সেহবাগ বললেন, ভারত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে অবশ্যই পৌঁছবে, কিন্তু এই কারণে সতর্ক থাকার প্রয়োজন

ভারতীয় দলের খেলোয়াড়রা আইপিএলের শেষের সঙ্গেই বিশ্বকাপের দিকে তাকাতে শুরু করে দিয়েছেন। বিশ্বকাপের শুরু ৩০ মে থেকে হচ্ছে। এর জন্য ভারতীয় দলকে ট্রফি জেতার প্রবল দাবীদার মনে করা হচ্ছে। তা সত্ত্বেও দলে বেশ কিছু সমস্যাও রয়েছে। এই টুর্নামেন্টে ভারতের প্রদর্শনের ব্যাপারে বীরেন্দ্র সেহবাগ নিজের রায় জানিয়েছেন।

২০১১ আর ২০১৯ এর দলের মধ্যে জানালেন পার্থক্য

সেহবাগ বললেন, ভারত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে অবশ্যই পৌঁছবে, কিন্তু এই কারণে সতর্ক থাকার প্রয়োজন 1

বীরেন্দ্র সেহবাগ ২০১১ বিশ্বকাপ দলের অংশ ছিলেন আর তার মতে যে সেই দলে হার্দিক পাণ্ডিয়ার মত অলরাউন্ডার ছিলেন না। এই দলে তার মত দুর্দান্ত অলরাউন্ডার রয়েছে। এই ব্যাপারে তিনি ক্রিকবাজকে বলেন,

“আমি ২০১১ বিশ্বকাপ দলের অংশ ছিলাম কিন্তু আমাদের কাছে টপ অলরাউণ্ডার ছিল না, যা আজ হার্দিক পাণ্ডিয়ার রূপে বিরাট কোহলির দলের রয়েছে।আমাদের কাছে ৬ দুর্দান্ত ব্যাটসম্যান আর ৪ দুর্দান্ত বোলার রয়েছে আর ফের হার্দিকের মত অলরাউন্ডার রয়েছে”।

সতর্ক থাকারও প্রয়োজন

সেহবাগ বললেন, ভারত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে অবশ্যই পৌঁছবে, কিন্তু এই কারণে সতর্ক থাকার প্রয়োজন 2

এর সঙ্গেই বীরেন্দ্র সেহবাগ দলকে সতর্ক থাকারও পরামর্শ দিয়েছেন।ইংল্যাণ্ডে ম্যাচের শুরুতে জোরে বোলাররা সাহায় পায় আর এই কারণে সেহবাগের মতে ওপেনিং ব্যাটসম্যানদের উপর অনেক বেশি দায়িত্ব থাকতে চলেছে। তিনি বলেন,

“আমার একটা বিষয়েই চিন্তা রয়েছে যে ইংল্যাণ্ডে বেশ কিছু বল সামলে খেলতে হবে। এই কারণে রোহিত শর্মা, শিখর ধবন আর বিরাট কোহলি মিলে নতুন বল বার করে দিলে তো আমরা বিশ্বকাপ জিততে পারি”।

সেমিফাইনাল অবশ্যই খেলব

সেহবাগ বললেন, ভারত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে অবশ্যই পৌঁছবে, কিন্তু এই কারণে সতর্ক থাকার প্রয়োজন 3

ভারতীয় দলকে বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ দক্ষিণ আফ্রিকা আর তার পর অস্ট্রেলিয়া,নিউজিল্যাণ্ড আর পাকিস্তানের সঙ্গে খেলতে হবে। বীরেন্দ্র সেহবাগের মতে দলকে এই ম্যাচগুলিতে ভাল প্রদর্শন করতে হবে আর এমনটা করলে দল সেমিফাইনাল অবশ্যই খেলবে। তিনি বলেন,

“প্রথম চার ম্যাচই দুর্দান্ত ম্যাচ। এর মধ্যে ভাল প্রদর্শন থাকলে আমরা অবশ্যই সেমিফাইনাল খেলব। সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়া আর ইংল্যাণ্ড সামনে না থাকলে আমরা সহজেই ফাইনালও খেলতে পারি। প্রথম একটি দুটো ম্যাচে দল সামলেন খেলুক আর তারপর কোনো চাপ ছাড়াই খোলা মনে খেলুক”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *