ভিডিয়ো: ধোনির এই ব্রহ্মাস্তের মাধ্যমে, আইপিএল ২০১৯ এ বিস্ফোরণ ঘটাতে তৈরি যুবরাজ সিং

যুবরাজ সিংকে আইপিএল ২০১৯ এর নিলানে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স দল ১ কোটি টাকায় কেনে। জানিয়ে দিই যে আইপিএল ২০১৯ এর নিলামের প্রথম রাউন্ডে যুবরাজ সিং আনসোল্ড থেকে গিয়েছিলেন কিন্তু দ্বিতীয়বারের নিলামে তাকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স তার বেস প্রাইস ১ কোটি টাকায় কিনে নেয়। জানিয়ে দিই যে আইপিএল ২০১৮য় যুবরাজ সিং কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে খেলেছিলেন, কিন্তু কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব দল আইপিএল ২০১৯ এর নিলামের আগে তাকে রিলিজ করে দিয়েছিল।

আইপিএল ২০১৯ এর জন্য যুবরাজ শিখছেন হেলিকপ্টার শট

ভিডিয়ো: ধোনির এই ব্রহ্মাস্তের মাধ্যমে, আইপিএল ২০১৯ এ বিস্ফোরণ ঘটাতে তৈরি যুবরাজ সিং 1

আইপিএল ২০১৯ এ বিস্ফোরণ ঘটানোর জন্য যুবরাজ সিং হেলিপক্টার শট শিখছেন। তার হেলিকপ্টার শট শেখার ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় দ্রুত ভাইরাল হয়ে যায়। জানিয়ে দিই যে এই ভিডিয়োতে সিক্সার কিং হিসেবে পরিচিত যুবরাজ নিজের বন্ধু এমএস ধোনির মত হেলিকপ্টার শট মারার প্র্যাকটিস করছেন। ক্রিকেটের অন্য ধরণের শটস তো বেশ কিছু আন্তর্জাতিক খেলোয়াড়কে খেলতে দেখা যায় কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ‘হেলিকপ্টার শট’ এমন এক শট যার উৎপত্তি স্বয়ং ভারতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি করেছেন। অন্যদিকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তিনিই একমাত্র এমন খেলোয়াড় যাকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এই শট খেলতে দেখা যায়। যদিও আইপিএল ২০১৯এ এখন যুবরাজ সিংও এই শট খেলার মন বানিয়ে ফেলেছেন।

এখানে দেখুন ‘হেলিকপ্টার শট’ মারার ভিডিয়ো

ভিডিয়ো: ধোনির এই ব্রহ্মাস্তের মাধ্যমে, আইপিএল ২০১৯ এ বিস্ফোরণ ঘটাতে তৈরি যুবরাজ সিং 2

আপনি এই ভিডিয়োতে পরিস্কার দেখতে পারেন যে কিভাবে আইপিএল ২০১৯এর আগে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের ব্যাটসম্যান যুবরাজ সিং ‘হেলিকপ্টার শট’ খেলার প্রয়াস করছেন। যেমন ক্রিকেটের ভগবান বলে পরিচিত শচীন তেন্ডুলকরের পছন্দের শট স্ট্রেট ড্রাইভ ছিল, সৌরভ গাঙ্গুলীর ছিল কভার ড্রাইভ আর রাহুল দ্রাবিড়ের ফ্লিক শট ছিল তেমনই ভারতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির পছন্দের শট হল ‘হেলিকপ্টার শট’।

ভিডিয়ো: ধোনির এই ব্রহ্মাস্তের মাধ্যমে, আইপিএল ২০১৯ এ বিস্ফোরণ ঘটাতে তৈরি যুবরাজ সিং 3

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *