না চাইলেও, মেনে নিতে হবে। ‘যদি, কিন্তু‘ ‘হয়ত-কে ভুল প্রমাণ করে – আশঙ্কাটাই তাহলে সত্য়ি হলো। শ্রীলঙ্কা সফর তাঁর জন্য় ডু অর ডাই সিচুয়েশন নিয়ে অপেক্ষা করছে – মিডিয়াতে খবর রটলেও, তাঁকে শেষ আর সুযোগ দেওয়া হলো না। কোহলি-শাস্ত্রীর টিম ইন্ডিয়া থেকে ছেঁটে ফেলা হলো ভারতের স্টার অলরাউন্ডার যুবরাজ সিংকে। কেরিয়ারের মধ্য়গগনে থাকাকালীন অনেক ক্রিকেট টিমের ম্য়াচ ভাগ্য়ের কফিনে পেরেক পোঁতার কাজ অনায়াসে করতেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলির স্নেহধন্য় এই ক্রিকেটার। সেই কাজটাই ইদানিং করতে পারছিলেন না যুবী। আর সেই কারণেই তাঁর কফিনেই সম্ভবত শেষ পেরেক মেরে দিলেন নির্বাচকরা।

ক্রিকেট সমালোচকদের বলছেন, ক্রিকেটপ্রেমীরা আবেগের বশে যতই যুবীকে নিয়ে মাতামাতি করুন, অস্বীকার করার কোনও জায়গা নেই, পাঞ্জাবের এই অলরাউন্ডার ত্রিশ বছর অনেক আগেই পার করে এসেছেন। পঁয়ত্রিশ বছরের যুবরাজ এখন শুধু অতীতের ছায়া। ব্য়াটে ধারাবাহিকভাবে রান নেই, ফিল্ডিং করার গতি কমেছে, বল হাতে যুবরাজের বাঁ-হাতি স্পিন দলের আর কাজেই লাগে না। এমন একজন বুড়ো ক্রিকেটারকে দলে রাখার আর কোনও প্রয়োজন নেই। তাঁর জায়গায় একজন তরুণ ক্রিকেটারকে খেলালে ভবিষ্য়তের জন্য় গড়ে তোলা যাবে।

এনিয়ে কোনও সন্দেহ নেই, ভারতের ক্রিকেটের ইতিহাসে যুবরাজ সিং সর্বকালের সেরা অলরাউন্ডার। ২০০২এ সৌরভের নেতৃত্বে চ্য়াম্পিয়ন্স ট্রফিতে যে ক্রীড়া নক্ষত্রকে বিশ্বক্রিকেট শ্রীলঙ্কার মাটিতে আবিষ্কার করেছিল, সেই শ্রীলঙ্কার মাটিতেই ২০১৯ বিশ্বকাপে খেলার লড়াইটা জিইয়ে রাখার শেষ সুযোগ ছিল। ক্য়ান্সারকে হারিয়ে  ফের ক্রিকেট মাঠে মাঠে ফিরে এলেও, বিরাট-শাস্ত্রীর টিম ইন্ডিয়াতে জায়গা ধরে রাখার লড়াইতে তাঁর বয়সের কাছে হেরে গেলেন যুবী। ১৩ অগস্ট, ২০১৭ তারিখে বর্ণময় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কেরিয়ারে ইতি পড়ে গেল দুবার বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় দলের এই স্টার ক্রিকেটারের।

বিসিসিআইয়ের এক সিনিয়র আধিকারিকের বক্তব্য়ে পরিষ্কার ২০১৯ বিশ্বকাপের দলে যুবরাজকে নিয়ে কোনও ভাবনা-চিন্তা ছিল না বোর্ডের। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিসিসিআইয়ের ওই উচ্চ-পদস্থ আধিকারিক বলেন, যুবরাজের ব্য়াটিংয়ে আগের মতো সেই ধারাবাহিকতা নেই। ছন্দ অনেকদিন আগেই হারিয়ে গিয়েছে। যুবরাজকে অলরাউন্ডার আর বলা যাবে না। মাঝেমধ্য়ে বল হাতে দেখা যায় ওকে। ফিল্ডিংয়েও তেমন চটপটে ভাব নেই। মন্থর হয়ে পড়েছে।  ২০১৯ সালের বিশ্বকাপের জন্য় দল বেছে নিতে হলে, আমাদের এখন থেকেই তৈরি হতে হবে। সত্য়ি কথা বলতে, মহেন্দ্র সিং ধোনির কোনও পরিবর্ত এই মুহূর্তে আমাদের হাতে নেই। কিন্তু, যুবরাজের জায়গা নেওয়ার জন্য় আমাদের হাতে একাধিক ক্রিকেটার রয়েছে।

বোর্ডের ওই আধিকারিকের এই বক্তব্য় শোনার পর, ক্রিকেট সমালোচকরা মেনে নিয়েছেন, বয়সের ভারে ছন্দ হারানো যুবরাজ প্রায় জোর করেই খেলা চালিয়ে যাচ্ছিলেন। তাঁর মতো একজন তারকা ক্রিকেটার এভাবে দল থেকে বাদ পড়ে অপমানিত হওয়ার চেয়ে অনেক আগেই অবসর নিয়ে নিতে পারতেন যুবী।

উল্লেখ্য়, ২০০০ সালের ৩ অক্টোবর একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়ে যুবরাজ সিংয়ের। ভারতের হয়ে শেষ আন্তর্জাতিক ম্য়াচ চলতি বছরের ৩০ জুন। টেস্টের আসরে অভিষেক ২০০৩ সালে নিউজিল্য়ান্ডের বিরুদ্ধে ১৬ অক্টোবর। ভারতের হয়ে শেষবার সাদা জার্সি গায়ে চাপিয়েছেন ৯ ডিসেম্বর ২০১২তে ইংল্য়ান্ডের বিরুদ্ধে। ৪০টি টেস্টে তিনটি শতরান ও ১১টি অর্ধশতরানসহ যুবীর সংগ্রহ ১৯০০ রান। গড় ৩৩.৯২। ৩০৪টি ওয়ান-ডে ম্য়াচে যুবী করেছেন ৮৭০১ রান। গড় ৩৬.৫৪। ১৪টি সেঞ্চুরি ও ৫২টি হাফ-সেঞ্চুরি রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। টি-২০ ক্রিকেট ৫৮টি ম্য়াচ খেলেছেন ভারতের হয়ে। রান ১১৭৭। গড় ২৮.০২। টেস্ট ক্রিকেটসহ তিন ধরনের ক্রিকেটে যুবীর উইকেট সংখ্য়া যথাক্রমে ৯, ১১১ ও ২৮টি।

  • SHARE
    A sports enthusiast and a critic. Journalism is all about being unbiased to create positive influence from negative angle.

    আরও পড়ুন

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ
    বিশ্ব ক্রিকেটে এই মুহুর্তে তাদের মধ্যে চলছে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই। তা সত্ত্বেও এই দুজনের মধ্যে একে অপরকে সম্মান...

    তৃতীয় টি২০তে এই তারকার খেলা নিয়ে সন্দেহ

    পিটিআইয়ের একটি রিপোর্টের মোতাবিক তৃতীয় এবং ফাইনাল ওয়ান ডেতে জসপ্রীত বুমরাহের অংশ নেওয়া এখনও সন্দেহজন অবস্থায় রয়েছে।...

    বিশ্বকাপে ভারতীয় স্পিন বিভাগে কারা খেলবেন মুখ খুলনে নির্বাচক প্রধান

    বিশ্বকাপে ভারতীয় স্পিন বিভাগে কারা খেলবেন মুখ খুলনে নির্বাচক প্রধান
    ২০১৯ বিশ্বকাপের বাকি আর মাত্র দেড় বছর। তার আগে গত ২ বছর ধরেই দুরন্ত ফর্মে রয়েছে ভারতীয়...

    অনুষ্কাকে যাবতীয় কৃতিত্ব দিয়ে অবসর নিয়ে মুখ খুললেন কোহলি

    অনুষ্কাকে যাবতীয় কৃতিত্ব দিয়ে অবসর নিয়ে মুখ খুললেন কোহলি
    তার ব্যাটিং প্রতিভা নিয়ে সন্দেহ নেই কারও। সকলেই একবাক্যে স্বীকার করে নিয়েছেন যে তিনি ব্যাটিংয়ের জিনিয়াস। তামাম...

    প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে সদ্য সমাপ্ত একদিনের সিরিজে যে যে রেকর্ড গড়লেন ভারত অধিনায়ক বিরাট

    তার শ্রেষ্ঠত্ব মেনে নিয়েছে ক্রিকেট বিশ্বের সকলেই। বিশ্বের সর্বকালের সেরা একদিনের ক্রিকেটার হিসেবে তাকে মেনেও নিয়েছেন সকলে।...