প্র্যাকটিস ম্যাচ জিতে ভারতকে নিয়ে এই বড়ো বয়ান দিলেন কেন উইলিয়ামসন 1

বিশ্বকাপ ২০১৯ আগামি ৩০ মে থেকে ইংল্যাণ্ডে শুরু হতে চলেছে। তার আগেই ঢাকে কাঠি পড়ে গেল বিশ্বক্রিকেটের এই মহা রণে। শনিবার বিশ্বকাপের আগেই একটি প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলা হয় খেতাবের প্রবল দাবীদার ভারত আর নিউজিল্যাণ্ডের মধ্যে। এই ম্যাচে ভারত নিউজিল্যান্ডের সামনে অসহায় আত্মসমর্পণ করে। এই ম্যাচে টিম ইন্ডিয়ার কোনো ব্যাটসম্যানই কিউরি দলের বোলিংয়ের সামনে লড়াই করতে পারেননি।

হার্দিক জাদেজার সৌজন্যে ভারত করে সম্মানজন স্কোর

প্র্যাকটিস ম্যাচ জিতে ভারতকে নিয়ে এই বড়ো বয়ান দিলেন কেন উইলিয়ামসন 2

ভারতীয় দলের শীর্ষ ব্যাটসম্যানরা এই প্র্যাকটিস ম্যাচে নিউজিল্যাণ্ডের বিরুদ্ধে সম্পুর্ণ ব্যর্থ হয়। ওপেনার রোহিত শর্মা আর শিখর ধবন দুজনেই উইকেটে টিকে থাকতে পারেনি আর মাত্র ৩ ওভারের মাঝেই দুজনেই ব্যক্তিগত ২ রান করে ট্রেন্ট বোল্টের বলে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। এরপর আসা অধিনায়ক কোহলি মাত্র ১৮ রানই করতে পারেন আর গ্র্যান্ড হোমের বলে বোল্ড হন। রাহুল (৬)কে বোল্ড করেন ট্রেন্ট বোল্ট। টিম ইন্ডিয়ার অর্ধেক দল মাত্র ১০০ রানের ভেতরেই আউট হয়ে যায়। এরপর রবীন্দ্র জাদেজা আর হার্দিক পাণ্ডিয়া লড়াকু ইনিংস খেলে দলকে সম্মানজন স্কোরে পৌঁছে দেন। যায়। জাদেজা এই ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি করেন। তার এই হাফসেঞ্চুরির সৌজন্যেই টিম ইন্ডিয়া এই ম্যাচে ১৭৯ রান পর্যন্ত পৌঁছতে সক্ষম হয়। পুরো ভারতীয় দল মাত্র ৪০ ওভারের ভেতরেই প্যাভিলিয়নে ফিরে যায়।

নিউজিল্যান্ড জেতে সহজেই

প্র্যাকটিস ম্যাচ জিতে ভারতকে নিয়ে এই বড়ো বয়ান দিলেন কেন উইলিয়ামসন 3

জবাবে ব্যাট করতে নেমে কিউয়ি দলের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন আর রস টেলরের হাফসেঞ্চুরির দৌলতে ৩৭ ওভারেই মাত্র ৪ উইকেট হারিয়ে নিউজিল্যান্ড এই লক্ষ্য হাসিল করে নেয়। যদিও জসপ্রীত বুমরাহেক নিজের মেজাজে দেখা গিয়েছে। তিনি ৪ ওভারে ২টি মেডেন সহ ২ উইকেট হাসিল করেন মাত্র ২ রান দিয়ে।

ম্যাচ শেষে কেন উইলিয়ামসন বললেন এই কথা

প্র্যাকটিস ম্যাচ জিতে ভারতকে নিয়ে এই বড়ো বয়ান দিলেন কেন উইলিয়ামসন 4

এই ম্যাচে জয়ের পর নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন বলেন,

“নতুন বলে প্রচুর সিম মুভমেন্ট ছিল আর সামান্য সুইংও হচ্ছিল। আমরা স্পিন থেকে খুব বেশি কিছু পাইনি কিন্তু আমাদের আরো একটা ওয়ার্মআপ ম্যাচ রয়েছে। উপরে সামান্য সবুজ ঘাস রয়েছে। ফলে প্রথম ইনিংসে বল দ্রুত পড়ে আসছিল আর দ্বিতীয় ইনিংসে এটা স্লো হয়ে যায়। হেনরি ভীষণই ভার্সেটাইল। আমরা ফ্লেক্সিবল হওয়ার চেষ্টা করছি কারণ আমরা জানি যে মুনরো ধ্বংসাত্মক হয়ে উঠতে পারে। ভারতের মত কোয়ালিটি দলের বিরুদ্ধে কিছু বল কাটানো সবসময়ই ভাল”

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *