অবসর নেওয়ার পর চাঞ্চল্যকর মন্তব্য যুবরাজের, অবসরের কারণ নিয়ে বোর্ডের বিরুদ্ধে বয়ান

ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অলরাউন্ডার যুবরাজ সিং ১০ জুন নিজের ক্রিকেট কেরিয়ারকে বিদায় জানিয়েছিলেন। যুবরাজের এই সিদ্ধান্তে সকলেই অবাক হয়ে গিয়েছিলেন। যদিও এখন একটি টিভি চ্যানেলকে দেওয়া ইন্টারভিউতে যুবিকে ৩ মাস ধরে জমে থাকা নিরবতাকে ভাঙতে দেখা গেছে। যুবরাজ ওই ইন্টারভিউ চলাকালীন বলেন আমি নিজের ক্ষমতায় ক্রিকেটব খেলেছি, আমার কখোনো কার সুপারিশের প্রয়োজন হয়নি। সেই সঙ্গেই তিনি সমসয় এলে সবকিছু খুলে বলার কথাও বলেছেন।

মাঠ থেকে বিদায় না পাওয়া নিয়ে যুবরাজের কোনো আফসোস নেই

অবসর নেওয়ার পর চাঞ্চল্যকর মন্তব্য যুবরাজের, অবসরের কারণ নিয়ে বোর্ডের বিরুদ্ধে বয়ান 1

যুবরাজ সিং মাঠ থেকে বিদায় না পাওয়া নিয়ে বলেন,

“আমি নিজের দমে ক্রিকেট খেলেছি। কারো সুপারিশে আগে এগোয়নি। অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত কড়া ছিল, কিন্তু প্রত্যেক ক্রিকেটারের জীবনে এই মুহূর্ত আসে। আমি মাথা উঁচু করে অবসর নিয়েছি। মাঠ যদি যদি বিদায় নিত তো অবশ্যই ভাল হত, কিন্তু এটা সম্ভব হয়নি। যখন জাহির খান আর বীরেন্দ্র সেহবাগের মত তারকা খেলোয়াড়দের মাঠ থেকে বিদায় দেওয়া হয়নি তো ওদের সামনে আমার পরিসংখ্যান কিছুই না। আমার ওদের জন্য বেশি খারাপ লাগে কারণ ওরা মাঠ থেকে বিদায় নেওয়ার দাবীদার ছিলেন”।

বিশ্বকাপে সিলেক্ট না হওয়ায় একে করলেন দায়ী

অবসর নেওয়ার পর চাঞ্চল্যকর মন্তব্য যুবরাজের, অবসরের কারণ নিয়ে বোর্ডের বিরুদ্ধে বয়ান 2

বিশ্বকাপের আগে যুবরাজ সিনগ্যের ফিটনেসের উপর প্রশ্ন তোলা হচ্ছিল। যারপর যুবরাজ নিজের ফিটনেস দেখানোর জন্য ইয়ো ইয়ো টেস্টও পাশ করে ফেলেছিলেন। তাও তাকে দলে নেওয়া হয়নি। যা নিয়ে যুবরাজ বলেন,

“যে আপনি যদি জানতে চান তো আমাকে কেন দলে নেওয়া হয়নি তো অধিনায়ক আর নির্বাচকদের প্রশ্ন করুন যে কেন শেষমেশ আমাকে দলে শামিল করা হয়নি। কারণ এই প্রশ্নের জবাব আমার কাছে নেই। আমি যতটুকুই ক্রিকেট খেলেছি নিজের দমে খেলেছি”।

খেলোয়াড়দের সঙ্গে হচ্ছে খারাপ ব্যবহার

অবসর নেওয়ার পর চাঞ্চল্যকর মন্তব্য যুবরাজের, অবসরের কারণ নিয়ে বোর্ডের বিরুদ্ধে বয়ান 3

যুবরাজ সিং নিজের জীবনের সঙ্গে যুক্ত একটি আফসোসের খোলসা করেছেন। তিনি বলেন,

“আমার এই বিষয়ে আফসোস অবশ্যই রয়েছে যে খেলোয়াড়দের সঙ্গে ভাল ব্যবহার হয়নি। যখন আমি প্রত্যাবর্তন করেছি তো ৪ বা ৫টি ম্যাচে প্রায় ৮—রান করেছি। তাও আমাকে দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। এরপর আপনারা এক বছর পর্যন্ত আম্বাতি রায়ডুকে চার নম্বরে খেলিয়েছেন। বিশ্বকাপের আগে ও একটা সফরে ভাল প্রদর্শন করতে পারেনি তো তাকেও দল থেকে বাইরের রাস্তা দেখিয়ে দেওয়া হয়েছে। তারপর আপনারা ওপেনার কেএল রাহুল, দীনেশ কার্তিককে সুযোগ দিয়েছেন। কার্তিক কিছু ম্যাচে ভাল প্রদর্শন করেননি তো ওকে সরিয়ে ঋষভ পন্থকে সুযোগ দিয়ে দিয়েছেন। আমি বুঝতে পারিনা যে টিম ম্যানেজমেন্ট কি চায়। খেলোয়াড়দের সঞগে এই ধরণের ব্যবহার একদমই ভাল নয়। এতে তার আত্মবিশ্বাস নড়বড়ে হয়ে যায়। চার নম্বরের ব্যাটসম্যান প্রধান মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হয়। যদি দু উইকেট দ্রুত পরে যায় তো পার্টনারশিপ করে সে দলের পরিস্থিতিকে সামলায়। বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের চার নম্বরের সর্বশ্রেষ্ঠ স্কোর ছিল ৪৮।”

সঠিক সময় এলে যুবরাজ করবেন খোলসা

গৌতম গম্ভীরের পর এবার রাজনীতিতে আসছেন যুবরাজ, এই দলের হয়ে নামবেন ভোটে

যুবরাজ সিং নিজের স্টাইলিশ ক্রিকেটের জন্য পুরো বিশ্বে জনপ্রিয়। তার হঠাত করে অবসর নেওয়া সকলকেই দুঃখ দিয়েছে। নিজের জীবনের সঙ্গ যুক্ত কথা খোলসা করা নিয়ে যুবরাজ বলেন,

“আমি এখনো সিদ্ধান্ত নিই নি যে কিভাবে খোলসা করব। আমি পার্সোনাল লেভেলে কারো সমালোচনা করতেও চাইনা। কিন্তু বেশ কিছু এমন গড়বড় রয়েছে যা প্রশ্ন অবশ্যই তুলে দেয়। যখন সঠিক সময় হবে তো খোলাখুলি নিজের কথা সামনে রাখব সকলের”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *