সুনীল গাভাস্কার জানালেন কেনও হঠাত করে ধোনি নিয়েছেন অবসর

১৫ আগষ্ট স্বাধীনতা দিবসের বিশেষ দিনে মহেন্দ্র সিং ধোনি হঠাত করেই অবস্রের ঘোষণা করে সকলকে অবাক করে দিয়েছেন। তিনি গত এক বছর ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে দূরে ছিলেন, কিন্তু মাহির হঠাত অবসর ঘোষণা করে একদিকে তাঁর সমর্থকদের তাকে দ্বিতীয়বার টিম ইন্ডিয়ার জার্সি পড়ে খেলতে দেখার স্বপ্ন ভেঙে দিয়েছেন। অন্যদিকে এই প্রশ্নও খাড়া হয়ে গিয়েছে যে হঠাত করে মাহী অবসর কেনও নিলেন?

ভারতকে জেতাতে চেয়েছিলেন টি-২০ বিশ্বকাপ

সুনীল গাভাস্কার জানালেন কেনও হঠাত করে ধোনি নিয়েছেন অবসর 1

মহেন্দ্র সিং ধোনি শনিবার যখন হঠাত করে অবসর নেন তো নিরাশার পাশাপাশি এই প্রশ্নও চলে এসেছে যে মাহি হঠাত করে এত বড়ো সিদ্ধান্ত কেনও নিলেন? এখন সুনীল গাভাস্কার ইন্ডিয়া টুডের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে বলেছেন যে,

“ধোনি নিশ্চিতভাবে এটা জানতে চাইছিলেন যে আইপিএলে তিনি কেমন প্রদর্শন করেন। তিনি এরপরই পরিমাপ করতেন যে তিনি বিশ্বকাপ খেলবেন কি না। যেহেতু করোনা ভাইরাসের কারণে আইপিএল এগিয়ে গিয়েছে, সেই সঙ্গে টি-২০ বিশ্বকাপও এই বছর না হয়ে ২০২২ পর্যন্ত স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে, তো এই কারণে ধোনি ভেবেছেন যে এখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সঙ্গে যুক্ত হওয়া উচিৎ নয় আর অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যদি বিশ্বকাপ এই বছর হতো তো এই বিষয়ে পুরো সম্ভবনা ছিল যে তিনি এতে খেলবেন।

করোনা ভাইরাসের কারণে স্থগিত হয়েছে কার্যক্রম

সুনীল গাভাস্কার জানালেন কেনও হঠাত করে ধোনি নিয়েছেন অবসর 2

বিশ্বজুড়ে আগুনের মতো ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের কাআরণে ক্রিকেট কার্যক্রম দারুণভাবে প্রভাবিত হয়েছে। ২৯ মার্চ থেকে শুরু হতে চলা আইপিএল ২০২০ দীর্ঘ সময় ধরে স্থগিত হওয়ার পর ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে ইউএইতে খেয়া হবে। এছড়াও অস্ট্রেলিয়ার আয়োজনে খেলা হতে চলা টি-২০ বিশ্বকাপ ২০২০ ও স্থগিত হয়ে গিয়েছে। এখন এই মেগা ইভেন্ট ২০২১ এর অক্টোবর নভেম্বর মাসে ভারতে আয়োজন করা হবে। এরপর ২০২২ টি-২০ বিশ্বকাপের আয়োজন অস্ট্রেলিয়ায় হবে। এই অবস্থায় এখন মাহীর টি-২০ বিশ্বকাপ পর্যন্ত অপেক্ষা করা মুশকিল ছিল, এই কারণে সম্ভবত তিনি নিজের ১৭ বছরের ক্রিকেট কেরিয়ারকে বিদায় জানিয়ে দিয়েছেন।

আগেও সিদ্ধান্ত নিয়ে করেছেন অবাক

সুনীল গাভাস্কার জানালেন কেনও হঠাত করে ধোনি নিয়েছেন অবসর 3

এমএস ধোনি আগেও বেশ কয়েকবার নিজের সিদ্ধান্ত সকলকে চমকে দিয়েছেন আর শনিবার হঠাত করে নিজের অবসরের ঘোষণা করে মাহি আরও একবার প্রমাণ করে দিয়েছেন যে তিনি আনপ্রেডিক্টেবল। কোনো আন্দাজ করা যাবে না যে এমএস কখন কী ভাবছেন আর কী করছেন। ২০১৪য় অস্ট্রেলিয়া সফরের তৃতীয় টেস্ট ম্যাচের পর মাহি হঠাত করে টেস্ট থেকে অবসর নিয়েছিলেন আর ২০১৭তেও মাহির অধিনায়কত্বও ছেড়ে দিয়েছিলেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *