সিরিজ হারের পর বিরাট কোহলি খারাপ ফিল্ডিংয়ের দিয়েছিলেন দোহাই, এখন ধরা পড়ল অধিনায়কের মিথ্যে

ঘরের দল নিউজিল্যান্ডকে টি-২০ সিরিজে ৫-০ ক্লীন সুইপ করার পর বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন টিম ইন্ডিয়ার ওয়ানডে সিরিজে লজ্জাজনক হার হয়েছে। ভারতীয় দল ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের একটিও ম্যাচ জিততে পারেনি। ভারত হ্যামিল্টন, অকল্যান্ড আর মাউন্ট মনগুনইতে ম্যাচ হেরেছে আর ৩১ বছর পর ভারত ওয়ানডেতে ক্লীন সুইপ হয়েছে। এই হারে টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ককে যথেষ্ট ক্ষুব্ধ হতে দেখা গেছে আর তিনি তৃতীয় ওয়ানডে ম্যাচ শেষ করার পর ঈশারায় ভারতীয় দলের খেলোয়ড়দের তিরস্কার করেছেন।

বিরাট কোহলি ফিল্ডিংকে বলেছেন সবচেয়ে বড়ো হারের কারণ

সিরিজ হারের পর বিরাট কোহলি খারাপ ফিল্ডিংয়ের দিয়েছিলেন দোহাই, এখন ধরা পড়ল অধিনায়কের মিথ্যে 1

ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি তৃতীয় ওয়ানডে ম্যাচের পর পোষ্ট ম্যাচ প্রেজেন্টেশনে খেলোয়াড়দের ফিল্ডিং নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। তিনি এটাও বলেছিলেন যে ভারতের ফিল্ডিং আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের যোগ্য নয়। বিরাট কোহলি বলেন,

“আমার মনে হয় যে আমরা প্রথম ম্যাচে ভালো প্রদর্শন করেছি, কিন্তু তিনটি ম্যাচে আমাদের যেমন ফিল্ডিং থেকেছে সেটা সামান্যতমও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের যোগ্য ছিল না। আমাদের ফিল্ডিং একদমই ভালো ছিল না”।
এর সঙ্গে সঙ্গে বিরাট কোহলি বোলারদের নিয়েও প্রশ্ন তুলে বলেছিলেন যে এই সিরিজে খারাপ বোলিংয়ের কারণেই দলকে ক্লীন সুইপ হতে হয়েছে।

ধরা পড়ল বিরাটের মিথ্যে

সিরিজ হারের পর বিরাট কোহলি খারাপ ফিল্ডিংয়ের দিয়েছিলেন দোহাই, এখন ধরা পড়ল অধিনায়কের মিথ্যে 2

বিরাট কোহলি ফিল্ডিংকে হারের কারণ হিসেবে জানিয়েছিলেন। কিন্তু ভাবার মতো বিষয় হলো যে ফিল্ডিংই কি ভারতের হারের একমাত্র কারণ? পরিসংখ্যান অনুস্রে ভারতীয় দলের তুলনায় নিউজিল্যান্ড মিস ফিল্ডিংয়ে বেশি রান দিয়েছে। পরিসংখ্যান দেখলে পরিস্কার হয়ে যায় যে ভারতীয় দল এই সিরিজের পর ফিল্ডিংয়ে রান বাঁচানোর বিষয়ে +৪ ফলাফলে এগিয়ে রয়েছে অন্যদিকে নিউজিল্যান্ডের পরিসংখ্যান -৩। এই কারণে এটা প্রমান হয়ে যায় যে ফিল্ডিংই ভারতীয় দলের সবচেয়ে বড়ো হারের একমাত্র কারণ নয়।

নিউজিল্যান্ডে বিরাট কোহলির ব্যাট শান্ত

সিরিজ হারের পর বিরাট কোহলি খারাপ ফিল্ডিংয়ের দিয়েছিলেন দোহাই, এখন ধরা পড়ল অধিনায়কের মিথ্যে 3

প্রসঙ্গত বিরাট কোহলি যতই খারাপ ফিল্ডিংকে টিম ইন্ডিয়ার হারের কারণ জানান কিন্তু তার খারাপ ফর্মও এই সিরিজ হারের কারণ থেকেছে। বিরাট কোহলি এই ওয়ানডে সিরিজে মাত্র ২৫ গড়ে ৭৫ রান করেছেন। ওয়ানডে সিরিজে তার অধিনায়কত্ব আর প্রথম একাদশের সিদ্ধান্তও অদ্ভুত থেকেছে। খারাপ ফর্ম সত্ত্বেও শার্দূল ঠাকুরকে তিনটি ওয়ানডে ম্যাচেই খেলেনো হয়েছে আর তিনি ৩টি ম্যাচে ২২২ রান দিয়েছেন। টি-২০ সিরিজেও বিরাট কোহলির ব্যাট নিরব থেকেছে। তিনি মাত্র ২৬.৫ গড়ে ১০৫ রানই করেছেন। ৫ ম্যাচে বিরাটের ব্যাট থেকে একটি হাফসেঞ্চুরিও অব্ধি বেরয়নি।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *