যেখানে সক্রিয় কিছু ক্রিকেট খেলোয়াড়রা নিজেদের ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডকে নিয়ে বিদ্রুপ করেছেন তাও আবার জনসমক্ষে।

কামরান আকমল 

৫ জন ক্রিকেটার যারা নিজেদের বোর্ডকে জনসমক্ষে বিদ্রুপ করেছিলেন 2

৩৯বছর বয়েসী পাকিস্তানী এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান বরাবর বোলারদের শাসন করে এসেছে তার পাশাপাশি তিনি তার দেশের হয়ে বহু ম্যাচ জেতানো ইনিংস উপহার দিয়েছেন। কামরান আকমল যিনি এখন পাকিস্তানী ক্রিকেটদলের নিয়মিত সদস্য নন কিন্তু ২০১৬সালে যখন তিনি তার ক্রিকেট ক্যরিয়ার এর ভালো ফর্মে ছিলেন সেই সময় অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে একদিবসীয় সিরিজে তিনি দল থেকে বাদ পড়েন , তখন তিনি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড নির্বাচকদের সাথে সংঘাতে জড়িয়ে পড়েন যা জনসমক্ষে প্রচারিত হয়ে থাকে।

 

ডোয়েন ব্রাভো 

সদ্য প্রাক্তন এই ওয়েস্টইন্ডিয়ান অলরাউন্ডার তার ডানহাতি বিধংসী পাওয়ার হিটিং ব্যাটিং এবং ডানহাতি মিডিয়াম পেস বোলিং এর জন্য সারা বিশ্বে প্রসিদ্ধ। তার এই অনবদ্য পারফর্মেন্সের জন্য ওয়েস্টইন্ডিয়ান ক্রিকেট বোর্ড তাকে অবসর ভেঙে আবার দলে আসার জন্য অনুরোধ জানিয়েছে কারণ সামনে t20 বিশ্বকাপের জন্য তিনি হলেন ওয়েস্টইন্ডিজ দলের গুরুত্বপূর্ণ অলরাউন্ডার।

৫ জন ক্রিকেটার যারা নিজেদের বোর্ডকে জনসমক্ষে বিদ্রুপ করেছিলেন 3

২০১৪সালে ব্রাভো ওয়েস্টইন্ডিজ দলের অধিনায়ক ছিলেন এবং তার নেতৃত্বে ওয়েস্টইন্ডিজ দল ইন্ডিয়া টুর এ আসার কথা ছিল কিন্তু তার আগে ব্রাভো ওয়েস্টইন্ডিজ বোর্ডের কাছে তার বকেয়া পেমেন্ট এর জন্য আবেদন করেন , ব্রাভো তার আবেদনপত্রে ওয়েস্টইন্ডিয়ান ম্যাজেমেন্ট এর কাছে তার বকেয়া পেমেন্টের বেপারে একটি মদ্ধস্ততার জন্য অনুরোধ করেন কিন্তু ওয়েস্টইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড তা সম্পূর্ণ নাকচ করে দেন। এর পরেই ব্রাভো নিজেকে দল থেকে সরিয়ে নেন যা সেই সময় ওয়েস্ট ইন্ডিজ বোর্ডের কাছে একটি বড়ো সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছিল এবং এই খবরটি জনসমক্ষে প্রচারিত হয়।

মহিন্দর অমরনাথ 

১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় ব্যাটসম্যান মহিন্দর অমরনাথ তার অনবদ্য ব্যাটিংয়ের জন্য সারা ক্রিকেট বিশ্ব প্রসিদ্ধ ছিলেন যিনি তার অবসরের পর জাতীয় নির্বাচক হয়েছিলেন। অমরনাথ তার ক্রিকেট ক্যরিয়ার এ অনেক বার ভারতীয় দল থেকে বাদ পড়েন এবং আবার ফিরে আসেন তাই নিয়ে তিনি তখনকার জাতীয় নির্বাচকদের ” bunch of jockers ” বলে সম্বধন করেছিলেন।

কেভিন পিটারসেন 

৫ জন ক্রিকেটার যারা নিজেদের বোর্ডকে জনসমক্ষে বিদ্রুপ করেছিলেন 4

ডানহাতি ইংলিশ বিদংসী ব্যাটসম্যান তার পাওয়ার হিটিং এর জন্য সারা বিশ্বে প্রসিদ্ধ। পিটারসেন এই মুহূর্তে আইপিএল এর একজন নামকরা ইংলিশ ধারাভাষ্যকার। তার সাথে বরাবর ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের সংঘাতের খবর প্রচারিত হয়েছে , এমনকি তিনি তার ক্যরিয়ার এর ভালো ফর্ম এ থাকা অবস্থাতেও তাকে এসেজ সিরিজের জন্য দল দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল যা না নিয়ে তিনি ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের ম্যানেজমেন্ট কে অনেক কটু কথা শুনিয়েছিলেন।

শ্রীলংকান ক্রিকেট দল

শ্রীলংকান ক্রিকেট বোর্ড তাদের খেলোয়াড়দের বেতন নিয়ে নতুন একটি নিয়ন চালু করে তাতে বলা হয় খেলোয়াড়দের বেতন কমানো হবে এবং প্রত্যেক ম্যাচের পারফর্মেন্স এর ওপর ভিত্তি করে তাদের ইন্সেন্টিভ দেওয়া হবে , বোর্ডের তরফ থেকে আরো জানানো হয় যে এখন থেকে প্রত্যেক ম্যাচের জন্য আলাদা আলাদা ভাবে চুক্তি স্বাক্ষর করতে হবে। কিন্তু শ্রীলংকান খেলোয়াড়রা এই চুক্তি স্বাক্ষর করতে রাজি নয় এবং তারা আবেদন জানিয়েছে যেন তাদের পূর্ব নির্ধারিত বেতন টাই পান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *