ইরফান পাঠান জানালেন গত দশকের ৩ খেলোয়াড়ের নাম, যারা সহজেই পাশ করে নিতেন ইয়ো ইয়ো টেস্ট

এই মুহূর্তে ক্রিকেট খেলাই হোক বা অন্য কোনো খেলা, প্রত্যেকেরই ফিটনেসের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। ২০১৭ থেকে ভারতীয় ক্রিকেট দলে ইয়ো ইয়ো টেস্ট কম্পালসারি করে দেওয়া হয়েছে। যাতে খেলোয়াড়দের ফিটনেস উন্নত থাকে। এর মধ্যে প্রাক্তন অলরাউন্ডার ইরফান পাঠান গত দশকের সেই ৩জন খেলোয়াড়ের নাম জানিয়েছেন যারা ইয়ো ইয়ো টেস্ট পাশ করতে পারতেন।

গত দশকে ৩ খেলোয়াড় পাশ করতে পারতেন ইয়ো ইয়ো টেস্ট

বর্তমান সময়ে ভারতীয় ক্রিকেট দলে খেলার জন্য সমস্ত খেলোয়াড়দের ইয়ো ইয়ো টেস্ট পাশ করতে হয়। এতে ব্যর্থ হওয়া খেলোয়াড়দের দলে শামিল করা হয় না। তবে এর শুরু ২০১৭ থেকে হয়েছিল। এর আগে খেলোয়াড়দের ফিটনেসের জন্য এমন টেস্ট দিতে হত না। এখন রোড সেফটি লীগে ইন্ডিয়া লিজেন্ডসের হয়ে খেলা ইরফান পাঠান ফার্স্টপোষ্টকে একটি ইন্টারভিউ দিয়েছেন। তাতে তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল যে গত দশকে কোন তিনজন খেলোয়াড় সহজেই ইয়ো ইয়ো টেস্ট পাশ করে ফেলতেন। এর জবাবে দিয়ে ইরাফান, শচীন তেন্ডুলকর আর মহম্মদ কাইফের নাম নিয়েছেন আর তৃতীয় নম্বরে নিজেকেই রেখেছেন। পাঠানের মতে শচীন ফিটনেস নিয়ে প্যাশনেট ছিলেন, অন্যদিকে মহম্মদ কাফি উইকেটের মধ্যে যথেষ্ট দ্রুতগতিতে দৌড়তেন। এই কারণে সেই সময় তার নাম বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুতগতির ফিল্ডারদের তালিকায় শামিল ছিল।

২০১৭ থেকে শুরু হয়েছে ইয়ো ইয়ো টেস্ট

ইরফান পাঠান জানালেন গত দশকের ৩ খেলোয়াড়ের নাম, যারা সহজেই পাশ করে নিতেন ইয়ো ইয়ো টেস্ট 1

২০১৭য় খেলা হওয়া চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আগে টিম ইন্ডিয়ায় ইয়ো ইয়ো টেস্টকে কম্পালসারি করে দেওয়া হয়েছিল। এই টেস্ট ভারতীয় দলে জায়গা পাওয়ার একটা প্রক্রিয়া। আপনাদের জানিয়ে দিই যে ভারতের প্রাক্তন শ্রেষ্ঠ বোলার অনিল কুম্বলে নিজের কোচিংয়ের কার্যকালে সবার আগে এই টেস্টকে খেলোয়াড়দের জন্য ম্যাণ্ডাটরি করেছিলেন। তবে এখন ভারতীয় ক্রিকেট দলে ইয়ো ইয়ো টেস্ট সম্পর্কিত খবর সামনে আসে না, যে কারণে বলা যেতে পারে যে সম্ভবত এখন ইয়ো ইয়ো টেস্ট ম্যান্ডাটরি নয়।

বিরাটের কাছে নেই শচীনের মতো ধৈর্য্য

ইরফান পাঠান জানালেন গত দশকের ৩ খেলোয়াড়ের নাম, যারা সহজেই পাশ করে নিতেন ইয়ো ইয়ো টেস্ট 2

ফার্স্টপোষ্টকে দেওয়া ইন্টারভিউতে যখন ইরফানকে প্রশ্ন করা হয় যে এমন কী রয়েছে যা শচীন তেন্ডুলকরের কাছে রয়েছে আর বিরাট কোহলির কাছে নেই, আর এমন কী রয়েছে যা বিরাট কোহলির কাছে রয়েছে আর শচীন তেন্ডুলকরের কাছে নেই? এটা নিয়ে জবাব দিতে গিয়ে ইরফান বলেন যে বিরাটকের কাছে শচীনের মতো ধৈর্য্য নেই কিন্তু শচীন সেই ব্যক্তি যারকাছে সবকিছু রয়েছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *