দাদার রেকর্ড চূর্ণ বিচূর্ণ করে দিলেন বিরাট! 1

ক্য়ান্ডিতে পরপর দু’টি ম্য়াচে নিষ্প্রভ থেকে কলম্বোতে ফিরেই আবার জেগে উঠল বিরাটের ব্য়াট। ঘুম থেকেই উঠেই রেকর্ডের পাহাড়ে চড়লেন ভারত অধিনায়ক। কলম্বোয় একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সিরিজের চতুর্থ ম্য়াচে তাঁর কেরিয়ারের ঊনত্রিশতম শতরান করলেন বিরাট কোহলি। মাত্র ৯৬ বলে ১৩১ রান। ১৭টি চার ও ২টি ছয়ে সাজানো আছে তাঁর ইনিংস। আর বিরাটের বিস্ফোরক ইনিংসের দৌলতে রানের পাহাড়ে ভারত। নির্ধারিত পঞ্চাশ ওভারে ভারতের রান পাঁচ উইকেটে ৩৭৫ রান। ম্য়াচের যা অবস্থা খুব একটা বড় অঘটন না ঘটলে শ্রীলঙ্কার হার নিশ্চিত। সেই সঙ্গে ২০১৯ বিশ্বাকাপে সরাসরি খেলার যোগ্য়তাও হারাতে চলেছে ১৯৯৬-এর বিশ্ব চ্য়াম্পিয়নরা।
নিয়মিত অধিনায়ক, অস্থায়ী অধিনায়ক, টেস্ট দলনায়কের অনুপস্থিতিতে কলম্বোতে বৃহস্পতিবার শ্রীলঙ্কা দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন স্টার পেস বোলার লাসিথ মালিঙ্গা। অধিনায়ক বদল হলেও ভাগ্য়রেখা সেই একই দিশা বারবর চলছে শ্রীলঙ্কান টিমের। এদিন টসে জিতে আগে ব্য়াট নেন বিরাট। সিরিজে এই প্রথমবার আগে ব্য়াটিং করল ভারত। বিরাটের শিখরে ওঠার দিনে ওপেনার শিখর ধওয়ান তাড়াতাড়ি ফিরে গেলেও আবার শতরান হিটম্য়ানের ব্য়াটে। দু’জনে মিলে ২১৯ রান যোগ করেন। তবে, যেভাবে দুরন্ত গতিতে খেলছিলেন, তাতে বলা চলে নিশ্চিত ডাবল সেঞ্চুরির সুযোগটা হারালেন ভারত অধিনায়ক। একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মালিঙ্গা তাঁর তিনশোতম উইকেট হিসেবে বিরাটকে যখন তুলে নেন, তখনও কুড়ি ওভার বাকি ম্য়াচে। এখানে উল্লেখ্য়, একদিনের ক্রিকেটে সর্বাধিক সেঞ্চুরি করার তালিকায় প্রাক্তন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক রিকি পন্টিং’য়ের থেকে আর মাত্র একধাপ পিছনে রয়েছেন ভারত অধিনায়ক। তালিকায় সবার আগে রয়েছেন ভারতের ক্রিকেট লেজেন্ড শচীন তেন্ডুলকর (৪৯টি)। বয়সের দিক থেকে বিরাট সবচেয়ে কম সময়ে ২৯টি ওডিআই সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়লেন। ভারত অধিনায়কের বয়স এখন আটাশ বছর।
যদিও ওখানেই শেষ নয়, ভারতীয় অধিনায়ক হিসেবে সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরি করার তালিকায় ভারতের সর্বকালের অন্য়তম সেরা অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলিকে কলম্বোয় ছাপিয়ে গেলেন বিরাট। ভারতের অধিনায়ক হিসেবে কোহলির এটি ১৭তম শতরান। এতদিন এই তালিকায় সবার ওপরে ১৬টি শতরান নিয়ে ছিলেন সৌরভ। তিনি ২০০০-২০০৫ পর্যন্ত অধিনায়ক থাকাকালীন এই ১৬টি শতরান করেছিলেন।
উল্লেখ্য়, কলম্বোয় চতুর্থ একদিনের ম্য়াচে রোহিত শর্মার ৮৮ বলে ১১টি চার ও ৩টি ছ’য়ের সাহায্য়ে ১০৪ রান করে আউট হন। এই নিয়ে টানা দু’টি ম্য়াচে শতরান করলেন হিটম্য়ান। ওয়ান-ডে ক্রিকেটে এটি তাঁর ত্রয়োদশ শতরান। হার্দিক পান্ডিয়া ও লোকেশ রাহুল ব্য়র্থ হলেও ধোনি ম্য়াজিক কলম্বোতেও অব্য়াহত। শ্রীলঙ্কা সিরিজে এখনও অপরাজিত ভারতের সর্বকালের সেরা ম্য়াচ ফিনিশার। এদিন, দক্ষিণ আফ্রিকার শন পোলক ও শ্রীলঙ্কার চামিন্ডা বাসকে টপকে সবচেয়ে বেশি বার (৭৩ বার) একদিনের ক্রিকেটে নট-আউট থাকার নজির গড়লেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। এটি একটি বিশ্ব রেকর্ড। ষষ্ঠ উইকেটের জুটিতে মণীশ পান্ডেকে (৪২ বলে অপরাজিত ৫০ রান) নিয়ে ১০১ রান যোগ করেন মাহি (৪২ বলে অপরা ৪৯ রান)। এক রানের জন্য় হাফ-সেঞ্চুরি না পেলেও ধোনি ধীর গতির ইনিংস ছেড়ে আবার সেই পুরনো মেজাজে ফিরে এসেছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *