বর্তমান যুগের সেরা তিন কোচ কারা? দেখুন পরিসংখ্যান 1

ক্রিকেটের খেলায় দলের ১১ জন খেলোয়াড় মাঠে পারফর্ম করেন। তবে তার পেছনে রয়েছেন কোচিং স্টাফ, যারা তাদের খেলার ত্রুটিগুলি দূর করতে এবং তাঁদের আস্থা জাগ্রত করেন। যে কোনও দলকে সফল করতে খেলোয়াড়রা যেমন গুরুত্বপূর্ণ তেমনি কোচেরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। যখনই বিশ্বজুড়ে দলগুলি ট্রফি জিতেছে, কোচ এতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। এদিকে ভারতীয় ক্রিকেট দলের কথা বলতে গেলে লালচাঁদ রাজপুত এবং গ্যারি কার্স্টেনের কোচিংয়ের অধীনে ২০০৭ সালের টি- ২০ বিশ্বকাপ এবং ২০১১ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত। বর্তমানে তিনজন কোচ রয়েছেন, যারা তাদের দলের সাফল্যে মূল্যবান অবদান রেখেছেন, যার মধ্যে ভারতীয় কোচ রবি শাস্ত্রী, ইংল্যান্ডের ক্রিস সিলভারউড এবং অস্ট্রেলিয়ার জাস্টিন ল্যাঙ্গারের নাম রয়েছে।

বর্তমান যুগের সেরা তিন কোচ কারা? দেখুন পরিসংখ্যান 2
রবি শাস্ত্রী: আইসিসি চ্যাম্পিয়নশিপ ২০১৭ সালে ভারতের হারের পরে যখন অনিল কুম্বলে ভারতীয় দলের কোচ থেকে পদত্যাগ করেছিলেন, এর পরে ভারতীয় বোর্ড রবি শাস্ত্রীর হাতে টিম ইন্ডিয়া কোচিংয়ের দায়িত্ব হস্তান্তর করে। শাস্ত্রীর অধীনে ভারতীয় ক্রিকেট দল দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছে এবং দল তিনটি ফরম্যাটেই ভাল উন্নতি করছে। এর আগে তিনি ২০১৫ সালে টিম ডিরেক্টরের ভূমিকায় ছিলেন শাস্ত্রী। টিম ইন্ডিয়া রবি শাস্ত্রীর আমলে ঐতিহাসিকভাবে জয়ী হয়েছে। শাস্ত্রীই প্রথম ভারতীয় কোচ, যার কোচিংয়ে দল অস্ট্রেলিয়ায় পর পর দুই বার টেস্ট সিরিজ জিতেছিল। এর বাইরে ভারত আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালেও জায়গা করে নিয়েছে। শাস্ত্রীর কাজের দিকে নজর দিলে তাকে বিশ্বের সবচেয়ে সফল কোচদের মধ্যে গণ্য করা যেতে পারে।

বর্তমান যুগের সেরা তিন কোচ কারা? দেখুন পরিসংখ্যান 3

জাস্টিন ল্যাঙ্গার: অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি জাস্টিন ল্যাঙ্গারকে এমন এক সময়ে ক্যাঙ্গারু দলের কোচিংয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল যখন অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট দল বল টেম্পারিংয়ের বিরুদ্ধে লড়াই করছিল। এটি বলা ভুল হবে না যে ল্যাঙ্গার সেই কোচ যিনি ভেঙে পড়া অস্ট্রেলিয়ান দলকে গড়ে তুলেছিলেন। ল্যাঙ্গার কেবল দলের দায়িত্ব নেননি, আবারও দলকে শক্তিশালী করে ইংল্যান্ডে গিয়েছিলেন, যখন কোচ খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। তাঁর অধীনে থাকা দল অনেকবারই দুর্দান্ত খেলেছে, আইসিসি ইভেন্টে দলের আধিপত্য আগে দেখা যায়নি। জানুয়ারিতে, ভারতের ‘বি’ দল যখন অস্ট্রেলিয়াকে তাদের দেশে টেস্ট সিরিজে পরাজিত করেছিল, তখন জাস্টিন ল্যাঙ্গার সমালোচনার মুখোমুখি হয়েছিল এবং তার দক্ষতার বিষয়েও প্রশ্ন উঠেছিল।

Chris Silverwood - Wikipedia

ক্রিস সিলভারউড: ইংল্যান্ডের প্রাক্তন পেস বোলার ক্রিস সিলভারউড বর্তমানে ইংল্যান্ডের প্রধান কোচ। ট্রেভর বেলিস আইসিসি বিশ্বকাপ ২০১৯ শিরোপা জয়ের পরে কোচিং ছেড়েছিলেন। এরপরেই ইংলিশ বোর্ড উডের হাতে ইংল্যান্ড দলকে কোচিংয়ের দায়িত্ব দিয়েছিল। সিলভারউড আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ইংল্যান্ডের হয়ে অনেক ম্যাচ না খেলেও ঘরোয়া পর্যায়ে ইংল্যান্ডের হয়ে তিনি প্রচুর ক্রিকেট খেলেছেন। ইংল্যান্ড দল সিলভারউডের অধীনে ভালো পারফর্ম করছে। ইংল্যান্ড খেলোয়াড়দের একটি রোটেশন নীতি রয়েছে, যার সাথে ইংলিশ খেলোয়াড়রা একমত হয় না। কে সেরা? যদিও কোনও কোচকে একে অপরের সাথে তুলনা করা যায় না। তবুও যদি আমরা কোচের অর্জনের দিকে নজর রাখি তবে রবি শাস্ত্রীকে সেরা হিসাবে দেখা হবে কারণ তাঁর অধীনে টিম ইন্ডিয়া তিনটি ফর্ম্যাটেই দুর্দান্ত পারফর্ম করছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *