দক্ষিণ আফ্রিকা আর ইংল্যান্ডে পাওয়া হারের পর বিরাট কোহলির অধিনায়কত্বের উপর কথা বললেন অনিল কুম্বলে, ধরালেন ভুল

ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে মতোভেদের কারণে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ২০১৭র ফাইনালের পর অনিল কুম্বলে ভারতীয় দলের কোচের পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে দিয়েছিলেন। এর মধ্যে ভারতীয় দলের প্রাক্তণ কোচ কুম্বলে ভারতীয় দলের বর্তমান অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে নিয়ে একটি বিবৃতি দিয়েছেন, যেখানে তিনি বলেছেন যে বিরাট কোহলিকে এখনো নিজের অধিনায়কত্বে অনেক কিছু শিখতে হবে।

বিরাটকে এখনো নিজের অধিনায়কত্ব অনেক কিছু শিখতে হবে
দক্ষিণ আফ্রিকা আর ইংল্যান্ডে পাওয়া হারের পর বিরাট কোহলির অধিনায়কত্বের উপর কথা বললেন অনিল কুম্বলে, ধরালেন ভুল 1
অনিল কুম্বলে ক্রিকেট নেক্সটকে দেওয়া নিজের বয়ানে বলেন, “এমনটা নয় যে কোনো অধিনায়ক বা কোনো খেলোয়াড় একজন রেডিমেড অধিনায়ক বা খেলোয়াড়। আমার বলার অর্থ, যে আপনি লাগাতার শেখেন, আর আমার বিশ্বাস যে বিরাট লাগাতার দক্ষিণ আফ্রি আর ইংল্যান্ডে হওয়া নিজের সমস্ত অভিজ্ঞতা থেকে অনেক কিছু শিখে থাকবে। ওকে এখনো নিজের অধিনায়কত্বে কিছু জিনিস শিখতে হবে”।

ম্যাচ চলাকালীন গুরুত্বপূর্ণ মুহুর্ত জেতা জরুরী
দক্ষিণ আফ্রিকা আর ইংল্যান্ডে পাওয়া হারের পর বিরাট কোহলির অধিনায়কত্বের উপর কথা বললেন অনিল কুম্বলে, ধরালেন ভুল 2
অনিল কুম্বলে ক্রিকেট নেক্সটকে দেওয়া নিজের বয়ানে আগে বলেন, “আমার মনে হয় যে ম্যাচ চলাকালীন কিছু গুরুত্বপুর্ণ মুহুর্ত এমন হয় যাকে নিজের নামে করা সবসময়ই যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ হয়। যেমন ভারত ইংল্যাণ্ডে ৫-৬টি উইকেট দ্রুত নিচ্ছিল, কিন্তু তারপর টেলএন্ডার ব্যাটসম্যানরা ভারতের বোলারদের সমস্যায় ফেলছিল, এইকারণে এমন সুযোগের মুহুর্তগুলো আপনার জেতা জরুরী”।

বিশ্বাস রয়েছে, ইংল্যান্ডের অভিজ্ঞতা থেকে অনেক কিছু শিখে থাকবে
দক্ষিণ আফ্রিকা আর ইংল্যান্ডে পাওয়া হারের পর বিরাট কোহলির অধিনায়কত্বের উপর কথা বললেন অনিল কুম্বলে, ধরালেন ভুল 3
অনিল কুম্বলে ক্রিকেট নেক্সটে দেওয়া বয়ানে আগে বলেন, “ইংল্যাণ্ডে এমন অনেক কিছু হয়েছে যেখানে আমার বিশ্বাস যে বিরাট নিজের ইংল্যাণ্ডের অভিজ্ঞতা থেকে অনেক কিছু শিখে থাকবে। অস্ট্রেলিয়া দলের কাছেও নীচের দিকে ভালো ব্যাটসম্যান রয়েছে, প্যাট কমিন্স অনেকবার ভারতীউ দলের বোলারদের সমস্যা ফেলেছেন,আর স্টার্কও কিছু ম্যাচে ভারতের বিরুদ্ধে ভালো ব্যাটিং করেছে, এই কারণে ভারত অস্ট্রেলিয়ার নীচের দিকের ব্যাটসম্যানদের ক্ষমতা সম্পর্কে অবগত”।

অনিল কুম্বলে আরো বলেন, “ আমার মনে হয় যে ভারতীয় দলের অধিনায়ক এবং বোলারদের কাছে অস্ট্রেলিয়ার লোয়ার অর্ডারের জন্য ভালো রণনীতি মজুত থাকবে। নিজেদের এই ব্যাপারটাকে একজন অধিনায়ক হিসেবে ইংল্যাণ্ডে বিরাট অনুভব করেছিল।এখন আপনাকে নিজের অনুভব অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে দেখাতে হবে। এখন অধিনায়ক হিসেবে আপনি লাগাতার শেখেন, পরিস্থিতি এখন আলাদা হতে চলেছে। আমার মনে হয় যে বোলারদেরও আলাদাভাবে বোলিং করতে হবে, বিশেষ করে কোকাবুরা বলে। ২০তম ওভার থেকে ৬০তম ওভারের মধ্যে ভারতীয় ক্রিকেট দলের হয়ে চ্যালেঞ্জ থাকবে”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *