কোহলি-রোহিতদের খুন করার হুমকি দিলেন এই ১৯ বছরের তরুণ, কেন জেনে নিন!

এই মুহূর্তে ভারতীয় দল ওয়েস্টইন্ডিজ সফরে রয়েছে। এই ওয়েস্টইন্ডিজ সফরে ভারতীয় দলের সময় বেশ ভাল কাটছে। দারুণ ছন্দে দেখা গিয়েছে তাদের। ঘরের দলের বিরুদ্ধে তারা প্রথমে টি-২০ সিরিজে ৩-০ ফলাফলে ক্লীন সুইপ করে, তারপর ওয়ানডে সিরিজেও তারা ২-০ ফলাফলে জিতে নেয়। এবার প্রথম টেস্টও তারা নিজেদের দখলে করে ফেলেছে। কিন্তু এর মধ্যেই ভারতীয় দলের জন্য একটা খারাপ খবর এসেছে। বিরাট রোহিত শর্মাদের মাঠের বাইরে খুনের হুমকি তাড়া করে বেড়াচ্ছে।

পাকিস্তান দিয়েছিল হত্যার হুমকির তথ্য, ফের নতুন হুমকি

কোহলি-রোহিতদের খুন করার হুমকি দিলেন এই ১৯ বছরের তরুণ, কেন জেনে নিন! 1

সম্প্রতি কিছুদিন আগেই আগেই কোহলি-রোহিতদের ওপর সম্ভাব্য জঙ্গি হামলার গোপন তথ্য ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে (বিসিসিআই) দিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। সে তথ্যের ভিত্তিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজে ভারতের ভারতের নিরাপত্তা বাড়িয়ে দেয়া হয়ছে কয়েক গুন। এবার সে ঘটনার রেশ কাটার আগেই নতুন করে হুমকি পেলেন কোহলি-রোহিতরা।

১৯ বছরের তরুণ দিল গোটা ভারতীয় দলকে খুন করার হুমকি

কোহলি-রোহিতদের খুন করার হুমকি দিলেন এই ১৯ বছরের তরুণ, কেন জেনে নিন! 2

শুধু রোহিত আর কোহলিই নয় বরং পুরো ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সবাইকেই একসঙ্গে খুন করার হুমকি দিয়েছে এক ১৯ বছর বয়েসি তরুণ। বিসিসিআইকে করা ব্রিজমোহন দাস নামে আসামের এক ১৯ বছর বয়েসি তরুণ একটি ইমেলের মাধ্যমে ভারতীয় বোর্ডের সবাইকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে। যদিও এই মেলটিকে মোটেও হালকাভাবে নেয়নি বিসিসিআই। মেইলটি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই বিসিসিআই সেটির কথা জানায় মহারাষ্ট্র অ্যাণ্টি টেরোরিজম স্কোয়াডকে (এটিএস)। ব্রিজমোহন এই মেলটি বেনামে করেছিল কিন্তু এটিএস টির কথা জানার পরপরই উন্নত প্রযুক্তির সাহায্যে ব্রিজমোহনের সমস্ত তথ্য বার করে ফেলে। এরপরই তারা আসাম পুলিশকে ব্রিজমোহনের ব্যাপারে জানাল তারা ভারতীয় ক্রিকেটারদের হুমকি দেওয়ার অপরাধে তাকে গ্রেপ্তার করে।

অন্যান্য দেশের ক্রিকেটারদেরও দিয়েছে হুমকি

কোহলি-রোহিতদের খুন করার হুমকি দিলেন এই ১৯ বছরের তরুণ, কেন জেনে নিন! 3

এরপরই এটিএস তদন্তে নেমে জানতে পারে যে ব্রিজমোহন শুধু ভারতীয় বোর্ডকেই নয় বরং বেনামে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট বোর্ডকেও এমন উড়ো ইমেল পাঠিয়ে হুমকি দিয়েছে। ফলে এই কেসটিকে যথেষ্ট বাড়তি গুরুত্ব দিয়েই দেখছে এটিএস। ব্রিজমোহনের ব্যাপারে তদন্ত করে তারা জেনেছেন যে এই তরুণ আসলে আসামের মরিগাওয়ের শান্তিপুরের বাসিন্দা। আপাতত ব্রিজমোহনের নামে ভারতীয় দন্ডবিধির ৫০৬/২ এবং ৫০৯ ধারায় মামলা করা হয়েছে। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে ১৯৩২ সালের অপরাধী আইনের ৭ নং ধারাতেও মামলা করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার গ্রেপ্তার করা হয় ব্রিজমোহনকে। আদালতে তোলা হলে ২৬ আগস্ট পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তার ল্যাপটপ, ফোন বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ। কোনও জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে ব্রিজমোহন যুক্ত কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *