তিনিই ক্ষমতার শীর্ষে, ফের বুঝিয়ে দিলেন বিরাট! কীভাবে তা অবশ্যই জানতে হবে 1

মুম্বই: চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে হারের পর অনিল কুম্বলে অধ্যায় এখনও ভুলতে পারেননি শচীন-সৌরভ-লক্ষ্মণরা! অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় ভারতের কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়াতে হয় জাম্বোকে। এবার তাই আর ঝুঁকি নিতে চাইছেন না জাতীয় দলের কোচ নিয়োগের জন্য গঠিত ভারতের ক্রিকেট উপদেষ্টা কমিটির (সিএসি) সদস্যরা। কোহলির সঙ্গে কথা না বলে কোচ নিয়োগ করতে চাইছেন না তাঁরা। বিরাট এখন ভারতে নেই। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর শেষ করে তিনি এখন মার্কিন মুলুকে রয়েছেন। তাই কোচের নাম ঘোষণা অনির্দিষ্টকালের জন্য পিছিয়ে দিয়েছে সিএসি। বিরাটের সঙ্গে অালোচনা করে তা ঠিক করা হবে।

যা দাঁড়াল তাতে আগামী ২৬ জুলাই শুরু হতে যাওয়া শ্রীলঙ্কা সফরেও হেড কোচ পাচ্ছে না ভারতীয় দল। মুম্বইয়ে পাঁচ প্রার্থীর সাক্ষাৎকার নেওয়ার পর সিএসির সদস্য সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় নতুন কোচের নাম ঘোষণা পিছিয়ে দেওয়ার কথা জানান। তিন সদস্যের কোচ নিয়োগ কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন শচীন তেন্ডুলকর ও ভিভিএস লক্ষ্মণ। মুম্বইয়ে সশরীরে উপস্থিত ছিলেন সৌরভ ও লক্ষ্মণ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগ দেন শচীন। প্রার্থীদের মধ্যে শুধু বীরেন্দ্র সহবাগই ছিলেন মুম্বাইয়ে। রবি শাস্ত্রী, টম মুডি, লালচাঁদ রাজপুত, রিচার্ড পাইবাসদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হয়েছে স্কাইপে।

কোচ প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার শেষে বিসিসিআইয়ের সদর দপ্তরে নাম ঘোষণা পিছিয়ে দেওয়ার কথা বলেন সৌরভ। তিনি বলেন, “কোচের নাম ঘোষণা স্থগিত করা হয়েছে। আগে আমরা বিরাট কোহলির সঙ্গে কথা বলব। বিষয়টা নিয়ে তাড়াহুড়োর কিছু নেই। আগে বিরাট আমেরিকা থেকে ফিরুক। আমরা তিনজন ও অন্যরা তার সঙ্গে কথা বলব। কোচরা কীভাবে কাজ করতে চান আমরা তাকে জানাব। ঘোষণা করার আগে আমরা নিশ্চিত হতে চাই সব পক্ষ একমত রয়েছে। শ্রীলঙ্কা সফর নয়, আমাদের সিদ্ধান্তটা ২০১৯ বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখেই নিতে হবে।”

প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক অারও যোগ করেন, “কোহলিকে ধন্যবাদ দিতেই হবে। কারণ কোচ হিসেবে কারও নামই সে প্রস্তাব করেনি। তবে আমাদের উপদেষ্টা কমিটির মনে হয়েছে ক্রিকেটে অধিনায়কের গুরুত্ব সবচেয়ে বেশি। তার ও আমাদের মত থাকা দরকার। কারণ আমাদের কাছে ভারতীয় ক্রিকেট বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের ভূমিকা নগণ্য। আসল হল ক্রিকেটাররা। ওরাই তো কোচের সঙ্গে কাজ করবে।”

বোর্ডের একটি সুত্রের খবর অনুযায়ী, টম মুডি কিংবা বীরেন্দ্র সহবাগের মধ্যে কাউকে কোচ হিসেবে বেছে নেওয়া হবে। তবে সবার থেকে এগিয়ে রয়েছেন বীরু। উল্লেখ্য, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পর থেকেই কোচ নেই ভারতের। কুম্বলের সঙ্গে এক বছরের চুক্তি ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর পর্যন্ত বাড়াতে চেয়েছিল বিসিসিআই। কিন্তু অধিনায়কের সঙ্গে মতের মিল হচ্ছে না, এই কারণ দেখিয়ে প্রস্তাবটা ফিরিয়ে দেন কুম্বলে। তবে খুব তাড়াতাড়ি এবার কোচ পাচ্ছেন বিরাট-রোহিতরা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *