ভিডিয়ো: হনুমা বিহারীর সঙ্গে রোহিত শর্মা করলেন এমন কিছু, ভাইরাল হচ্ছে ভিডিয়ো 1

ভারত আর ওয়েস্টইন্ডিজের মধ্যে অ্যাণ্টিগাতে খেলা হওয়া প্রথম টেস্ট ম্যাচের চতুর্থ দিনের খেলা রবিবার ২৫ আগস্ট খেলা হয়েছে। এই ম্যাচে ভারতীয় দল নিজেদের প্রথম ইনিংসে ২৯৭ রান করেছিল। অন্যদিকে ওয়েস্টইন্ডিজ নিজেদের প্রথম ইনিংসে ২২২ রান করেছিল। ভারত প্রথম ইনিংসের আধারে ৭৫ রানের লিড পেয়েছিল।

চতুর্থদিন হনুমা বিহারী খেলেন ৯৩ রানের দুর্দান্ত ইনিংস

ভিডিয়ো: হনুমা বিহারীর সঙ্গে রোহিত শর্মা করলেন এমন কিছু, ভাইরাল হচ্ছে ভিডিয়ো 2

ম্যাচের চতুর্থদিন তরুণ ব্যাটসম্যান হনুমা বিহারী দুর্দান্ত ব্যাটিং প্রদর্শন করেন। তিনি ৯৩ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন। অন্যদিকে অজিঙ্ক রাহানেও ১০২ রানের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করেন। ভারত নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংস ৭ উইকেট হারিয়ে ৩৪৩ রান করে সমাপ্তি ঘোষণা করে। যার ফলে ওয়েস্টইন্ডিজের সামনে ৪১৯ রানের লক্ষ্য ছিল।

রোহিত চাপড়ে দিলেন বিহারীর পিঠ

ভিডিয়ো: হনুমা বিহারীর সঙ্গে রোহিত শর্মা করলেন এমন কিছু, ভাইরাল হচ্ছে ভিডিয়ো 3

এই ম্যাচ চলাকালীন একটি ইন্টারেস্টিং ভিডিয়ো সামনে এসেছে। আসলে রোহিত শর্মা দুর্দান্ত স্পোর্টসম্যান স্পিরিটের পরিচয় দিয়ে তরুণ ব্যাটসম্যান হনুমা বিহারীর পিঠ চাপড়ে দিয়েছেন। আপনাদের জানিয়ে দিই যে এই ম্যাচে অধিনায়ক বিরাট কোহলি রোহিত শর্মাকে প্লেয়িং ইলেভেনে শামিল না করে হনুমা বিহারীকে প্লেয়িং ইলেভেনে শামিল করেছিলেন। এই অবস্থায় যখন ৯৩ রান করে হনুমা বিহারী ড্রেসিংরুমের দিকে যাচ্ছিলেন তো রোহিত শর্মার দ্বারা তাকে হাফসেঞ্চুরির শুভেচ্ছা জানানো এক দুর্দান্ত মুহূর্ত ছিল। রোহিত শর্মা এই স্পোর্টসম্যান স্পিরিটের পরিচয় দিয়ে কোথাও না কোথাও কোটি কোটি ভারতীয়দের হৃদয় জিতে নিয়েছেন। রোহিত শর্মা ভারতীয় ক্রিকেটের এক ভীষণই বড়ো খেলোয়াড়। যদিও তাও তিনি তার জায়গা টেস্ট দলের প্লেয়িং ইলেভেনে বানাতে পারছেন না। রোহিতের সমর্থকদের আশা রয়েছে যে ভারতের হয়ে ৩০ থেকে ৩ সেপ্টেম্বরের মধ্যে হতে চলা দ্বিতীয় ম্যাচে তিনি খেলবেন।

এখানে দেখুন ঘটনার ভিডিয়ো

আপনারা এই ভিডিয়োতে পরিস্কার দেখতে পারেন যে কিভাবে রোহিত শর্মা ড্রেসিংরুমের দিকে যাওয়া হনুমা বিহারীর পিঠ চাপড়ে তাকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *