যুবরাজকে দলে নেবার পিছনে আসল কারণটি ফাঁস করে দিলেন  নির্বাচক মণ্ডলী 1

মুম্বই, ৭ জানুয়ারি: জাতীয় দলের জার্সি গায়ে শেষবার খেলেছেন গত বছরের ২৭ মার্চ। মোহালিতে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টি-২০ ম্যাচটিতে ১৮ বলে ২১ রান করলেও, পরবর্তী সময়ে নির্বাচকদের আর মন কাড়তে পারেননি। নয় মাস দলের বাইরে ছিলেন বিশ্বকাপজয়ী এই অলরাউন্ডার। সম্প্রতি রঞ্জি ট্রফিতে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন যুবরাজ। বরোদার বিরুদ্ধে পাঞ্জাবের হয়ে ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন। খেলেছেন ২৬০ রানের মহাকাব্যিক ইনিংস। শেষ ম্যাচে উত্তরপ্রদেশের বিরুদ্ধে ৮৫ রানের ইনিংস রয়েছে তার। রঞ্চি ট্রফিতে ভাল খেলার ফলটা পেয়েছেন হাতে-নাতেই। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-২০, দুটি দলেই ডাক পেয়েছেন এই অলরাউন্ডার।

এর মধ্যেও অনেকেই মনে করছেন, যুবরাজের জায়গায় কোন তরুণ ক্রিকেটারকে সুযোগ করে দিলে ভাল কাজ করতেন নির্বাচক’রা। তবে নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদ সটান জানিয়ে দিচ্ছেন, ঘরোয়া ক্রিকেটে ভাল খেলার পুরস্কার হিসেবে ইংল্যান্ড সিরিজে জায়গা করে দেওয়া হয়েছে যুবিকে। সেই ইঙ্গিত দিয়েই তিনি বলে দেন, ‘ঘরোয়া ক্রিকেটে যুবরাজ যা খেলেছে তার তারিফ করতেই হবে। দুর্দান্ত সব ইনিংস খেলেছে ও। একটা ডাবল সেঞ্চুরি, তারপর লাহলির কঠিন উইকেটে ১৮০ রান। আমরা এগুলিকে নজরে রেখেই ওকে দলে সুযোগ করে দিয়েছি।’

মহেন্দ্র সিং ধোনি অধিনায়কত্ব ছাড়লেও, এখনও তাঁর প্রচুর দায়িত্ব রয়ে গিয়েছে। এমএসকে প্রসাদের মতে, দলে প্রচুর জুনিয়র ক্রিকেটার রয়েছে। এদের ‘দেখভাল’ করার দায়িত্ব বর্তাচ্ছে ধোনির ওপরই। নির্বাচক প্রধান বলেন, ‘দলের জুনিয়রদের গড়ে তোলার জন্য ধোনিই আদর্শ লোক। ধোনির নেতৃত্ব ছাড়া না ছাড়া বড় ব্যাপার নয়। মাঠে ও সবসময়ই নেতা।’

এরই সঙ্গে ধোনির অবসর প্রসঙ্গে প্রসাদ আরও যোগ করেন, ‘নাগপুরে ঝাড়খন্ড ম্যাচে যে চারটি দিন আমি ছিলাম, দেখেছি ধোনি দলের সঙ্গে জুড়ে ছিল। একেবারে শেষ দিন ও আমাকে এবং বিসিসিআইকে নিজের অধিনায়কত্ব ছাড়ার কথাটা জানিয়েছে।’ ইংল্যান্ড সিরিজের জন্য দল নিয়ে তিনি বলেন, ‘সেরা ফলাফল পাওয়ার জন্য আমরা সেরা দলটা গড়ার চেষ্টা করেছি।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *