ম্যাচ হেরে যাবার পর সিনিয়রদের নিয়ে অধিনায়ক কোহলি যা বললেন ... 1

ভারতের টি-২০ দলের নেতা হিসেবে প্রথম ম্যাচে ডাহা ফেল বিরাট কোহলি।টেস্টে এবং একদিনের সিরিজে ব্রিটিশদের সহজে কুপোকাৎ করে দিতে সক্ষম হলেও, তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজের প্রথম ম্যাচটাই হেরে বসলো হেভিওয়েট কোহলিবাহিনী।গ্রিন পার্কে ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগে ভারতীয় দলকে টেক্কা দিয়ে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল ইয়ন মর্গ্যানের দল।

এ ম্যাচে টিম ইংল্যান্ড যোগ্য দল হিসেবে জয় পেয়েছে বলে কোহলি জানালেও, কানপুরের ৭ উইকেটের হারটা  কিন্তু তিনি মন থেকে কোনওভাবেই মেনে নিতে পারছেন না। এবং এই হারের জন্য পরোক্ষভাবে আঙুল তুললেন দলের সিনিয়র ক্রিকেটারদের দিকে। তার মতে, সিনিয়রদের বাড়তি দায়িত্ব নিয়ে খেলা উচিত ছিল। বিশেষ করে এ্ই ধরণের ম্যাচে পারভেজ রসুল, ইউজবেন্দ্র চাহ্বলের মতো নতুনদের ওপর চাপ না বাড়িয়ে সিনিয়রদের আরও বেশি করে দায়িত্ব নিয়ে খেলার কথা জানালেন কোহলি।

বিরাটের পারফরম্যান্সের গোপন রহস্য পানীয় জল – যার দাম শুনলে আঁতকে উঠবেন!

একদিকে প্রথম ইনিংসে পরিচিত উইকেটে ব্যাট করতে নেমে ভারতীয় দলের তারকা ব্যাটসম্যানরা ইংল্যান্ড বোলারদের কাছে ধরাশায়ী হয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১৪৭ রান তুলতে সমর্থ হয়েছেন।ধোনি (৩৬), রায়না (৩৪) ছাড়া ভারতীয় দলের আর কোনও ব্যাটসম্যান বিশেষ রান তুলতে পারেননি।সেখানে পাল্টা ইনিংস খেলতে নেমে ইংরেজ ব্যাটসম্যানদের বিরুদ্ধে পোড়খাওয়া একাধিক ভারতীয় বোলাররা প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেননি।আশিষ নেহরা, জসপ্রিত বুমরাহ, সুরেশ রায়না, হার্দিক পান্ডিয়াদের মতো সিনিয়রদের উড়িয়ে দিয়ে সহজে মাত্র ৩ উইকেট হারিয়ে ১১ বল হাতে রেখে ৭ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় ইংল্যান্ড।যদিও ইংল্যান্ডদের এই জয়ের পথে কিছুটা হলেও বাধা সৃষ্টি করেছিলেন টি-২০ তে ভারতীয় দলের হয়ে প্রথম ম্যাচ খেলা পারভেজ রসুল (১টি উ্ইকেট)এবং নবাগত স্পিনার ইউজবেন্দ্র চাহ্বল (২ টি উইকেট)।

ম্যাচ শেষে কানপুরে সাংবাদিক সম্মেলনে রসুল, চাহ্বলদের মতো নতুনদের প্রশংসা করার পাশাপাশি সিনিয়রদের বাড়তি দায়িত্ব নেওয়ার কথা স্মরণ করিয়ে কোহলি বলেন, ‘সত্যি বলতে, আমার কিন্তু চাহ্বল এবং রসুলের প্রতি ভরসা ছিল।আইপিএলে চাহ্বলের সঙ্গে এক দলে খেলেছি আমি। নতুন বলেও চাহ্বল সমান দক্ষ।ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে উইকেট তুলে নেওয়ার ক্ষমতা রাখে ও। সহজে একটা ম্যাচের রঙ বদলে দিতে পারে।একইভাবে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে প্রথম টি-২০ ম্যাচে নিজের জাত চিনিয়ে দিল পারভেজ রসুল।দলের তরুণরা এভাবে ভালো খেলে এগিয়ে আসছে, এটাই দলের একটা ইতিবাচক দিক।’

একটু থেমে কোহলি আরও বলেন, ‘এই ফর্ম্যাটের ক্রিকেটে খোলা মনে খেলে নিজের সেরাটা বের করে আনতে হয়।প্রতিপক্ষ তোমাকে সর্বক্ষণ হতাশ করিয়ে দেওয়ার জন্য চেষ্টা চালাবে।আর সেটা আমরা প্রায়ই ম্যাচে দেখে থাকি।আমি মনে করি, এই মরশুমে আমরা দারুণ ক্রিকেট খেলেছি।এবং এভাবেই আরও খোলা মনে খেলে যাবো।আমাদের একটা তরুণ ব্রিগেড রয়েছে। তাদের উচিত খোলা মনে খেলে যাওয়া। সেক্ষেত্রে আমাদের সিনিয়রদের উচিত হবে তরুণ ক্রিকেটারদের ওপর থেকে চাপ কমিয়ে ম্যাচে নিজেদের আরও বেশি দায়িত্ব নিয়ে খেলা।’

প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ডকে তাদের জয়ের জন্য শুভেচ্ছা জানিয়ে ভারত নেতার আরও সংযোজন, ‘এটা মেনে নিতে হবে আজ আমরা ওদের চেয়ে ভালো খেলতে পারিনি।আমরা সব মিলিয়ে ৩০-৩৫ রান কম তুলেছিলাম।ইংল্যান্ড ব্যাটি-বোলিং দুটি বিভাগে আমাদের টেক্কা দিয়েছে।বিশেষ করে ওদের বোলার আজ অসাধারণ বোলিং করলো।হার্ড লেন্থেও উইকেট থেকে গতি এবং বাউন্স আদায় করে নিল। যার ফলে ওরা এই ম্যাচটা আমাদের হাত থেকে ছিনিয়ে নিতে সফল হল।ওরা আজ সত্যি ভালো খেলেছে।আমার মনে হয়, ভালো খেলার জন্য প্রতিপক্ষ দলকেও বাহবা দেওয়া উচিত সবার।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *