রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের ব্রিগেডে কে এই রহস্যময়ী মহিলা? জেনে নিন তার পরিচয় 1

গতকাল মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে সুপার ওভারে হারিয়ে এবারের আইপিএল এ নিজেদের দ্বিতীয় জয় হাসিল করে নিল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। সুপার ওভারে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে মাত্র আট রানে সীমিত রেখে প্রয়োজনীয় নয় রান তুলে জয় তুলে নেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি এবং এবি ডিভিলিয়ার্স। আর সেই জয় উপলক্ষ্যে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর ডাগআউটে চলছিল উৎসব।

RCB vs MI Highlights, IPL 2020 Match Today: Royal Challengers Bangalore beat Mumbai Indians in Super Over - cricket - Hindustan Times

এরই মাঝে আরসিবির গোটা দলের মাঝে দেখা যায় এক মহিলাকে, যিনি সকলের সাথে করমর্দন করছিলেন। আর তারপরই দর্শকদের মধ্যে প্রশ্ন জেগে উঠল, কে এই মহিলা? কি ভূমিকা রয়েছে তার রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর টিম ম্যানেজমেন্টে? একাধিক প্রশ্ন মাথা চাড়া দিয়ে বেড়িয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। অনেকে খোঁজও লাগিয়ে দিয়েছেন তার জন্য। আসুন জেনে নিই, কে এই রহস্যময়ী মহিলা স্টাফ?

Navina Gautam RCB

ইনি আদতে অন্য কেউ নন, এনার নাম নবনীতা গৌতম। ইনি রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর দলের ম্যাসাজ থেরাপিস্ট। সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর মত ঘর্মাক্ত দেশে পেশি ও শরীরের প্রতিটি অঙ্গে অনেকটাই চাপ পড়ে, যেহেতু ঘামের জন্য শরীর থেকে অনেকটাই জল বেরিয়ে যায়। এমন অবস্থায় খেলোয়াড়দের প্রয়োজনীয় ফিসিওথেরাপি এবং ম্যাসাজের অত্যন্ত জরুরি। আর সেই মহৎ কাজেই দলের সাথে যুক্ত রয়েছেন নবনীতা।

Navnita Gautam

 

গত অক্টোবর মাসে নিজেদের ম্যাসাজ থেরাপিস্ট হিসেবে নবনীতা গৌতমকে নিযুক্ত করেছিল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। আর এই নিয়োগের সাথেই হেডলাইন কেড়ে নিয়েছিল বেঙ্গালুরুর এই আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি। কারণ আইপিএল এর ১৩ বছরের ইতিহাসে নবনীতা গৌতম হলেন তৃতীয় মহিলা সাপোর্ট স্টাফ, যিনি আইপিএল এর কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজিতে যুক্ত হয়েছেন। এর আগে একমাত্র ডেকান চার্জার্স (বর্তমানে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ) নিজেদের ম্যাসাজ থেরাপিস্ট হিসেবে নিযুক্ত করেছিল অ্যাশলে জোয়েস এবং প্যাট্রিসিয়া জেনকিন্সকে।

View this post on Instagram

#navnitagautam #playbold #rcb

A post shared by navnita gautam (@navnita_gautam) on

গতকাল দুর্ধর্ষ ম্যাচে শুরুতে ব্যাট করে ডিভিলিয়ার্স ও দেবদূত পাড্ডিক্কালের দুরন্ত অর্ধশতরানের জেরে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর তুলেছিল ২০১/৩। জবাবে শুরুতে ধুঁকতে থাকা মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে ম্যাচে ফিরিয়ে এনেছিলেন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ঈষান কিষান এবং কাইরন পোলার্ড। মাত্র এক রানের জন্য নিজের শতরান হাতছাড়া করেন কিষান, অন্যদিকে দুর্ধর্ষ ব্যাটিং করে ম্যাচটিকে সুপার ওভারে নিয়ে যান পোলার্ড। সুপার ওভারে নভদীপ সাইনির বলে মাত্র আট রান করতে পারেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে ব্যাটে নামা হার্দিক পান্ডিয়া – কাইরন পোলার্ড ও রোহিত শর্মা। জবাবে জসপ্রীত বুমরাহের দুরন্ত বোলিং সত্ত্বেও নয় রান করে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরকে ম্যাচ জেতান বিরাট কোহলি ও এবি ডিভিলিয়ার্স।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *